বৃহস্পতিবার, জুলাই 18, 2024
spot_img

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের কারামুক্তির গুজব

গত ২৭ জানুয়ারি Media Cell 24 নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলে ‘ব্যারিস্টার সুমনের নেতৃত্বে ফখরুলের মুক্তি, খালেদার সাথে সাক্ষাৎ করলেন ফখরুল’ শীর্ষক শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে একটি ভিডিও প্রচার করা হয়েছে।

কারামুক্তির

ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

এই প্রতিবেদন প্রকাশ হওয়া অবধি ভিডিওটি দেখা হয়েছে প্রায় ৩০ হাজার বার। ভিডিওটিতে প্রায় ৭ শত পৃথক অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কারাগার থেকে মুক্তি পাননি বরং তিনি বর্তমানে কারাগারেই আছেন এবং সাম্প্রতিক সময়ে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাথে তার সাক্ষাত করার দাবিটিও সঠিক নয় বরং মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও খালেদা জিয়ার পুরোনো কয়েকটি ভিডিও ক্লিপের সাথে আলোচিত দাবি সম্বলিত শিরোনাম ও থাম্বনেইল যুক্ত করে উক্ত ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে।

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। এতে দেখা যায়, এটি ভিন্ন ভিন্ন কয়েকটি ঘটনার পুরোনো ভিডিও ক্লিপ নিয়ে তৈরি একটি ভিডিও।

আলোচিত ভিডিওটি’র শিরোনাম ও থাম্বনেইলে ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের নেতৃত্বে মির্জা ফখরুলের মুক্তির কথা বলা হলেও ভিডিওটিতে কোথাও ব্যারিস্টার সুমন সম্পর্কিত কোনো তথ্যের উল্লেখ পাওয়া যায়নি। এছাড়াও, আলোচিত দাবিগুলোর পক্ষে ভিডিওটিতে কোনো নির্ভরযোগ্য তথ্যপ্রমাণের উল্লেখ পাওয়া যায়নি।

তাছাড়া উল্লেখিত দাবিগুলোর বিষয়ে প্রাসঙ্গিক একাধিক কি ওয়ার্ড সার্চ করেও গণমাধ্যম কিংবা সংশ্লিষ্ট অন্যকোনো নির্ভরযোগ্য সূত্রে দাবিগুলোরসত্যতা পাওয়া যায়নি।

পরবর্তী অনুসন্ধানে আলোচিত ভিডিওটিতে প্রচারিত ভিডিও ক্লিপগুলোর বিষয়ে আলাদাভাবে অনুসন্ধান চালায় রিউমর স্ক্যানার টিম।

ভিডিও যাচাই- ০১

আলোচিত ভিডিওটি থেকে কিছু স্থিরচিত্র নিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল- বিএনপি’র ইউটিউব চ্যানেলে ২০১৬ সালের ০২ এপ্রিল ‘৩০ মার্চ ২০১৬, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে শুভেচ্ছা জানালেন মহাসচিব এবং সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। 

এই ভিডিওটি’র একটি অংশের সাথে আলোচিত ভিডিওটিতে প্রচারিত প্রথম ভিডিও ক্লিপের হুবহু মিল পাওয়া যায়।

Video Comparison by Rumor Scanner

ভিডিওটি থেকে জানা যায়, এটি ২০১৬ সালে বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী’র বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়ের সময়ের ভিডিও।

অর্থাৎ, এটি প্রায় ৮ বছর আগে ধারণকৃত ভিডিও। তাই এটা স্পষ্ট যে এই ভিডিওটি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সাম্প্রতিক সময়ে সাক্ষাতের কোনো ঘটনার নয়। 

ভিডিও যাচাই- ০২

আলোচিত ভিডিওটি থেকে কিছু স্থিরচিত্র নিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে বেসরকারি টেলিভিশন ‘চ্যানেল ২৪’ এর ইউটিউব চ্যানেলে ২০২২ সালের ০৩ মে ‘খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করে যা জানালেন মির্জা ফখরুল’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

এই ভিডিওটি’র একটি অংশের সাথে আলোচিত ভিডিওটিতে প্রচারিত বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের অংশের ভিডিও ক্লিপের হুবহু মিল পাওয়া যায়।

Video Comparison by Rumor Scanner

উক্ত ভিডিওটিতে সেসময় শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকা বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করার পর দেশবাসীর উদ্দেশ্যে খালেদা জিয়ার সুস্থতার জন্য মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে দোয়া চাইতে দেখা যায়।

অর্থাৎ, এই ভিডিওটিও সাম্প্রতিক সময়ের নয় বরং এটি দেড় বছরের অধিক পূর্বের ভিডিও।

এছাড়াও, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সর্বশেষ অবস্থার বিষয়ে অনুসন্ধানে মূলধারার গণমাধ্যম প্রথম আলো’র অনলাইন সংস্করণে গত ২৬ জানুয়ারি ‘কারাগারেই কাটল মির্জা ফখরুলের জন্মদিন’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বর্তমানে কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারে রয়েছেন। গত ২৬ জানুয়ারি তার ৭৭ তম জন্মদিনে পরিবারের সদস্যরা তাকে শুভেচ্ছা জানাতে তার সাথে কারাগারে দেখা করেন। 

অর্থাৎ, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এখন পর্যন্ত কারাগার থেকে মুক্তি পাননি।

মূলত, ঢাকার পল্টনে গত ২৮শে অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশকে ঘিরে হামলা, ভাঙচুর ও সংঘর্ষের ঘটনায় মোট ১১টি মামলায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) এর মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে আসামি করা হয়। এর মধ্যে একটি মামলায় ২৯ অক্টোবর তাকে প্রথমে গ্রেপ্তার এবং পরে কারাগারে পাঠানো হয়। গত ১০ জানুয়ারি পল্টন ও রমনা থানার পৃথক নয়টি মামলায় সিএমএম আদালতে জামিন পেয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এরই মধ্যে গত ২৭ জানুয়ারি Media Cell 24 নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলে ‘ব্যারিস্টার সুমনের নেতৃত্বে ফখরুলের মুক্তি, খালেদার সাথে সাক্ষাত করলেন ফখরুল’ শীর্ষক শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে একটি ভিডিও প্রচার করা হয়। তবে রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, উক্ত দাবিগুলো সঠিক নয়। গত ১০ জানুয়ারি মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নয়টি মামলায় জামিন পেলেও আরও দুইটি মামলায় জামিন অপেক্ষমাণ থাকায় তিনি এখনই কারামুক্তি পাচ্ছেন না। এই দুই মামলায় কারামুক্তির আগ পর্যন্ত তাকে কারাগারেরই থাকতে হবে। তাই সাম্প্রতিক সময়ে মির্জা ফখরুলের বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করার দাবিটিও বানোয়াট।

উল্লেখ্য, পূর্বেও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কারামুক্তির ভুয়া তথ্য শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, সাম্প্রতিক সময়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাথে সাক্ষাত করেছেন দাবিতে প্রচারিত তথ্যগুলো সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img