শনিবার, জুলাই 20, 2024
spot_img

যমুনা টিভির ফটোকার্ড নকল করে বিশ্ব ইজতেমায় ১ লাখ সাদ পন্থীর বিয়ের ভুয়া খবর প্রচার

২০১৮ সাল থেকে তাবলিগ জামাতের বিবদমান দুই পক্ষ (আমির মাওলানা সাদ কান্ধলভী ও মাওলানা জুবায়ের) আলাদাভাবে বিশ্ব ইজতেমার আয়োজন করে আসছে। এ বছরও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। গত ০৯ ফেব্রুয়ারি থেকে মাওলানা সাদ কান্ধলভীর অনুসারীদের দায়িত্বে শুরু হয় বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। পরদিন (১০ ফেব্রুয়ারি) ইজতেমা ময়দানে প্রায় ১৪ যুগলের যৌতুকবিহীন বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। এরই প্রেক্ষিতে যমুনা টিভি’র আদলে তৈরি একটি ফটোকার্ডের মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে, “বিশ্ব ইজতেমার ২য় দিনে ১ লাখ সাদ পন্থীর বিয়ে হয়েছে

 বিয়ে

উক্ত ফটোকার্ডটি প্রচার করে যমুনা টিভির সমালোচনাও করা হয়েছে কতিপয় পোস্টে।

উক্ত ফটোকার্ড সম্বলিত ফেসবুকে প্রচারিত কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ),এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, বিশ্ব ইজতেমায় গত ১০ ফেব্রুয়ারি ১ লাখ সাদ পন্থীর বিয়ের তথ্য সম্বলিত কোনো ফটোকার্ড যমুনা টিভি প্রকাশ করেনি বরং ইজতেমায় বিয়ে সংক্রান্ত যমুনা টিভির একটি ফটোকার্ড ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনার মাধ্যমে উক্ত দাবিটি প্রচার করা হয়েছে।

যমুনা টিভি’র লোগো সম্বলিত আলোচিত ফটোকার্ডটি পর্যবেক্ষণে দেখা যায়, এতে ফটোকার্ডটি প্রকাশের তারিখ হিসেবে ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ উল্লেখ রয়েছে।

Screenshot : Facebook Claim Post 

এটির সূত্র ধরে যমুনা টিভি’র  ফেসবুক পেজে গত ১০ ফেব্রুয়ারি প্রচারিত ফটোকার্ডগুলো পর্যালোচনা করে “বিশ্ব ইজতেমার ২য় দিনে ১৪ টি যৌতুকবিহীন বিয়ে” শীর্ষক শিরোনাম বা তথ্য সম্বলিত একটি ফটোকার্ড খুঁজে পাওয়া যায়।

Photocard Comparison : Rumor Scanner 

পর্যবেক্ষণে যমুনা টিভি’র ফটোকার্ডে ব্যবহৃত ফন্টের সাথে আলোচিত ফটোকার্ডের ফন্টের কিছু অংশের মধ্যে ভিন্নতা পরিলক্ষিত হয়। যমুনা টিভি’র ফটোকার্ডের ‘বিশ্ব ইজতেমার ২য় দিনে’ এবং ‘বিয়ে’ বাক্যাংশের সাথে আলোচিত ফটোকার্ডের বাক্যাংশগুলো মিললেও বাকি অংশে যমুনা টিভি’র ফটোকার্ডে লেখা ‘১৪ টি যৌতুকবিহীন বিয়ে’ যেখানে আলোচিত ফটোকার্ডে লেখা ‘১ লাখ সাদ পন্থীর’।

অর্থাৎ, এই ফটোকার্ডটির শিরোনাম ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনা করে ‘১ লাখ সাদ পন্থীর’ শীর্ষক বাক্যাংশ যুক্ত করে আলোচিত ফটোকার্ডটি তৈরি করা হয়েছে।

একই দিনে যমুনা টেলিভিশনের ওয়েবসাইটেও এ সংক্রান্ত একটি সংবাদ প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, গাজীপুরের টঙ্গীতে ১০ ফেব্রুয়ারি ইজতেমার দ্বিতীয় দিনে আসরের নামাজের পর মোট ১৪টি যৌতুকবিহীন বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। এই ১৪টি বিয়ে পড়ান মাওলানা ইউসুফ বিন সাদ। 

মূলত, গাজীপুরের টঙ্গীতে গত ০৯ ফেব্রুয়ারি মাওলানা সাদ কান্ধলভীর অনুসারীদের দায়িত্বে বিশ্ব ইজতেমা শুরু হওয়ার পরদিন ১৪টি যৌতুকবিহীন বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। এর প্রেক্ষিতে যমুনা টিভি’র আদলে তৈরি একটি ফটোকার্ডের মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে, “বিশ্ব ইজতেমার ২য় দিনে ১ লাখ সাদ পন্থীর বিয়ে হয়েছে। কিন্তু রিউমর স্ক্যানার টিম অনুসন্ধানে দেখেছে, উক্ত ঘটনায় “বিশ্ব ইজতেমার ২য় দিনে ১৪ টি যৌতুকবিহীন বিয়ে” শীর্ষক তথ্যসম্বলিত শিরোনামে একটি ফটোকার্ড  প্রকাশ করে যমুনা টিভি। যমুনা টিভি’র উক্ত ফটোকার্ডটি ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনার মাধ্যমে ‘বিশ্ব ইজতেমার ২য় দিনে ১ লাখ সাদ পন্থীর বিয়ে’ শীর্ষক শিরোনামে ফেসবুকে প্রচার করা হয়।

সুতরাং, ‘বিশ্ব ইজতেমার ২য় দিনে ১ লাখ সাদ পন্থীর বিয়ে’ শীর্ষক শিরোনামে যমুনা টেলিভিশনের নামে প্রচারিত ফটোকার্ডটি এডিটেড বা বিকৃত। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img