শনিবার, এপ্রিল 13, 2024
spot_img

নবম গ্রেডের সরকারি চাকরির আবেদন ফি নিয়ে গণমাধ্যমে বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার

সম্প্রতি, সরকারের অর্থ বিভাগের এক প্রজ্ঞাপনে নবম গ্রেডের সরকারি চাকরিতে আবেদনের ফি ৫০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৬০০ টাকা করা হয়েছে দাবিতে গণমাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।

আবেদন ফি

গণমাধ্যমে উক্ত দাবিতে প্রকাশিত প্রতিবেদন দেখুন সারাবাংলা

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, সরকারের অর্থ বিভাগের সাম্প্রতিক প্রজ্ঞাপনে নবম গ্রেডের সরকারি চাকরিতে আবেদনের ফি ৫০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৬০০ টাকা করা হয়েছে শীর্ষক দাবিটি সঠিক নয় বরং ২০২২ সালে প্রকাশিত পূর্বের প্রজ্ঞাপনেই নবম গ্রেডের সরকারি চাকরির আবেদনের ফি ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়, যা সাম্প্রতিক প্রজ্ঞাপনে একই রয়েছে। 

অনুসন্ধানের শুরুতে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের ওয়েবসাইটে গত ১৭ আগস্ট এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot from ‘mof.gov.bd’

প্রজ্ঞাপন থেকে জানা যায়, নবম গ্রেড বা তদূর্ধ্ব গ্রেড (নন কেডার) চাকরিপ্রত্যাশীদের আবেদন ফি ৬০০ টাকা। প্রার্থীরা টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেডের মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন ও পরীক্ষা ফি জমা নেওয়া যাবে। পরীক্ষার ফি বাবদ সংগ্রহ করা অর্থের সর্বোচ্চ ১০ শতাংশ কমিশন হিসেবে টেলিটককে দিতে হবে এবং টেলিটকের এই কমিশনের সাথে ১৫ শতাংশ ভ্যাট যোগ হবে।

যার মানে, অর্থ মন্ত্রণালয়ের নতুন নির্দেশনা মোতাবেক নবম গ্রেডে চাকরিপ্রত্যাশীদের আবেদন ফি ৬০০ টাকার সাথে টেলিটকের ১০ শতাংশ কমিশন বা ৬০ টাকা যোগ হবে। টেলিটকের এই কমিশনের ওপর ভ্যাট প্রযোজ্য হবে ১৫ শতাংশ বা ৯ টাকা। ফলে নবম গ্রেডের চাকরিপ্রার্থীদের আবেদনের মোট খরচ হবে ৬৬৯ টাকা।

পরবর্তীতে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের ওয়েবসাইটে ২০২২ সালের ২৫ সেপ্টেম্বরে এ সংক্রান্ত পূর্বের প্রজ্ঞাপনটি খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot from ‘mof.gov.bd’

প্রজ্ঞাপন থেকে জানা যায়, বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পরবর্তী সময় থেকে নবম গ্রেডের চাকরিপ্রত্যাশীদের আবেদন ফি হবে ৬০০ টাকা। যা এর পূর্বে ছিল ৫০০ টাকা।

অর্থাৎ, ২০২২ সালেই নবম গ্রেডের আবেদন ফি ৫০০ টাকা থেকে ৬০০ টাকা হয়।

মূলত, গত ১৭ আগস্ট অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ কর্তৃক জনবল নিয়োগ ফি সংক্রান্ত বিষয়ে প্রকাশিত এক প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়, এখন থেকে চাকরির আবেদনে টেলিটকের ১০ শতাংশ কমিশনের সাথে ১৫ শতাংশ ভ্যাট যোগ করা হবে। তবে পূর্বের অর্থাৎ, ২০২২ সালের সর্বশেষ প্রজ্ঞাপনে উল্লিখিত আবেদন ফি এর কোনো পরিবর্তন সাম্প্রতিক প্রজ্ঞাপনে করা হয়নি। কিন্তু, কতিপয় গণমাধ্যমে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদনে  দাবি করা হয়েছে, নবম গ্রেডের সরকারি চাকরির আবেদনের জন্য ফি ৫০০ টাকা থেকে ৬০০ টাকা করা হয়েছে।

সুতরাং, ২০২২ সালে নবম গ্রেডের সরকারি চাকরির জন্য আবেদন ফি বাড়িয়ে ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা করার তথ্যকে সম্প্রতি অর্থ বিভাগের এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপনের তথ্য দাবিতে গণমাধ্যমে প্রচার করা হয়েছে; যা বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img