বৃহস্পতিবার, জুলাই 18, 2024
spot_img

বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শতাধিক ব্যক্তি নিহত হননি

গত ২৯ ফেব্রুয়ারি রাতে রাজধানীর বেইলি রোডে বহুতল ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শতাধিক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন দাবিতে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। 

বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ড

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক 

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শতাধিক ব্যক্তি নিহত হওয়ার দাবিটি সঠিক নয় বরং এই প্রতিবেদন প্রকাশের আগ পর্যন্ত ৪৫ বা ৪৬ জন ব্যক্তি নিহত হয়েছেন এবং ৫ জন ব্যক্তি চিকিৎসাধীন আছেন। 

অনুসন্ধানে শুরুতে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করে বেইলি রোডে বহুতল ভবনে অগ্নিকাণ্ডে শতাধিক ব্যক্তি নিহত হওয়া সংক্রান্ত কোনো তথ্য গণমাধ্যম কিংবা নির্ভরযোগ্য সূত্রে পাওয়া যায়নি। 

তবে, সময় টিভি’র ফেসবুক পেজে আজ ০২ মার্চ “কথা বলছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সাক্ষাৎকারের একটি ভিডিও পাওয়া যায়। 

উক্ত ভিডিওতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন জানান, এখন পর্যন্ত প্রায় ৪৫ জন ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি হওয়া রোগীদের চিকিৎসায় ১৭ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। এ বোর্ডের প্রধান হিসেবে রয়েছেন তিনি নিজেই। দগ্ধ ১১ জন রোগীর মধ্যে ৬ জনকে ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আর ৫ জন চিকিৎসাধীন থাকবে। 

পাশাপাশি, দৈনিক সমকালে “বার্ন ইনস্টিটিউট থেকে ফিরছেন ৬ জন, ‘শঙ্কামুক্ত নয়’ ৫” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন পাওয়া যায়। 

উক্ত প্রতিবেদনেও একই তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে। 

এছাড়া, গত ১ মার্চ দৈনিক প্রথম আলো এর ওয়েবসাইটে “আহত ১২ জনের কেউ শঙ্কামুক্ত নন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন পাওয়া যায়। 

উক্ত প্রতিবেদনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেনের বরাতে ৪৬ জন ব্যক্তির নিহতের তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। 

একই তথ্যে সংবাদ এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ভিডিও সাক্ষাৎকার প্রকাশ করেছে ডেইলি স্টার। 

অর্থাৎ, বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শতাধিক নয় বরং ৪৫ বা ৪৬ জন ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। 

মূলত, গত ২৯ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর বেইলি রোডে বহুতল ভবন গ্রিন কোজিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় শতাধিক নিহত হয়েছেন- শীর্ষক একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। তবে অনুসন্ধানে জানা যায়, বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ডে শতাধিক ব্যক্তি নিহত হওয়ার দাবিটি সঠিক নয়। প্রকৃতপক্ষে উক্ত অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন গত ১ মার্চ ৪৬ জন এবং ২ মার্চ প্রায় ৪৫ জন ব্যক্তি নিহত হওয়ার তথ্য জানিয়েছেন। এছাড়া, উক্ত প্রতিবেদন প্রকাশ অবধি উক্ত দুর্ঘটনায় আহত ৫ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে জানা গেছে।

সুতরাং, রাজধানীর বেইলি রোডে বহুতল ভবন গ্রিন কোজিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত প্রায় ৪৫ বা ৪৬ জন মানুষ মারা গেলেও উক্ত ঘটনায় শতাধিক ব্যক্তি নিহত হওয়ার দাবি প্রচার করা হয়েছে; যা বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র 

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img