শুক্রবার, জুলাই 26, 2024
spot_img

পদ্মা সেতু ভেঙ্গে যাওয়ার ভুয়া দাবি টিকটকে 

সম্প্রতি, শর্ট ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম টিকটকে “পদ্মা সেতু উড়ে গিয়েছে এতো দামি সেতু ছি” শীর্ষক শিরোনামে একটি ভিডিও প্রচার করা হচ্ছে। যেখানে দাবি করা হচ্ছে বাংলাদেশের পদ্মা সেতু ভেঙ্গে গিয়েছে৷  

পদ্মা সেতু ভেঙ্গে

টিকটকে প্রচারিত ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)। 

এই প্রতিবেদন প্রকাশ হওয়া অবধি ভিডিওটি প্রায় ৮ লাখ বার দেখা হয়েছে। ভিডিওটিতে প্রায় ৭ হাজার পৃথক অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে এবং শেয়ার করা হয়েছে ৪৭২ বার। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, বাংলাদেশের পদ্মা সেতু ভেঙ্গে যায়নি বরং চীনের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর গুয়াংজুর পার্ল নদীতে গত ২২ ফেব্রুয়ারি জাহাজের ধাক্কায় একটি সেতুর একাংশ ভেঙ্গে যাওয়ার ভিডিওকেই আলোচিত দাবিতে প্রচার করা হয়েছে। 

দাবিটি নিয়ে অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। ভিডিওটিতে জাতীয় দৈনিক কালবেলা’র একটি লোগো দেখতে পাওয়া যায়। উক্ত লোগোর সূত্র ধরে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে কালবেলা’র ইউটিউব চ্যানেলে গত ২৩ ফেব্রুয়ারি “জাহাজের ধাক্কায় উড়ে গেলো সেতু!। Ship Broke The Bridge। China News। kalbela” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। এই ভিডিওটির শুরুর অংশটুকুই আলোচিত ভিডিওটিতে যুক্ত করা হয়েছে। 

Video Comparison : Rumor Scanner 

ভিডিও বিশ্লেষণে জানা যায়, চীনের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর গুয়াংজুতে পণ্যবাহী জাহাজের ধাক্কায় সেতুর একাংশ ভেঙ্গে বাসসহ পাঁচটি যানবাহন নদীতে পড়ে গিয়ে ২ জন নিহত এবং তিনজন নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। 

এছাড়া, বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক প্রথম আলোর ওয়েবসাইটে গত ২২ ফেব্রুয়ারি “চীনে জাহাজের ধাক্কায় ভেঙ্গে গেলো সেতু” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদনেও একই বিষয় খুঁজে পাওয়া যায়।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলোতেও একই তথ্য পাওয়া যায়। 

অর্থাৎ আলোচিত ভিডিওটি বাংলাদেশের পদ্মা সেতুর নয়। 

এছাড়া, প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চে গণমাধ্যম কিংবা অন্য কোনো নির্ভরযোগ্য সূত্রে পদ্মা সেতু ভেঙ্গে যাওয়া বিষয়ক কোনো তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

মূলত, গত ২২ ফেব্রুয়ারি চীনের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর গুয়াংজুর পার্ল নদীতে জাহাজের ধাক্কায় একটি সেতুর একাংশ ভেঙ্গে যায়। উক্ত ঘটনায় বাংলাদেশের একাধিক গণমাধ্যম সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের পাশাপাশি ভিডিও প্রতিবেদন প্রকাশ করে। উক্ত ঘটনায় জাতীয় দৈনিক কালবেলা’র ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত ভিডিও প্রতিবেদনের একটি অংশ প্রচার করে শর্ট ভিডিও শেয়ারিং ফ্লার্টফর্ম টিকটকে দাবি করা হচ্ছে, বাংলাদেশের পদ্মা সেতু ভেঙ্গে গিয়েছে।

সুতরাং, চীনের নদীতে জাহাজের ধাক্কায় একটি সেতুর একাংশ ভেঙ্গে যাওয়ার ভিডিও পদ্মা সেতু ভেঙ্গে গিয়েছে দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে ; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img