বুধবার, ফেব্রুয়ারি 28, 2024
spot_img

গ্রাম বাংলার এই ছবিটি সত্যজিৎ রায়ের আঁকা নয়

সম্প্রতি, সত্যজিৎ রায়ের আঁকা ছবি দাবিতে গ্রাম বাংলার একটি দৃশ্যের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে। 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচারিত উক্ত ছবি সম্বলিত কিছু পোস্ট দেখুন পোস্ট (আর্কাইভ), পোস্ট (আর্কাইভ), পোস্ট (আর্কাইভ) এবং পোস্ট (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ভারতীয় চলচ্চিত্র নির্মাতা সত্যজিৎ রায়ের আঁকা ছবি দাবিতে প্রচারিত ছবিটি তাঁর নয় বরং নিপুন দেব নাথ নামের ভিন্ন একজন ব্যক্তি ২০১৫ সালে এই ছবিটি এঁকেছিলেন।

সত্যজিৎ রায়ের আঁকা এমন কোনো ছবি আছে? 

ছবিটি নিয়ে অনুসন্ধানে রিউমর স্ক্যানার টিম প্রথমেই সত্যজিৎ রায়ের আঁকা এমন কোনো ছবি আছে কি না তা যাচাই করে। এ নিয়ে অনুসন্ধানে কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে ‘সত্যজিৎ রায় সম্পাদিত সেরা সন্দেশ ১৩৬৮-১৩৮৭‘ নামের একটি বই খুঁজে পাওয়া যায়। বইটিতে সত্যজিৎ রায়ের আঁকা অনেকগুলো ছবি খুঁজে পাওয়া গেলেও আলোচিত ছবিটির ন্যায় এমন কোনো ছবি খুঁজে পাওয়া যায়নি।

এছাড়াও ‘Dhulokhela’ নামের একটি ব্লগ ওয়েবসাইটেও সন্দেশ পত্রিকার কিছু পুরোনো সংখ্যার সন্ধান পাওয়া যায়। যেখানে সত্যজিৎ রায়ের আঁকা কিছু চিত্রকর্ম রয়েছে। তবে এখানেও সত্যজিৎ রায়ের আঁকা দাবিতে প্রচারিত আলোচিত ছবিটির ন্যায় এমন কোনো চিত্র খুঁজে পাওয়া যায়নি।

Image collected from Dhulokhela blog website 

এ পর্যন্ত সত্যজিৎ রায়ের বিভিন্ন কাজ সম্পর্কে অনুসন্ধান করে আলোচিত ছবিটির ন্যায় সত্যজিৎ রায়ের কোনো ছবি খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

উল্লেখ্য, ১৯১৩ সালে উপেন্দ্রকিশোর রায় চৌধুরীর হাত ধরে মাসিক ‘সন্দেশ’ পত্রিকার যাত্রা শুরু হয়। পরবর্তীতে ১৯৬১ সালে সত্যজিৎ রায়ের হাত ধরে পত্রিকাটি নতুনভাবে পথচলা শুরু করে।

ছবিটি আসলে কার?  

ছবিটির মূল স্রষ্টা সম্পর্কে অনুসন্ধানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ‘Nipun Deb Nath’ নামক এক ব্যক্তির অ্যাকাউন্টে ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি ‘গ্রাম বাংলা’ (আর্কাইভ) শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত আলোচিত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়।

এই ছবিটির সাথে সত্যজিৎ রায়ের আঁকা ছবি দাবিতে প্রচারিত ছবিটির মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

Image Comparison by Rumor Scanner

একই অ্যকাউন্টে গত ৩১ আগস্ট আরও একটি পোস্ট খুঁজে পাওয়া যায়। 

উক্ত পোস্টে (আর্কাইভ) নিপুন দেব নাথ লিখেন, কয়দিন পর পরই এই ছবিটা “সত্যজিৎ রায়ের আঁকা” বলে বিভিন্ন জায়গায় শেয়ার হয়। আমি ফেসবুকে খুব একটা আসি না বলে অনেকসময় টের পাই না। টের পেলেও সব জায়গায় গিয়ে গিয়ে প্রতিবাদ করতে পারি না। আমার হয়ে অনেকেই প্রতিবাদ করেন, সত্যটাকে তুলে ধরেন। তাদের কাছে আমি চির কৃতজ্ঞ!

হ্যাঁ, ছবিটা আমার আঁকা। এখানে আমার স্বাক্ষর নেই। মনের ভুলে স্বাক্ষর না দিয়েই এইটা “চিত্রলেখা” এলবামে শেয়ার করি। প্রথম প্রথম এইটা নিয়ে একটা অনুশোচনা ছিল। কিন্তু এখন নেই। আমার মূল লক্ষ্য ছিল অন্যরকম কিছু একটা করার এবং বাংলা শব্দগুলো যে ছবির মত সুন্দর তা তুলে ধরার। আমার “চিত্রলেখা” এলবামে এই ধাঁচের আরও কিছু কাজ পাবেন। আমি মনে করি যে আমার কাজের ধরণগুলোর মধ্যেই আমার স্বাক্ষর লুকিয়ে আছে।’

পরবর্তী অনুসন্ধানে নিপুন দেব নাথের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বিশ্লেষণ করে তার আঁকা একই ধরনের আরও বেশ কিছু ছবিও খুঁজে পাওয়া যায়।

Image Collage by Rumor Scanner

মূলত, সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভারতীয় চলচ্চিত্র নির্মাতা সত্যজিৎ রায়ের আঁকা ছবি দাবিতে একটি লেখাচিত্র প্রচার করা হচ্ছে। তবে অনুসন্ধানে দেখা যায়, উক্ত ছবিটি সত্যজিৎ রায়ের আঁকা নয়। এছাড়া রিউমর স্ক্যানার টিমের বিস্তারিত অনুসন্ধানেও সত্যজিৎ রায়ের এমন কোনো ছবির সন্ধান পাওয়া যায়নি। বরং অনুসন্ধানে দেখা যায়, উক্ত ছবিটি এঁকেছেন নিপুন দেব নাথ নামক একজন ব্যক্তি। তিনি ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি তার ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে আলোচিত ছবিটি প্রকাশ করেছিলেন। 

প্রসঙ্গত, পূর্বেও এক ব্যক্তির আঁকা ছবিকে ভিন্ন আরেক ব্যক্তির আঁকা ছবি দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হলে তা নিয়ে অনুসন্ধান করে রিউমর স্ক্যানার টিম ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এমন একটি ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন দেখুন পুরান ঢাকার প্রেক্ষাপটে আঁকা ছবিটি ঢাবি শিক্ষক কামালুদ্দিনের আঁকা নয়

সুতরাং, নিপুণ দেবনাথ নামের এক ব্যক্তির আঁকা ছবিকে চলচ্চিত্র নির্মাতা সত্যজিৎ রায়ের আঁকা ছবি দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে; যা মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img