বুধবার, জুলাই 24, 2024
spot_img

আল আকসা মসজিদের আসল দলিল ও চাবির ছবি দাবিতে ভুয়া তথ্য প্রচার

সম্প্রতি, মুসলিমদের তৃতীয় পবিত্রতম স্থান মসজিদুল আকসা বা আল-আকসা মসজিদের আসল দলিল ও চাবির ছবি দাবিতে এক বৃদ্ধের হাতে ধরে রাখা একটি দলিল এবং চাবির ছবি ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটকে প্রচার করা হয়েছে।

আল আকসা

টিকটকে প্রচারিত এমন পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, প্রচারিত ছবিটি আল-আকসা মসজিদের দলিল ও চাবির দৃশ্যের  নয়। প্রকৃতপক্ষে, ছবিটি ফিলিস্তিনি এক ব্যক্তির যিনি ইসরায়েলে নিজের বসতবাড়ি ফেলে চলে এসেছেন। ছবিটিতে তাকে সেই বাড়ির দলিল ও চাবি হাতে দেখা যাচ্ছে। মাহমুদ আবু হামদা নামের এক ফটোগ্রাফার ২০১১ সালে উত্তর গাজার বেইত হানুন ক্রসিংয় এলাকায় উক্ত ছবিটি তোলেন। 

আলোচিত দাবিটির বিষয়ে অনুসন্ধানে রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে Ad&Company নামের একটি ফেসবুক পেজে একই ছবিটি  প্রচার হতে দেখা যায়।

Screenshot: Facebook

উক্ত পোস্টের শিরোনাম থেকে জানা যায়, ছবিটি একজন ফিলিস্তিনি ব্যক্তির যার বসতবাড়ি দখলেনিয়ে নেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ছবিটির বাম পাশে উপরে থাকা ছবিটির ফটোগ্রাফারের একটি ওয়াটার মার্ক দেখতে পাওয়া যায়। যা পর্যালোচনার মাধ্যমে Mahmoud Abu Hamda শীর্ষক লেখাটি পাওয়া যায়।

পরবর্তীতে ছবিটির ফটোগ্রাফারের ওয়াটার মার্ক থেকে প্রাপ্ত Mahmoud Abu Hamda লেখাটির সূত্র ধরে কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে Mahmoud Abu Hamda photographer নামের একটি পেজের সন্ধান পাওয়া যায়। পেজটি থেকে জানা যায়, Mahmoud Abu Hamda নামের উক্ত ব্যক্তি একজন ফিলিস্তিনি ফটোগ্রাফার। এছাড়াও পেজটি থেকে তার ইন্সটাগ্রাম আইডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

 Comparison: Rumor Scanner

উক্ত ছবিটির সম্পর্কে জানতে Mahmoud Abu Hamda  সাথে যোগাযোগ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। তিনি জানান, ছবিটি তারই তোলা। ২০১১ সালে উত্তর গাজার বেইত হানুন ক্রসিং এলাকায় তিনি এই ছবিটি তোলেন। মূলত আল-নাকবা দিবস উপলক্ষ্যে ছবির ব্যক্তি ইসরায়েলে ফেলে আসা তার বসতবাড়ির দলিল ও চাবি প্রদর্শন করছিলেন। তবে ১০ বছরেরও অধিক সময় অতিবাহিত হওয়ায় উক্ত ব্যক্তির নাম ভুলে গিয়েছেন বলেও জানান তিনি।  

পরবর্তীতে আল আকসা মসজিদের দলিলের বিষয়ে অনুসন্ধানে প্রাসঙ্গিক বিভিন্ন কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমেও কোনো নির্ভরযোগ্য সূত্রে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

তবে বর্তমানে কারা আল আকসা মসজিদ রক্ষণাবেক্ষণ এবং নিয়ন্ত্রণ করছেন তা জানতে কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে যুক্তরাজ্যের লন্ডনভিত্তিক গণমাধ্যম Middle East Monitor এবং ইসরায়েলি গণমাধ্যম The Times of Israel এর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত দুটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

 Comparison: Rumor Scanner

প্রতিবেদনগুলো থেকে জানা যায়, Islamic Waqf of Jerusalem বা Jerusalem Waqf নামের একটি প্রতিষ্ঠান আল-আকসা মসজিদের তত্ত্বাবধায়ন করে থাকেন। বর্তমানে আজ্জাম আল-খাতিব প্রতিষ্ঠানটির মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

পরবর্তীতে Jerusalem Waqf সম্পর্কে অনুসন্ধানে কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে ইহুদিদের অনলাইনভিত্তিক বিশ্বকোষ Jewish Virtual Library এর ওয়েবসাইটে Jerusalem Islamic Waqf শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: Jewish Virtual Library

প্রতিবেদনটি থেকে জানা যায়, Jerusalem Islamic Waqf একটি ইসলামিক ধর্মীয় ট্রাস্ট প্রতিষ্ঠান। এটি মূলত হারাম আল-শরিফ, ডোম অব দ্য রক বা কোব্বাতুস সাখরা এবং আল আকসা মসজিদের সকল বিষয় তত্ত্বাবধায়ন করে থাকেন। 

মূলত, ১৯১৭ সালে ফিলিস্তিনের ভূমিতে আনুষ্ঠানিকভাবে ইসরায়েল রাষ্ট্র স্থাপনের ঘোষণার পর সাত লাখের বেশি ফিলিস্তিনিকে নিজ ভূমি থেকে বিতাড়িত ও রাষ্ট্রহীন হওয়ার বিপর্যয় শুরু হয়। আরবিতে বিপর্যয়কে বলা হয় ‘নাকবা’। ফিলিস্তিনিরা প্রতিবছর ১৫ মে তারিখটিকে ‘আল-নাকবা’ দিবস হিসেবে পালন করে থাকেন। ২০১১ সালে উত্তর গাজায় আল-নাকবা পালনকালে মাহমুদ আবু হামদা নামের একজন ফিলিস্তিনি ফটোগ্রাফার নিজ বসতবাড়ি থেকে বিতাড়িত এক ব্যক্তির বাড়ির দলিল ও চাবি হাতে একটি ছবি তোলেন। সম্প্রতি উক্ত ছবিটি আল-আকসা মসজিদের আসল দলিল ও চাবির ছবি দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে, ইন্টারনেটে আল আকসা মসজিদের দলিল ও চাবির কোনো ছবির অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি।


সুতরাং, আল-আকসা মসজিদের আসল দলিল ও চাবির ছবি দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img