আগামী মাসে ময়মনসিংহ-সিলেট রুটে নতুন আন্তঃনগর ট্রেন চালুর দাবিটি বিভ্রান্তিকর

সম্প্রতি “আগামী মাসেই চালু হচ্ছে ময়মনসিংহ টু সিলেট রুটে নতুন আন্তঃনগর ট্রেন” এমন একটি দাবি সম্বলিত অসংখ্য পোস্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।  

কী দাবি করা হচ্ছে?  

ফেসবুকে গত ১৭ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ ‘প্রিয় জামালপুর জেলা’ নামক একটি পেজে প্রকাশিত একটি পোস্টে (আর্কাইভ) দাবি করা হয়, “আগামী মাসেই চালু হচ্ছে ময়মনসিংহ টু সিলেটরুটে নতুন আন্তঃনগর ট্রেন। ধন্যবাদ বাংলাদেশ রেলওয়ে।

একই দাবিতে ছড়িয়ে পড়া ফেসবুক পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে।

ফ্যাক্টচেক 

রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে দেখা যায়, আগামী মাসে ময়মনসিংহ-সিলেট রুটে নতুন আন্তঃনগর ট্রেন চালু হওয়ার তথ্যটি সঠিক নয় বরং বগি সংকট থাকায় বিষয়টি এখনও বিবেচনাধীন।

কিওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে, সাম্প্রতিক সময়ে দেশের মূল ধারার কোনো সংবাদমাধ্যমেই নতুন ট্রেন চালুর বিষয়ে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। সর্বশেষ চলতি বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারী ঢাকা – নোয়াখালী রুটে চলমান আন্তঃনগর উপকূল এক্সপ্রেসের পুরানো রেক সরিয়ে নতুন রেক দিয়ে ট্রেনটি চালানোর বিষয়ে দেশীয় সংবাদমাধ্যমগুলোতে (বিডিনিউজ২৪নিউজ বাংলা২৪) সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়।

পরবর্তীতে বাংলাদেশ রেলওয়ে‘র ওয়েবসাইটে গিয়েও নতুন কোনো ট্রেন চালুর বিষয়ে সাম্প্রতিক কোনো বিজ্ঞপ্তি বা প্রজ্ঞাপন খুঁজে পাওয়া যায় নি। সাধারণত নতুন ট্রেন চালু হলে রেলওয়ের ওয়েবসাইট এ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়।

আলোচিত তথ্যটির সত্যতা নিশ্চিতে পরবর্তীতে বাংলাদেশ রেলওয়ের একাধিক উর্ধ্বর্তন কর্মকর্তার সাথে কথা বলেছে রিউমর স্ক্যানার। রেলওয়ে পূর্বাঞ্চল (অতিঃ) মহাব্যবস্থাপক এবং প্রধান প্রকৌশলী রিউমর স্ক্যানারকে জানান, তাদের কাছে এ বিষয়ে কোনো তথ্য নেই।

এছাড়া, রেলওয়ের অতিঃ মহাপরিচালক (অপারেশন), রেলওয়ের চীফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার এবং সিলেট রেলওয়ে স্টেশনের ম্যানেজারকে একাধিকবার ফোন দেওয়া হলেও তারা ফোন রিসিভ করেননি।  

তাছাড়া, এ বিষয়ে জানতে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজনকে ফোন দেওয়া হলে তিনি রিসিভ না করে কেটে দেন।

ময়মনসিংহ-সিলেট রুটে ট্রেন চালুর দাবি কি নতুন? 

অনুসন্ধানে ২০১৭ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারী জাতীয় দৈনিক ইনকিলাব পত্রিকার ওয়েবসাইটে একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। সেখানে বলা হয়, “ময়মনসিংহ-সিলেট রেলপথে শিগগির আন্ত:নগর ট্রেন চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন ধর্মমন্ত্রী প্রিন্সিপাল মতিউর রহমান।”

কিন্তু পরের দুই বছর এই ট্রেন চালুর ব্যাপারে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

২০১৯ সালের ১৮ জুলাই মূলধারার অনলাইন সংবাদমাধ্যম বার্তা ২৪ এর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, “ময়মনসিংহ থেকে সিলেট ও রংপুর রুটে আন্তঃনগর ট্রেন চালু করাসহ সাত দফা দাবিতে মানববন্ধন করেছেন ময়মনসিংহ নগরবাসী। মানববন্ধনে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক নেতাকর্মী ছাড়াও রেলওয়ে ফ্যান গ্রুপের সদস্য ও সিলেটস্থ সিলেট-ময়মনসিংহ আন্তঃনগর ট্রেন চালুকরণ বাস্তবায়ন পরিষদের সদস্যরা অংশ নেন।”

এই দাবি বাস্তবায়নে পরের দুই বছর দৃশ্যমান কোনো অগ্রগতির খবর পায়নি রিউমর স্ক্যানার।

২০২১ সালের ৯ অক্টোবর ময়মনসিংহের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম ময়মনসিংহ লাইভ এর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, “ময়মনসিংহের সাথে সিলেটের সরাসরি রেলযোগাযোগ স্থাপনে কাজ চলছে এবং সেজন্য জরিপ কার্যক্রম চলছে বলেও জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। শনিবার (৯ অক্টোবর) রাজধানীর বেইলি রোডে অফিসার্স ক্লাবে বৃহত্তর ময়মনসিংহ সমন্বয় পরিষদ আয়োজিত ‘বার্ষিক সন্মেলন ২০২১’ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।”

সাড়ে চার বছরে দুই মন্ত্রীর আশ্বাসের পরও সিলেট-ময়মনসিংহ রুটের আন্তঃনগর ট্রেন চালুর বিষয়টি আলোর মুখ দেখেনি।

সাম্প্রতিক সময়ে কীভাবে গুজব ছড়ালো? 

গত ১০ আগস্ট সিলেটের বৃহত্তর ময়মনসিংহ সমিতি নামক একটি সংগঠনের পক্ষ থেকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে সিলেট – ময়মনসিংহ রুটে সরাসরি আন্তঃনগর ট্রেন সার্ভিস চালুর দাবি জানিয়ে একটা স্মারকলিপি দেওয়া হয়। এই স্মারকলিপি দেওয়ার বিষয়টি রিউমর স্ক্যানারকে নিশ্চিত করেছেন সংগঠনের সভাপতি মোঃ নিজাম উদ্দিন।

এই স্মারকলিপির প্রেক্ষিতে গত ২১ আগস্ট পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে এম আব্দুল মোমেন এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার অনুরোধ জানিয়ে রেলমন্ত্রী মোঃ নুরুল ইসলাম সুজনকে একটি ডিও লেটার পাঠান।

এ বিষয়ে জানতে বৃহত্তর ময়মনসিংহ সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ তৌফিকুর আলম বাবলুর সাথে কথা বলেছে রিউমর স্ক্যানার। তিনি জানান, রেলমন্ত্রীকে ডিও লেটার পাঠানোর পাশাপাশি ফোনও করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী৷ রেলমন্ত্রী বলেছেন, “বগি সংকট থাকায় এখনই এই রুটে নতুন ট্রেন চালু সম্ভব হচ্ছে না। নতুন বগি আসলে বা ম্যানেজ করা গেলে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হবে। “

অর্থাৎ, আগামী মাসেই ময়মনসিংহ-সিলেট রুটে নতুন আন্তঃনগর ট্রেন চালুর দাবিটি সঠিক নয়।

মূলত, ময়মনসিংহ-সিলেট রুটে নতুন আন্তঃনগর ট্রেন চালুর দাবিটি বেশ পুরানো হলেও সাম্প্রতিক সময়ে রেলমন্ত্রীকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী কর্তৃক পাঠানো এই রুটে ট্রেন চালুর অনুরোধ বিষয়ক একটি ডিও লেটারকে কেন্দ্র করে নতুন করে ইস্যুটি সামনে এসেছে। এর আগে পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দেয় বৃহত্তর ময়মনসিংহ সমিতি নামক একটি সংগঠন। সংগঠনটি রিউমর স্ক্যানারকে বলেছে, “বগি সংকট থাকায় এখনই উক্ত রুটে ট্রেন চালু সম্ভব হচ্ছে না বলে তাদের জানানো হয়েছে। নতুন বগি আসা কিংবা বগি ম্যানেজ করা গেলে এই দাবি বাস্তবায়ন করা হবে।” এছাড়া, রেল মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারাও নতুন ট্রেন চালুর বিষয়ে তাদের কাছে কোনো তথ্য নেই বলে রিউমর স্ক্যানারকে জানিয়েছেন। অর্থাৎ, আগামী মাসেই ময়মনসিংহ-সিলেট রুটে নতুন আন্তঃনগর ট্রেন চালুর দাবিটি সঠিক নয়।

প্রসঙ্গত, ট্রেন নিয়ে পূর্বেও বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন গুজব ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষিতে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, আগামী মাসে ময়মনসিংহ-সিলেট রুটে নতুন আন্তঃনগর ট্রেন চালুর দাবিটি বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img