পুরোহিতের মৃত্যুর খবরে মন্তব্যকারী আইডিটি সুমাইয়া মোসলেম মীমের নয়

সম্প্রতি “পূজা মণ্ডপে পুরোহিতের মৃত্যু” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত গণমাধ্যমের সংবাদে করা ফেসবুক কমেন্টের একটি ছবি সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানেএখানে। পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানেএখানে। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, পূজা মণ্ডপে পুরোহিতের মৃত্যু” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদে করা “আমার খুবই ভালো লাগলো। মাত্রাতিরিক্ত শিরকে মহান আল্লাহতালা যখন বান্দার দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নেন তখন এমনই হয়।” মন্তব্যটি মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হওয়া সুমাইয়া মোসলেম মীমের আসল একাউন্ট থেকে করা হয়নি বরং মন্তব্যটি তার নামে খোলা একটি ভুয়া ফেসবুক আইডি থেকে করা হয়েছে।

সর্বপ্রথম, পূজা মণ্ডপে পুরোহিতের মৃত্যু সংক্রান্ত সেই সংবাদের কমেন্টবক্সে মন্তব্য করা একাউন্টটির সত্যতা যাচাইয়ে রিউমর স্ক্যানার টিম উক্ত একাউন্টটির ও সুমাইয়া মোসলেম মীমের মূল ফেসবুক একাউন্টের ইউআরএল যাচাই করে।

অনুসন্ধানের মাধ্যমে উক্ত মন্তব্য করা আইডিটির লিংক খুঁজে পায় রিউমর স্ক্যানার টিম।

https://www.facebook.com/SumaiyaMuslemMim.medical.1

তবে, সুমাইয়া মোসলেম মীমের আসল ফেসবুক আইডির লিংক –

https://www.facebook.com/anila.arin.9

অপরদিকে “আমার খুবই ভালো লাগলো। মাত্রাতিরিক্ত শিরকে মহান আল্লাহতালা যখন বান্দার দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নেন তখন এমনই হয়।” শীর্ষক মন্তব্যের ছবিটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ার পর সুমাইয়া মোসলেম মীম তার নিজের ফেসবুক একাউন্ট থেকে একটি স্ট্যাটাস (আর্কাইভ) দিয়েছেন।

সেখানে তিনি লিখেন, “যার যার ধর্ম, তার একান্তই নিজের। এখানে ব্যক্তিগত হস্তক্ষেপ কখনোই শোভনীয় নয়। আমি আন্তরিক ভাবে দুঃখিত, আমার নামে খোলা ফেইক আইডি থেকে এমন একটা Sensitive issue তে এহেন মন্তব্য করা হয়েছে। আমার এটাই একমাত্র আইডি। 

https://www.facebook.com/anila.arin.9

আর কোনো পেজ বা আইডি নাই। আশা করি আপনারা বিভ্রান্ত হবেন না। আর এর উপর ভিত্তি করে কোন প্রতিষ্ঠানকে দোষারোপ করাও কাম্য নয়। ধন্যবাদ”

এছাড়া, আইডি দুইটির ইংরেজি নামের বানানেও রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে তারতম্য দেখা গিয়েছে। সুমাইয়া মোসলেম মীমের মূল একাউন্টের ইংরেজি বানান Sumaiya Moslem Meem , বিপরীতে উক্ত মন্তব্যকারী আইডিটির ইংরেজি বানান Sumaiya Muslem Mim। অর্থাৎ, দুইটির আইডির নামের মধ্যে (Muslem এবং Mim) দুইটি শব্দে ভুল রয়েছে।

এছাড়া উক্ত একাউন্টটিতে লেখা বায়োতেও বেশ কিছু অসংগতির দেখা মিলে। যেমন, সেখানে লেখা ছিল “Alhamdulillah 1st position Medical Exam & getting chance to read Dhaka Medical College।” এমন ইংরেজি বাক্য গঠন মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হওয়া কারো থেকে পাওয়া অসামঞ্জস্যপূর্ণ।

এছাড়া, বিভিন্ন কি-ওয়ার্ডের সাহায্যে অনুসন্ধানের মাধ্যমে হাসান মাহবুব নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে প্রকাশিত আরেকটি পোস্ট খুঁজে পাওয়া যায়, যেখানে তিনি ভুয়া আইডিটি এক্টিভ থাকাকালীন সেই আইডি থেকে প্রকাশিত বিভিন্ন পোস্টের সময় এডিটের বিষয়টি স্ক্রিনশট সহ উল্লেখ করেছেন।

অর্থাৎ, মন্তব্যকারী সেই আইডিতে ২০১৭ সালের বিভিন্ন ভিন্ন বিষয়ের পোস্টে ৬ এপ্রিল ২০২২ এ এডিট করে অন্য কোনো কন্টেন্ট যুক্ত করা হয়েছিলো।

অপরদিকে, রিউমর স্ক্যানার টিম আইডিটি একটিভ থাকা অবস্থায় উক্ত আইডির বিভিন্ন মন্তব্য সহ বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন বিষয়ে করা পোস্টের একটি ভিডিও স্ক্রিনরেকর্ড ধারণ করে রাখে। উক্ত স্ক্রিনরেকর্ডের সাথেও জনাব হাসান মাহবুবের উল্লেখিত তথ্যগুলোর সত্যতা মিল পাওয়া যায়।

উল্লেখ্য, পুরোহিতের মৃত্যুর সংবাদে করা মন্তব্যের ছবিটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ার পরেই উক্ত আইডিটি ডি-এক্টিভেট করে দেয়া হয়। তবে ফেসবুকের রিকভারি সেকশন থেকে আইডিটির অস্তিত্ব এখনো দেখা যাচ্ছে। তাছাড়া মন্তব্যকারী আইডিটি প্রোফাইল পিকচার পরিবর্তন করে মেসেঞ্জারে একটিভ রয়েছে বলে রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে নিশ্চিত হওয়া যায়।

অনুসন্ধানে আরও দেখা যায়, গত ৭ এপ্রিল মেডিকেলের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশের পর সুমাইয়া মোসলেম মীম তার একাউন্টে “Gazi Mizanur Rahman স্যার আপনার মূল্যবান মন্তব্যের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

দোয়া করবেন স্যার,, যেন এই কথা গুলোকে মাথায় রেখেই সামনে এগিয়ে যেতে পারি” শীর্ষক শিরোনামে একটি পোস্ট (আর্কাইভ) শেয়ার করেছেন।

এই পোস্টটিতে (আর্কাইভ) গাজী মিজানুর রহমান সুমাইয়া মোসলেম মীমের সফলতা উল্লেখ করে লিখেন, “সুমাইয়া মোসলেম মিম এখন Facebook Trending তথা “Popular now”-এ পরিণত হয়েছেন। কারণ, এই মুহূর্তে অসংখ্য মানুষ তাঁর নাম লিখে ফেইসবুকে সার্চ করছে। বিষয়টি বেশ ভালোও লাগছে। আমি চাই, এইদেশের মানুষ ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, কৃষিবিদ, বিজ্ঞানী, শিক্ষকসহ সকল পেশার মানুষকে সম্মান করুক। তাদের নিয়ে আগ্রহ থাকুক।” পাশাপাশি পোস্টটির সঙ্গে একটি ছবিও যুক্ত করেন তিনি।

পোস্টটিতে ফেসবুক ট্রেন্ডিংয়ে Sumaiya Muslem mim লেখাটি দেখালেও পোস্টটির কমেন্টবক্সে সুমাইয়া মোসলেম মীম তার নিজ একাউন্ট Sumaiya Moslem Meem থেকে মন্তব্য করেন।

এছাড়া তিনি তার শেয়ারকৃত পোস্টের মন্তব্যে ভুয়া একাউন্টের কথা উল্লেখ করে লিখেন, “এত আইডি তে রিপোর্ট করা তো কঠিন। তবে এটাই আমার একমাত্র আইডি।” অর্থাৎ Sumaiya Moslem Meem নামের একাউন্টটিই তার নিজস্ব আইডি।

পাশাপাশি গাজী মিজানুর রহমানের এই পোস্টে Sumaiya Moslem Meem নামের আইডি থেকে করা কমেন্ট খুঁজে পাওয়া গেলেও সেখানে ভুয়া আইডির অর্থাৎ Sumaiya Muslem Mim নামের আইডির কোনো কমেন্ট ছিলো না।

এখানে আরো একটি বিষয় লক্ষণীয় যে, রিউমর স্ক্যানার টিমের ধারণকৃত স্ক্রিনরেকর্ডে Sumaiya Muslem Mim অর্থাৎ মন্তব্যকারী আইডি থেকে গাজী মিজানুর রহমানের উক্ত পোস্টটি ৬ এপ্রিল তারিখে অর্থাৎ আসল আইডির ১ দিন পূর্বেই শেয়ার করা হয়েছিলো এবং দুইটি আইডির শেয়ারের ক্যাপশনও একই ছিলো।

এখানে কিভাবে আসল আইডির পূর্বেই ভুয়া আইডিতে একই ক্যাপশনে শেয়ার করা হয়েছিলো তা যাচাই করতে গিয়ে দেখা যায়, সুমাইয়া মীম গাজী মিজানুর রহমানের ফেসবুক পোস্টে এই মন্তব্যটি ৬ এপ্রিল তারিখেই করেছিলো, পরবর্তীতে ৭ এপ্রিল তারিখে তিনি পোস্টটি নিজ আইডির টাইমলাইনে শেয়ার করেন। অর্থাৎ, ভুয়া আইডিটি সুমাইয়া মোসলেম মীমের কমেন্ট কপি করে সেদিন ই অর্থাৎ ৬ তারিখেই ভুয়া আইডির টাইমলাইনে শেয়ার করে।

পরবর্তীতে তথ্যের আরও অধিকতর সত্যতা যাচাইয়ে রিউমর স্ক্যানার থেকে সুমাইয়া মোসলেম মীমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। তিনি রিউমর স্ক্যানারকে জানান,

“ঐটা আমার আইডি না। আমি ইতোমধ্যেই এটা নিয়ে আইডির লিংক সহ জিডি করেছি।”

সুমাইয়া মোসলেম মীমের জিডির কপিটি রিউমর স্ক্যানারের হাতে এসেছে। 

জিডিতে সুমাইয়া মোসলেম মীমের বাবা বলেন, “অজ্ঞাত নামা ব্যক্তি/ব্যক্তিরা ইউজার নেইম Sumaiya Muslem Mim (Mim), আইডি লিংক https://m.facebook.com SumaiyaMuslemMim.medical.1 এবং ফেসবুক পেইজ লিংক https://www.facebook.com/sumaiya.muslem.mim.1 আমার কন্যা সুমাইয়া মোসলেম মীম এর নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে আপত্তিকর পোস্ট করে মানহানী করা সহ অপপ্রচার করছে।”

জিডি সম্পর্কে জানতে খুলনা ডুমুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ কনি মিয়ার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি রিউমর স্ক্যানারকে বলেন,

“বিষয়টি নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন আছে।”

এছাড়া অনুসন্ধানের মাধ্যমে রিউমর স্ক্যানার টিম নামের মাঝে আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ অসংগতি লক্ষ করে, যেখানে জিডির কপিতে সুমাইয়া মোসলেম মীম এর বাবার নাম মোসলেম উদ্দীন সর্দার উল্লেখ রয়েছে। শুধু জিডির কপিতেই নয়, এপ্রিল মাসে সুমাইয়াকে নিয়ে প্রকাশিত প্রায় সকল সংবাদেই তার নাম সুমাইয়া মোসলেম মীম লেখা হয়েছিলো।

সুমাইয়া মীমের আসল আইডির নামের উচ্চারণেও মোসলেম রয়েছে, মুসলেম নয়। তবে ভুয়া আইডির নামের শব্দ অনুযায়ী যা মুসলেম বোঝায়।

Real ID – Sumaiya Moslem Meem (সুমাইয়া মোসলেম মীম)

Fake ID – Sumaiya Muslem Mim (সুমাইয়া মুসলেম মিম)।

মূলত, গত ৩ অক্টোবর ঝালকাঠির রাজাপুরে মণ্ডপে মহা অষ্টমী পূজা করার সময় অসুস্থ হয়ে হঠাৎ পুরোহিতের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে বেসরকারি টিভি চ্যানেল সময় টিভি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে এবং তাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করে৷ সেখানে Sumaiya Muslem Mim নামের একটি একাউন্ট থেকে “আমার খুবই ভালো লাগলো। মাত্রাতিরিক্ত শিরকে মহান আল্লাহতালা যখন বান্দার দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নেন তখন এমনই হয়।” শীর্ষক একটি মন্তব্যটি করা হয়। পরবর্তীতে প্রতিবেদন সহ মন্তব্যটির একটি স্ক্রিনশট ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে দাবি করা হয় যে, মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হওয়া সুমাইয়া মোসলেম মীম এই মন্তব্যটি করেছেন। কিন্তু রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে দেখা যায়, এটি মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হওয়া সুমাইয়া মোসলেম মীমের একাউন্ট নয়। বরং তার নামে খোলা একটি ভুয়া একাউন্ট থেকে পুরোহিতের মৃত্যুর সংবাদে কমেন্ট করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, দেশের সরকারি-বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হয়েছেন খুলনার সুমাইয়া মোসলেম মীম। তিনি বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজে অধ্যয়নরত রয়েছেন।

সুতরাং, পূজা মণ্ডপে পুরোহিতের মৃত্যু” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদে করা মন্তব্যটি মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হওয়া সুমাইয়া মোসলেম মীমের নয়; মন্তব্যটি তার নামে খোলা একটি ভুয়া আইডি থেকে করা হয়েছে।

তথ্যসূত্র

  1. Sumaiya Moslem Meem Facebook Post: Sumaiya Moslem Meem Facebook Post (আর্কাইভ)
  2. Sumaiya Moslem Meem Shared Facebook Post: Sumaiya Moslem Meem Shared Facebook Post (আর্কাইভ)
  3. Hasan Mahbub Facebook Post: Hasan Mahbub Facebook post analysis
  4. Somoy Tv News: পূজা মণ্ডপে পুরোহিতের মৃত্যু
  5. Bangla Tribune: মেডিক্যাল ভর্তি পরীক্ষায় দেশসেরা মীম
  6. রিউমর স্ক্যানার টিমের নিজস্ব অনুসন্ধান
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img