সোমবার, মে 20, 2024
spot_img

উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ৫ প্রিজাইডিং অফিসারের গণপিটুনি খাওয়ার দাবিটি সঠিক নয়

সম্প্রতি,  গণপিটুনি খেলো ৫ প্রিজাইডিং অফিসার শীর্ষক শিরোনাম থাম্বনেইলে উল্লেখপূর্বক একটি ভিডিও ইউটিউবে প্রচার করা হয়েছে।

 ৫ প্রিজাইডিং

Viral Topic নামে একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে প্রচারিত ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)

এই প্রতিবেদন প্রকাশ হওয়া অবধি ভিডিওটি দেখা হয়েছে ১ হাজার আটশতের অধিক বার। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়,  উপজেলা নির্বাচনে৫ প্রিজাইডিং অফিসার গণপিটুনি খাননি, বরং সিরাজগঞ্জে উপজেলা নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রার্থীর সাথে গোপন বৈঠকের অভিযোগে ৫ প্রিজাইডিং অফিসারকে গ্রেফতারের ঘটনা উক্ত দাবিতে প্রচার করা হয়েছে।

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে ভিডিওটিতে কোথাও ৫ প্রিজাইডিং অফিসারের গণপিটুনি খাওয়ার দাবির সপক্ষে  কোনো তথ্য উপস্থাপন করা হয়নি। এমনকি ভিডিওটিতে আলোচিত দাবির কোনো তথ্য প্রমাণও উল্লেখ পাওয়া যায়নি। অর্থাৎ ভিডিওটি’র থাম্বনেইলে প্রচারিত দাবিটির সাথে বিস্তারিত অংশের অসামঞ্জস্যতা রয়েছে। ৮ মিনিট ১৩ সেকেন্ডের ভিডিওটিতে ভিন্ন ভিন্ন সংবাদ উপস্থাপন করা হয়েছে। 

ফুটেজ যাচাই ০১

ভিডিওতে প্রদর্শিত সময় টিভির ফুটেজটির কী-ফ্রেম রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে  SOMOY TV এর ইউটিউব চ্যানেলে গত ৭ মে ‘প্রার্থীর পক্ষে বৈঠক, ধরা খেলেন ৫ ভোট কর্মকর্তা’ শিরোনামে একটি ভিডিও প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। এক ভিডিওর একটি অংশই আলোচিত ভিডিওতে ব্যবহার করা হয়েছে।

Screenshot comparison: Rumor Scanner 

ভিডিও প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, সিরাজগঞ্জে উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এক প্রার্থীর পক্ষে  গোপন বৈঠক করছিলেন ৫ প্রিজাইডিং অফিসার। গোপন বৈঠক করার অভিযোগে মূল হোতা ও ৫ প্রিজাইডিং অফিসারকে গ্রেফতার  করে পুলিশ।

ফুটেজ যাচাই ০২

ভিডিওতে দেখানো সিনিয়র সাংবাদিক মোস্তফা ফিরোজের বক্তব্যের ফুটেজের কিছু কী-ফ্রেম রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে   Voice Bangla নামক একটি ইউটিউব চ্যানেলে গত ৭ মে ‘টাকাসহ চেয়ারম্যান প্রার্থী যেভাবে ধরা খেলো…’ শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও পাওয়া যায়।এই ভিডিওর একটি অংশই আলোচিত ভিডিওতে ব্যবহার করা হয়েছে।

Screenshot comparison: Rumor Scanner

ভিডিওটিতে সিনিয়র সাংবাদিক মোস্তফা ফিরোজ  প্রথম আলো এবং ঢাকা পোস্টের সংবাদের ‍দুটি স্ক্রিনশট দেখিয়ে পাবনার সুজানগর উপজেলা নির্বাচনর আগে চেয়ারম্যান প্রার্থী আটকের সংবাদ নিয়ে নিজের মতামত প্রকাশ করেন।

স্ক্রিনশটের সূত্রধরে প্রথম আলো এর ওয়েবসাইটে গত ৭ মে ‘সুজানগরে টাকাসহ চেয়ারম্যান প্রার্থী আটক, থানা ঘেরাও করে সমর্থকদের বিক্ষোভ’ শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন পাওয়া যায় এবং Dhaka Post এর ওয়েবসাইটে গত ৭ মে ‘পাবনায় চেয়ারম্যান প্রার্থীর মুক্তির দাবিতে থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ’ শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন পাওয়া যায়। 

প্রতিবেদন দুটি থেকে জানা যায়, নিয়মবহির্ভূতভাবে টাকা বিতরণকালে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহিনুজ্জামান শাহীনসহ ১১ জনকে আটক করে র‌্যাব। চেয়ারম্যানের আটকের খবর পেয়ে তাঁর সমর্থকেরা থানা ঘেরাও করেন।

তথ্য যাচাই ০৩

ভিডিওতে প্রদর্শিত যমুনা টিভির ফুটেজের কিছু কী-ফ্রেম রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে  Jamuna TVএর ইউটিউব চ্যানেলে গত ৭ মে ‘উপজেলা নির্বাচন: ‘স্বজনদের মধ্যে ত্যাগী কর্মীরা ভোটে দাঁড়াতে পারবেন’ শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। এই ভিডিওর একটি অংশই আলোচিত ভিডিওতে ব্যবহার করা হয়েছে।

Screenshot comparison: Rumor Scanner

ভিডিও প্রতিবেদনটিতে উল্লেখ করা হয়, উপজেলা নির্বাচনে মন্ত্রী-এমপিদের সন্তান স্বজনদের প্রার্থী হওয়া বিষয়ে কিছুটা নমনীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। স্বজনদের মধ্যে ত্যাগী কর্মীরা ভোটে দাড়াতে পারবেন।

মূলত, সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে গত ০৬ মে রাতে এক চেয়ারম্যান প্রার্থীর সঙ্গে গোপন বৈঠকে অংশ নেওয়ার  অভিযোগে মূল হোতা ও ৫ প্রিজাইডিং অফিসারকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইউটিউবে  “গণপিটুনি খেলো ৫ প্রিজাইডিং অফিসার ” শীর্ষক থাম্বনেইল একটি ভিডিও প্রচার করা হয়। প্রকৃতপক্ষে উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশের কোথাও ৫ প্রিজাইডিং অফিসারের গণপিটুনি খাওয়ার ঘটনা ঘটেনি।

সুতরাং, ৫ প্রিজাইডিং অফিসারের গণপিটুনি খাওয়ার দাবিটি বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img