শনিবার, জুলাই 13, 2024
spot_img

এইচএসসি পরীক্ষা না পেছানোয় ঢাকা ইম্পেরিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীর আত্মহত্যার গুজব

আগামী ৩০ জুন থেকে শুরু হবে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। তবে বন্যার কারণে পরীক্ষা শুরুর তারিখ পেছানো হয়েছে সিলেট বিভাগে। যেখানে ৯ জুলাই থেকে পরীক্ষা নেওয়ার  সিদ্ধান্ত নিয়েছে আন্ত: শিক্ষাবোর্ড সমন্বয় কমিটি। এরপরই শুধু সিলেট নয়, সারাদেশের পরীক্ষা পেছানোর দাবি তুলে শিক্ষার্থীদের একটি অংশ। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ কয়েক দিন ধরেই চলছে না আলোচনা সমালোচনা। এরই প্রেক্ষিতে, সম্প্রতি এইচএসসি পরীক্ষা না পেছানোর কারণে ঢাকা ইম্পেরিয়াল কলেজের একজন শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে দাবিতে এক যুবকের ছবিসহ একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। 

উক্ত দাবিতে প্রচারিত পোস্টটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, এইচএসসি পরীক্ষা না পেছানোর কারণে ঢাকা ইম্পেরিয়াল কলেজের কোনো শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেনি বরং সম্পূর্ণ ভিত্তিহীনভাবে উক্ত দাবিটি প্রচার প্রচার করা হচ্ছে।

এবিষয়ে অনুসন্ধানের শুরুতে, প্রচারিত দাবিতে ব্যবহৃত ছবিটি রিভার্স ইমেজ সার্চ করলে Shishir Bhuiyan নামের ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্টে মূল ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। ছবিটি মূলত শিশির ভুঁইয়া নামের ঐ ব্যক্তির যা ২০২২ সালের ২৩ মার্চ তিনি তার ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্টে আপলোড করেন। সম্প্রতি তার এই ছবি ব্যবহার করেই আলোচিত দাবিটি ছড়ানো হয়েছে।

তার ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট পর্যবেক্ষণ করে আলোচিত দাবির বিষয়ে একটি স্টোরি খুঁজে পায় রিউমর স্ক্যানার টিম। স্টোরিতে তিনি লিখেন, “Someone used my picture & spreading a rumour that i died but how”।

এছাড়া তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঢাকা ইম্পেরিয়াল কলেজের শিক্ষার্থী নন বলে রিউমর স্ক্যানারকে নিশ্চিত করেন এবং বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম সিটি কলেজে স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষে পড়াশোনা করছেন বলেও জানান।

Screenshot: Instagram

পরবর্তীতে, প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড অনুসন্ধান করে ফেসবুকে এই দাবি সংক্রান্ত আরেকটি পোস্ট (আর্কাইভ) পাওয়া যায়। উক্ত পোস্টে দাবি করা হয়, ঢাকা ইম্পেরিয়াল কলেজের Mohammad Ratul নামের একজন শিক্ষার্থী গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে। এছাড়াও, উক্ত পোস্টের মন্তব্য ঘরে একই দাবিতে যমুনা টিভির লোগো সম্বলিত একটি ফটোকার্ড খুঁজে পাওয়া যায়। তবে, যমুনা টিভির ফেসবুক পেজওয়েবসাইটে এই সংক্রান্ত কোনো সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

অর্থাৎ, গুজব ছড়ানোর উদ্দেশ্যে উক্ত পোস্ট ও ফটোকার্ডটি তৈরি করা হয়েছে। 

Screenshot collage: Rumor Scanner

বিষয়টি সম্পর্কে অধিকতর নিশ্চিত হওয়ার জন্য ঢাকা ইম্পেরিয়াল কলেজ কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা জানায়, এরকম কোনো ঘটনা ঘটেনি বরং ফেসবুকে আসন্ন এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে গুজব ছড়ানোর জন্য এসব করা হচ্ছে।

মূলত, আসন্ন এইচএসসি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে পরীক্ষা না পেছানোর কারণে ঢাকা ইম্পেরিয়াল কলেজের একজন শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে দাবিতে এক যুবকের ছবিসহ একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। তবে রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে জানা যায়, এইচএসসি পরীক্ষা না পেছানোর কারণে ঢাকা ইম্পেরিয়াল কলেজের কোনো শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেনি। আলোচিত দাবিতে প্রচার হওয়া ছবির ব্যক্তি এবং ইম্পেরিয়াল কলেজ কর্তৃপক্ষ উভয়ই দাবিটি মিথ্যা বলে রিউমর স্ক্যানারকে জানিয়েছেন। এছাড়া প্রচার হওয়া ছবির যুবক ইম্পেরিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীই নন। তিনি বর্তমানে চট্টগ্রাম সিটি কলেজে অনার্স দ্বিতীয় বর্ষে অধ্যয়নরত।

সুতরাং, এইচএসসি পরীক্ষা না পেছানোর কারণে ঢাকা ইম্পেরিয়াল কলেজের একজন শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img