ড. আফিয়া সিদ্দিকী যুক্তরাষ্ট্রের কারাগার থেকে মুক্তি পাননি 

গত এক যুগেরও বেশি সময় ধরে যুক্তরাষ্ট্রের কারাগারে বন্দী রয়েছেন পাকিস্তানের স্নায়ুবিজ্ঞানী ড. আফিয়া সিদ্দিকী। সম্প্রতি তিনি মুক্তি পেয়েছেন দাবিতে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। 

ড. আফিয়া

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ড. আফিয়া সিদ্দিকী যুক্তরাষ্ট্রের কারাগার থেকে মুক্তি পাননি বরং তিনি এখনও কারাগারে বন্দি আছেন বলে নিশ্চিত করেছেন তার আইনজীবী। 

অনুসন্ধানের শুরুতে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করে ড. আফিয়া সিদ্দিকীর সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া সংক্রান্ত কোনো তথ্য গণমাধ্যম বা বিশ্বস্ত সূত্রে পাওয়া যায়নি। 

তবে, আফগানিস্তান ভিত্তিক গণমাধ্যম Tolo News এর ওয়েবসাইটে গত ০২ মে “Aafia Siddiqui’s Defense Attorney in Kabul to Gather Evidence” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন পাওয়া যায়। 

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, আফিয়া সিদ্দিকীর একজন প্রতিরক্ষা আইনজীবী অ্যাটর্নি ক্লাইভ স্টাফোর্ড স্মিথ আফগানিস্তানের কাবুলে এসেছেন তথ্য সংগ্রহের জন্য। তিনি সেখানে একটি সংবাদ সম্মেলন করেন। 

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আমি আপনার দেশের সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে শুরু করতে চাই তাদের অপরিসীম সাহায্যের জন্য যে তারা আফিয়া সিদ্দিকীর ন্যায়বিচার পাওয়ার জন্য কাজ করেছে। সম্মেলনের উদ্দেশ্য হল আপনার সাহায্য এবং যারা মিডিয়া দেখেছেন, শুনেছেন এবং পড়েছেন তাদের সাহায্য চাওয়া এবং আফিয়া সিদ্দিকী এবং তার পরিবারের জন্য ন্যায়বিচার পাওয়ার জন্য। 

এছাড়া, গত ১০ মে ড. আফিয়া সিদ্দিকীর আইনজীবী মোস্তাক আহমেদ খান নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে একটি ভিডিও বার্তা পোস্ট করেন। 

পোস্টে ক্যাপশন তিনি লিখেন, মে মাসের শেষের দিকে আফিয়া সিদ্দিকীর মামলা নিয়ে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে যাবেন। সরকার তৎপর হলে খুব দ্রুতই আফিয়া সিদ্দিকী মুক্তি পেয়ে পাকিস্তান আসতে পারবেন। 

অর্থাৎ, ড. আফিয়া সিদ্দিকী এখনো মুক্তি পাননি। 

মূলত, ২০০৮ সালে যুদ্ধ বিস্ফোরক বহনের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় পাকিস্তানের স্নায়ুবিজ্ঞানী ড. আফিয়া সিদ্দিকীকে। ২০১০ সালে যুক্তরাষ্ট্রে ৮৬ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয় তাকে। এরপর থেকে টেক্সাসের ফোর্ট ওয়ার্থের ফেডারেল মেডিকেল সেন্টার, কারসওয়েলে সাজা ভোগ করছেন তিনি। এরইমধ্যে ড. আফিয়া সিদ্দিকী মুক্তি পেয়েছেন দাবিতে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। তবে রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ড. আফিয়া সিদ্দিকীর মুক্তি পাওয়ার দাবিটি সঠিক নয় প্রকৃতপক্ষে, তিনি  যুক্তরাষ্ট্রে কারাভোগ করছেন। 

সুতরাং, পাকিস্তানের স্নায়ুবিজ্ঞানী ড. আফিয়া সিদ্দিকীর মুক্তি পাওয়ার দাবিটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img