জাপানের সাম্প্রতিক ভূমিকম্পের সংবাদে গণমাধ্যমে পুরোনো ছবি প্রচার

জাপানে গত ০৫ মে’র ভূমিকম্পের ঘটনায় বাংলাদেশের কতিপয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদে দুইটি ছবি ব্যবহার করা হয়েছে।

উক্ত ছবিগুলো যুক্ত করে গণমাধ্যমে প্রকাশিত এমন কিছু প্রতিবেদন দেখুন ইনকিলাব, বৈশাখী টিভি, ডেইলি বাংলাদেশ

একই দাবিতে ফেসবুক পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, জাপানে সাম্প্রতিক ভূমিকম্পের ঘটনায় গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের সাথে প্রচারিত ছবিগুলো সাম্প্রতিক সময়ের নয় বরং জাপানে পূর্বে সংঘটিত ভূমিকম্পের পুরোনো ছবিকে সাম্প্রতিক ভূমিকম্পের ছবি দাবিতে প্রচার করা হয়েছে।

ছবি যাচাই ১ 

Screenshot collage: Rumor Scanner

জাপানের সাম্প্রতিক ভূমিকম্পের ঘটনার বিষয়ে জানিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই ছবিটি ব্যবহার করেছে ইনকিলাব, বৈশাখী টিভি। কিন্তু ছবিটি উক্ত ঘটনার নয়। 

রিভার্স ইমেজ সার্চ করে ছবিটি শুরুতে ফ্রান্সের সংবাদমাধ্যম euro news এর ওয়েবসাইটে খুঁজে পাওয়া যায়, যেখানে উল্লেখ করা হয় AP এর তোলা ছবিটি ২০২২ সালের ১৬ মার্চ জাপানের ফুকুশিমায় ভূমিকম্পের ঘটনার পরের দিনের দৃশ্য। 

পরবর্তীতে মার্কিন সংবাদ সংস্থা AP এর ওয়েবসাইটে ২০২২ সালের ১৭ মার্চ প্রকাশিত মূল ছবিটি খুঁজে পায় রিউমর স্ক্যানার টিম। 

Screenshot source: AP

অর্থাৎ, গণমাধ্যমে প্রচারিত এই ছবিটি জাপানের সাম্প্রতিক ভূমিকম্পের ঘটনার নয়।

ছবি যাচাই ২

Screenshot source: Daily Bangladesh 

জাপানের সাম্প্রতিক ভূমিকম্পের ঘটনার বিষয়ে জানিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই ছবিটি ব্যবহার করেছে ডেইলি বাংলাদেশ। কিন্তু ছবিটি উক্ত ঘটনার নয়। 

রিভার্স ইমেজ সার্চ করে ছবিটি শুরুতে মার্কিন সংবাদমাধ্যম NBC news এর ওয়েবসাইটে খুঁজে পাওয়া যায়, যেখানে উল্লেখ করা হয় AP কর্তৃক ২০১৬ সালের ১৫ এপ্রিল তোলা ছবিটি জাপানের মাশিকিতে ভূমিকম্পের ঘটনার পরের দিনের।

পরবর্তীতে মার্কিন সংবাদ সংস্থা AP এর ওয়েবসাইটে ২০১৬ সালের ১৫ এপ্রিল প্রকাশিত মূল ছবিটি খুঁজে পায় রিউমর স্ক্যানার টিম।  

Screenshot source: AP

অর্থাৎ, গণমাধ্যমে প্রচারিত এই ছবিটিও জাপানের সাম্প্রতিক ভূমিকম্পের ঘটনার নয়।

গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে আলোচিত ছবিগুলোর ক্যাপশনে ফাইল ফটো বা পুরোনো ঘটনার ছবি শীর্ষক কোনো তথ্য দেওয়া হয়নি। বরং কিছু গণমাধ্যম ছবিগুলো সংগৃহিত উল্লেখ করা হয়েছে। কোনো কোনো গণমাধ্যম ছবির ক্যাপশনে কিছুই লিখে নি। সাম্প্রতিক ঘটনার বিষয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে ছবিগুলো ব্যবহার করে সংগৃহিত উল্লেখ কিংবা কোনো তথ্যই উল্লেখ না থাকায় স্বাভাবিকভাবে ছবিগুলো জাপানের সাম্প্রতিক ভূমিকম্পের ঘটনার বলে প্রতীয়মান হয়। এতে করে নেটিজেনদের মধ্যে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হওয়া অমূলক নয়।  

মূলত, গত ০৫ মে জাপানে ভূমিকম্পের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় কতিপয় দেশীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জাপানের পূর্বের ভূমিকম্পের ঘটনার ছবি ব্যবহার করে সাম্প্রতিক ঘটনার ছবি দাবিতে প্রচার করা হয়েছে। প্রতিবেদনগুলোতে আলোচিত ছবিগুলোর ক্যাপশনে ফাইল ফটো বা পুরোনো ঘটনার ছবি শীর্ষক কোনো তথ্যও দেওয়া হয়নি। এতে করে স্বাভাবিকভাবে ছবিগুলো জাপানের সাম্প্রতিক ভূমিকম্পের ঘটনার বলে প্রতীয়মান হয়, যা বিভ্রান্তির জন্ম দিয়েছে। 

উল্লেখ্য, পূর্বেও গণমাধ্যমে ভিন্ন ঘটনার ছবি ব্যবহার করে সংবাদ প্রকাশ নিয়ে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার। 

সুতরাং, সম্প্রতি জাপানে ভূমিকম্পের ঘটনায় কতিপয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদে একাধিক পুরোনো ঘটনার ছবিকে সাম্প্রতিক দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে; যা বিভ্রান্তিকর। 

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img