শনিবার, জুলাই 20, 2024
spot_img

গোটা ইসরায়েলকে রুখে দিতে ইরান একাই যথেষ্ট শীর্ষক মন্তব্য শি জিনপিং করেননি

গত ১ এপ্রিল সিরিয়ায় ইরানের দূতাবাসের নিকটে ইসরায়েলের হামলায় ইসলামিক রেভল্যুশনারি গার্ড কর্পসের একজন সিনিয়র কমান্ডার ও ছয় কর্মকর্তা নিহত হলে এই হামলার প্রতিবাদে গত ১৩ এপ্রিল রাতে ইসরায়েলে কয়েকশ ড্রোন ও মিসাইল হামলা চালায় ইরান। এরই প্রেক্ষিতে গত ১৯ এপ্রিল শর্ট ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটকে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বলেন গোটা ইসরাইলকে রুখে দিতে ইরান একাই যথেষ্ট শীর্ষক দাবিতে একটি ভিডিও প্রচার করা হয়।

শি জিনপিং

উক্ত দাবিতে প্রচারিত টিকটক ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

এই প্রতিবেদনটি প্রকাশ হওয়া অবধি ভিডিওটি প্রায় ৯০ হাজার বার দেখা হয়েছে। ১৬ হাজারেরও অধিক পৃথক অ্যাকাউন্ট থেকে ভিডিওটিতে প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, গোটা ইসরাইলকে রুখে দিতে ইরান একাই যথেষ্ট শীর্ষক মন্তব্য চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং করেননি, বরং কোনো রকমের তথ্যসূত্র ছাড়াই উক্ত মন্তব্যটি শি জিনপিং এর নামে প্রচার করা হচ্ছে। 

অনুসন্ধানের শুরুতে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করে নির্ভরযোগ্য সূত্রে শি জিনপিং এর নামে এমন কোনো মন্তব্য খুঁজে পাওয়া যায়নি। তবে, “ইসরায়েলের বিরুদ্ধে ইরান একাই যথেষ্ট” শিরোনামে বাংলাদেশি একাধিক বেসরকারি গণমাধ্যম ওয়েবসাইটে সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়। তবে, উক্ত সংবাদগুলোতে চীনের প্রেসিডেন্টের নামে মন্তব্যটি প্রচার করা হয়নি। 

যেমন চ্যানেল ২৪ এর সংবাদে বলা হয়, “ইসরায়েলে ইরানের হামলা ইস্যুতে অবশেষে নীরবতা ভেঙেছে চীন। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই বলেছেন, ইরান ‘পরিস্থিতি সামাল দিতে’ এবং মধ্যপ্রাচ্যকে আরও উত্তেজনা এড়াতে সক্ষম। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, সিরিয়ায় ইরানের দূতাবাসে হামলা এবং সপ্তাহান্তে তার প্রতিশোধমূলক হামলার কথা উল্লেখ করে চীন বলছে তারা বিশ্বাস করে, ইরান তার সার্বভৌমত্ব এবং মর্যাদা রক্ষায় “পরিস্থিতি ভালভাবে মোকাবিলা করতে ও এই অঞ্চলের অশান্তি এড়াতে পারে”।” 

এ বিষয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের ওয়েবসাইট ঘেঁটেও নিশ্চিত হওয়া যায়। বার্তা সংস্থা রয়টার্স প্রকাশিত সংবাদ অনুসারে, চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই বলেছেন, চীন বিশ্বাস করে নিজের সার্বভৌমত্ব ও মর্যাদা রক্ষা করা অবস্থায় ইরান (ইরান ইসরায়েল সংঘাত) পরিস্থিতি ভালোভাবে সামাল দিতে পারবে এবং মধ্যপ্রাচ্যে অতিরিক্ত উত্তেজনা এড়াবে। 

বাংলাদেশী বেসরকারি গণমাধ্যম আরটিভি এ বিষয়ে সংবাদ প্রকাশ করে জানায়, “ইসরায়েলে ইরানের হামলায় পক্ষ নিলো চীন। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই বলেছেন, ইরান ‘পরিস্থিতি সামাল দিতে’ এবং মধ্যপ্রাচ্যে আরও উত্তেজনা এড়াতে সক্ষম। খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।”

তাছাড়া অধিকতর অনুসন্ধানে গত ১৪ এপ্রিল তারিখে এ বিষয়ে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতি খুঁজে পায় রিউমর স্ক্যানার টিম৷ উক্ত বিবৃতিতে চীন গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে এবং মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানায়৷ তবে, ইরানের আক্রমণকে নিন্দা জানায়নি চীন৷ অর্থাৎ, ইরানের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রাখা অবস্থায় মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠার পক্ষে চীন। 

উল্লেখ্য যে, ১৯৯২ সাল থেকেই ইসরায়েলের সাথেও পূর্ণ কূটনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে The People’s Republic of China (চীন) এর এবং এখন পর্যন্ত ইসরায়েলের অর্থনীতিতেও বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ করেছে দেশটি। তাছাড়া, ২০২৩ সালে এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের শীর্ষস্থানীয় আন্তর্জাতিক কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স ম্যাগাজিন The Diplomat এ প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুসারে, চীন হচ্ছে ইসরায়েলের শীর্ষ তিন রপ্তানি ও আমদানি পার্টনারদের মধ্যে একটি। 

এমতাবস্থায়, চীনা প্রেসিডেন্ট জিনপিংয়ের ইসরায়েলকে রুখে দিতে ইরান একাই যথেষ্ট শীর্ষক আক্রমণাত্মক বক্তব্য প্রদানের সুযোগ নেই৷ 

প্রচারিত টিকটক ভিডিওটিতে ব্যবহৃত চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এর ছবিটির উৎসের সন্ধান করলে মূল উৎস সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া না গেলেও ছবিটি অন্তত ২০১৭ সাল থেকেই ইন্টারনেটে বিদ্যমান আছে এ বিষয়ে প্রমাণ পাওয়া যায়।৷ 

Comparison : Rumor Scanner

উল্লেখ্য যে, ইরান ইসরায়েল সংঘাতে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যকে বিভ্রান্তিকরভাবে ভাষান্তরিত করে সংবাদ প্রকাশ করে বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম সময় নিউজ টিভি৷ সময় নিউজের সংবাদ অনুসারে, নেতানিয়াহু বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়তে রাইসি প্রশাসন একাই যথেষ্ট বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই। 

মূলত, ইরান ইসরায়েলের সংঘাত নিয়ে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই বলেছিলেন, চীন বিশ্বাস করে ইরান উক্ত উত্তেজিত পরিস্থিতি ভালোভাবে সামাল দিতে পারবে এবং মধ্যপ্রাচ্যে অস্থিরতা এড়িয়ে চলবে। চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকেও শান্তি প্রতিষ্ঠানের আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি প্রচার করা হয়। চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর উক্ত মন্তব্যকে বিভ্রান্তিকরভাবে ভাষান্তরিত করে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং গোটা “ইসরায়েলকে রুখে দিতে ইরান একাই যথেষ্ট” শীর্ষক মন্তব্য করেছেন দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে। প্রকৃতপক্ষে শি জিনপিং আলোচ্য দাবি সম্পর্কিত কোনো মন্তব্য করেননি।

অর্থাৎ, গোটা ইসরায়েলকে রুখে দিতে ইরান একাই যথেষ্ট মন্তব্যটি চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং করেছেন বলে প্রচারিত দাবিটি মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img