মামুনুল হক কারাগার থেকে মুক্তি পাননি 

সম্প্রতি, “মামুনুল হক কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন” শীর্ষক দাবিতে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হয়েছে।

Screenshot from Facebook 

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু ভিডিও দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, মামুনুল হক কারাগার থেকে মুক্তি পাননি বরং তিনি ২০২১ সালের পর থেকে এখনো কারাগারে আটক রয়েছেন। এছাড়া মুক্তি পেয়েছেন দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি সাম্প্রতিক সময়ের নয় বরং এটি ২০২০ সালের ভিডিও। 

ভিডিওটির কিছু স্থিরচিত্র রিভার্স সার্চের মাধ্যমে ‘মুহাম্মাদ মামুনুল হক’ এর ভেরিফাইড ফেসবুক ফেসবুক পেজে ২০২০ সালের ০৬ মে তারিখে “শাপলা ট্রাজেডি, শাপলা রাতের অবস্থান নিয়ে যত কথা” শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত একটি লাইভ ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। 

উক্ত ভিডিওটির সাথে ‘মামুনুল হক সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছেন’ শীর্ষক দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটির হুবহু মিল দেখতে পাওয়া যায়।

Screenshot from ‘মুহাম্মাদ মামুনুল হক’ Facebook Page 

ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়,

মামুনুল হক মূলত ২০১৩ সালের ০৫ মে তারিখে হেফাজতে ইসলামের শাপলা চত্তরে অবস্থান কর্মসূচি, পরবর্তীতে মামুনুল হকের গ্রেফতার এবং কারাগার থেকে মুক্তির বিষয়ে কথা বলছেন। 

পরবর্তীতে, বিস্তর অনুসন্ধানে লাইভ অনুষ্ঠানটির সঞ্চালক ‘Rafi Bin Monir’ এর ফেসবুক একাউন্ট খুঁজে পায় রিউমর স্ক্যানার টিম। একাউন্টটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, রাফি বিন মনির একই দিনে অর্থাৎ, ২০২০ সালের ০৬ মে তারিখে “শাপলা ট্র্যাজেডি নিয়ে তরুণদের কাছে জবাবদিহিতার উদ্দেশ্যে” শীর্ষক শিরোনামে মামুনুল হককে সাথে নিয়ে উক্ত লাইভ অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করার ঘোষণা দেন।

Screenshot from ‘Rafi Bin Monir’ Facebook Account

ভিডিও থেকে পাওয়া সূত্র ধরে কি-ওয়ার্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে ‘Bangla News 24’ এর ওয়েবসাইটে ২০১৩ সালের ১২ মে তারিখে “হেফাজত নেতা মামুনুল হক খুলনায় গ্রেফতার” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot from ‘Bangla News 24’ website

উক্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়,

মামুনুল হকের বিরুদ্ধে খুলনা এবং ঢাকায় একাধিক মামলা থাকার কারণে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে সময়ে তিনি মোট ৮৩ দিন জেলে কাটিয়েছেন বলে জানা যায়। 

পরবর্তীতে অনুসন্ধানে, ২০২১ সালের ১৮ এপ্রিল তারিখে ‘দৈনিক যুগান্তর’ এর ওয়েবসাইটে “যে কারণে মামুনুল হক গ্রেফতার” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে মামুনুল হকের পুনরায় গ্রেফতার হওয়ার খবরটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot from ‘Jugantor’ website

প্রতিবেদনটি থেকে জানা যায়,

হেফাজত নেতা মামুনুল হকের বিরুদ্ধে ২০১৩ সালের শাপলা চত্তরের ঘটনায় মামলা, থানায় হামলা, রেজিষ্ট্রার অফিসে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনাসহ বেশ কয়েকটি মামলা থাকার কারণে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসা থেকে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের একটি দল তাকে গ্রেফতার করে। 

সর্বশেষ চলতি বছরের ১২ ফেব্রুয়ারি তারিখে মূলধারার সংবাদমাধ্যম ‘DBC News’ এর ফেসবুক পেজে “ক্রাচে ভর করে আদালতে মামুনুল হক” শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত একটি ভিডিও প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot from ‘DBC News’ Facebook

ভিডিও প্রতিবেদনটিতে দেখা যাচ্ছে,

মামুনুল হককে হ্যান্ডকাপ পরিহিত অবস্থায় আদালতে হাজির করা হয়েছে এবং তিনি ক্র্যাচে ভর দিয়ে হেঁটে চলেছেন। পরবর্তিতে, আদালতের কার্যক্রম শেষে তাকে পুনরায় প্রিজন ভ্যানে করে কারাগারে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। 

অর্থাৎ, ২০২১ সালের এপ্রিল মাসে মামুনুল হক গ্রেফতার হওয়ার পরবর্তী সময় থেকে এখন পর্যন্ত তিনি কারাগারেই আছেন। 

মূলত, ২০২০ সালের ০৬ মে তারিখে রাফি বিন মনির নামের এক ব্যক্তির সঞ্চালনায় একটি লাইভ অনুষ্ঠানে অংশ নেন মামুনুল হক। অনুষ্ঠানটিতে ২০১৩ সালের মে মাসে আলোচিত শাপলা চত্তরের অবস্থান কর্মসূচি, পরবর্তীতে মামুনুল হকের গ্রেফতার এবং কারাগার থেকে মুক্তির বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন তারা। ২০২০ সালে অনুষ্ঠিত সেই লাইভ ভিডিওর একটি অংশ কেটে সাম্প্রতিক সময়ে মামুনুল হক কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন শীর্ষক দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভিত্তিহীনভাবে প্রচার করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, পূর্বেও মামুনুল হকের মুক্তির দাবিতে পুরোনো ও ভিন্ন ঘটনার ভিডিও প্রচার করা হলে সে সময়ে একাধিক ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার টিম। 

সুতরাং, ২০২০ সালের একটি লাইভ ভিডিওর কিছু অংশ কেটে সাম্প্রতিক সময়ে মামুনুল হক মুক্তি পেয়েছেন এবং মুক্তি পরবর্তী সময়ে লাইভে এসে বক্তব্য দিচ্ছেন দাবিতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img