মেসির এখনও বিয়ে হয়নি শীর্ষক দাবিটি মিথ্যা

সম্প্রতি, “মেসির নাকি তিনটা সন্তান, অথচ এখনো বিয়ে করেনি। এরা কিভাবে মুসলিমদের আইডল হতে পারে।” শীর্ষক একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। যেখানে দাবি করা হয়েছে আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি এখনও বিয়ে করেননি।

ফেসবুকে প্রচারিত উক্ত দাবির কিছু পোস্ট দেখুন, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ দেখুন, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়,  লিওনেল মেসি এখনও বিয়ে করেননি শীর্ষক দাবিটি সত্য নয় বরং ২০১৭ সালের ৩০ জুন বিয়ে করেছেন লিওনেল মেসি। মেসির বিয়ের আগে দুটি সন্তান এবং বিয়ের নয় মাস পর আরেকটি সন্তানসহ মোট তিনটি সন্তান রয়েছে।

কিওয়ার্ড সার্চ এর মাধ্যমে লিওনেল মেসি এবং তার বাল্যকালের প্রেমিকা আন্তোনেলা রোকুজ্জের বিয়ে অনুষ্ঠিত হওয়ার সংবাদ খুব সহজেই খুঁজে পাওয়া যায়। ২০১৭ সালের ৩০ জুন রোজারিওতে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন লিওনেল মেসি এবং আন্তনেলা রোকুজ্জে।

ডয়েচে ভেলে বাংলাতে ২০১৮ সালের ৩০ শে জুন আজ মেসির বিয়ে শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদে উল্লেখ করা হয়,

  “এরই মধ্যে কিংবদন্তির তকমা গায়ে লাগানো মেসি এখন বিশ্বের সর্বকালের সেরাদের একজন৷ রেকর্ড পাঁচবার ফিফার বর্ষসেরা ও চার বার ইউরোপ সেরা হয়ে উঠেছেন অনন্য উচ্চতায়৷ ছয়দিন আগে ৩০-এ পা দিয়েই আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়েটাও সেরে ফেলছেন স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনার এই আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার৷ 

দশ বছর আগে সম্পর্কে জড়ান বন্ধু অ্যান্থোনেলা ওকুৎজোর সঙ্গে৷ তবে একই শহর রোজারিও’র বাসিন্দা অ্যান্থোনেলাকে চিনতেন সেই পাঁচ বছর বয়স থেকে৷ তাঁদের দু’টি পুত্রসন্তানও আছে৷ একজনের নাম থিয়াগো, বয়স পাঁচ৷ আরেকজন ম্যাটিও, তার বয়স দুই৷ মেসির বিয়েতে মধ্যমনি থাকবে এরাই৷

বিয়ে হবে মেসি-অ্যান্থোনেলা জুটির যে শহরে জন্ম, বেড়ে ওঠা, ভালোলাগা, ভালোবাসা– সেই রোজারিওর সিটি সেন্টারে৷”

বিবিসিতে ২০১৭ সালের ৩০ জুন “Argentina hosts Lionel Messi’s ‘wedding of the century”  শিরোনামে লিওনেল মেসির বিয়ে নিয়ে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন পাওয়া যায়।

উক্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, “আর্জেন্টাইন ফুটবল তারকা লিওনেল মেসি তার শৈশবের প্রিয়তমাকে তার নিজ শহরে বিয়ে করেছেন। এই বিয়েকে ‘শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ বিয়ে’ বলা হচ্ছে। রোজারিও শহরের একটি বিলাসবহুল হোটেলে মেসি(৩০) এবং আন্তোনেলা রোকুজ্জো(২৯) এর জন্য একটি বিবাহোত্তর নাগরিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ২৬০ জন অতিথির মধ্যে ছিলেন ফুটবল তারকা এবং সেলিব্রেটিরা। অনুষ্ঠানের জন্য শত শত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল। আর্জেন্টিনা এবং বার্সেলোনার (বর্তমানে বার্সার সাবেক) ফরোয়ার্ড মাত্র ১৩ বছর বয়সে স্পেনে চলে যাওয়ার আগে শিশুকালে রোকুজ্জোর সাথে পরিচিত হয়েছিল।”

বিবিসি বাংলাতেও সেসময় মেসির ২৫ বছরের প্রেমের পর ‘শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ বিয়ে’ শিরোনামে মেসির বিয়ের সংবাদ প্রকাশিত হয়েছিলো।

অর্থাৎ লিওনেল মেসি ২০১৭ সালের ৩০ জুন বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হোন। 

রয়টার্সের ৩০ জুন ২০১৭ তথা মেসির বিয়ের দিন প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, লিওনেল মেসি এবং আন্তোনেলা রোকুজ্জের দুটি সন্তান রয়েছে। একজন থিয়াগো, যার বয়স বিয়ের দিন ৪ বছর, অন্যজন মাতেও যার বয়স সেসময় ২১ মাস।

২০১২ সলের ২ নভেম্বর প্রথম সন্তান লাভ করেন মেসি এবং তার প্রেমিকা, যার নাম রাখা হয় থিয়াগো এবং ২০১৫ সালের ১১ সেপ্টেম্বর জন্ম নেয় তাদের দ্বিতীয় সন্তান মাতেও মেসি।

দুই সন্তান লাভের পর ২০১৭ সালের ৩০ জুন রোজারিওতে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হোন মেসি ও আন্তোনেলা। বিয়ের ৯ মাস পর ২০১৮ সালের ১০ মার্চ তৃতীয় সন্তান সিরো মেসি জন্মগ্রহণ করেন।

মূলত, বাংলাদেশে ফুটবল বিশ্বকাপ ২০২২ এর উম্মাদনার প্রেক্ষিতে, ‘মেসির নাকি তিনটা সন্তান, অথচ এখনো বিয়ে করেনি। এরা কিভাবে মুসলিমদের আইডল হতে পারে।’ শীর্ষক তথ্য প্রচার করা হয়, যেখানে মেসির এখনও বিয়ে হয়নি শীর্ষক ভুল দাবি উল্লেখ করা হয়।

সুতরাং,  লিওনেল মেসির এখনও বিয়ে হয়নি শীর্ষক দাবিটি মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

  1. আজ মেসির বিয়ে – DW Bangla 
  2. Stars turn out for Messi’s wedding in Rosario – Reuters 
  3. LIONEL MESSI ANNOUNCES BIRTH OF THIRD CHILD – Euro Sports
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img