‘২য় বিয়ে না করলে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ে’ শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত সংবাদ প্রতিবেদনের ছবিটি এডিটেড

সম্প্রতি, ‘২য় বিয়ে না করলে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ে’ শীর্ষক শিরোনামে সংবাদপত্রে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হয়ে আসছে।

সম্প্রতি উক্ত পেপার কাটিং ব্যবহার করে ফেসবুকে প্রচারিত কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

একই দাবিতে ২০২৩ সালে ফেসবুকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

২০২২ সালে ফেসবুকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ‘২য় বিয়ে না করলে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ে’ শীর্ষক শিরোনামে সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদনের ছবিটি সত্য নয় বরং, ‘বিয়ে না করলে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ে’ শীর্ষক শিরোনামে একটি সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদনের ছবি ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনার মাধ্যমে প্রতিবেদনটির শিরোনামের শুরুতে ‘২য়’ লেখাটি যুক্ত করে আলোচিত দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে আলোচিত প্রতিবেদনটি পর্যালোচনা করে দেখে রিউমর স্ক্যানার টিম। এতে দেখা যায়, ‘ইনভেস্টিগেটিভ জার্নাল’ নামের একটি গবেষণা জার্নালে চীনা গবেষকদের প্রকাশিত একটি গবেষণার বরাতে উক্ত প্রতিবেদনটি তৈরি করা হয়েছে। মূলত, ৩ হাজার গ্যাস্ট্রিক ক্যানসারে আক্রান্ত রোগীদের উপর উক্ত গবেষণাটি চালান একদল চীনা গবেষক। 

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, ‘যারা অবিবাহিত বা যাদের জীবনসঙ্গী নেই, তাদের ক্ষেত্রে পাকস্থলীর ক্যানসারে মৃত্যু হওয়ার ঝুঁকি অনেক বেশি। বিয়ে ক্যানসার রোগীদের দীর্ঘায়ু পেতে সাহায্য করতে পারে। গবেষণায় অংশগ্রহণকারী রোগীদের প্রত্যেকেই ছিলেন ক্যানসারের প্রাথমিক পর্যায়ে আক্রান্ত। চীনা বিজ্ঞানীরা দেখেছেন, ৭২ শতাংশ বিবাহিত পুরুষ ও মহিলার গ্যাস্ট্রিক ক্যানসার ধরা পড়ার পর অবিবাহিতদের তুলনায় পাঁচ বছর বেশি বেঁচে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।’

প্রতিবেদনটিতে আরও বলা হয়, ‘জীবনসঙ্গী পাশে থাকলে তিনি আপনার খেয়াল রাখতে পারেন। অসুখ হলে ওষুধ খাওয়ানো এবং অন্যান্য সেবা তার মাধ্যমে পাওয়া সম্ভব। ফলে রোগীর জন্য স্বাস্থ্যকর আচরণ মেনে চলা সহজ হয়। দীর্ঘায়ু হওয়ার জন্য এসব অভ্যাস জরুরি। আর শরীরে কোনো রকম সমস্যা হলে যারা অবিবাহিত বা একা থাকেন তারা ততটাও গুরুত্ব দেন না। আর তাতেই রোগে কাবু হওয়ার ঝুঁকি বাড়ে। যারা বিবাহিত তাদের ক্ষেত্রে রোগ আগেই ধরা পড়েছে। তাই চিকিৎসা পদ্ধতিও দ্রুত চালু করা সম্ভব হয়েছে। তাই বিবাহিতদের সুস্থতার হারও বেশি। বিবাহিতরা আর্থিক ও মানসিক দুই ক্ষেত্রেই রোগের সঙ্গে লড়াই করার বেশি সামর্থ্য রাখেন। যাদের স্বামী কিংবা স্ত্রী মারা গিয়েছেন, তাদের ক্ষেত্রে পাকস্থলীর ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুঝুঁকির হার অনেকটাই বেশি।’ তবে প্রতিবেদনটির কোথাও দ্বিতীয় বিয়ের বিষয়ে কোনো কিছু বলা হয়নি।

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে Md Alamin নামের এক ব্যক্তির ফেসবুক আইডিতে ২০২২ সালের ১৯ আগস্ট নিউজ টি ছিল বিয়ে না করলে ক‍্যানসারের ঝুঁকি বাড়ে সেখানে ইডিট করে দ্বিতীয় বিয়ে লেখার দরকার কি ছিল শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত একটি ছবি খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: Facebook 

ছবিটি পর্যলোচনা করে দেখা যায়, আলোচিত দাবিতে প্রচারিত প্রতিবেদনের ছবিটির সাথে উক্ত প্রতিবেদনের ছবির  মিল রয়েছে। তবে উক্ত ছবির প্রতিবেদনের শিরোনমের স্থানে ‘২য় বিয়ে না করলে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ে’ শীর্ষক লেখাটির পরিবর্তে ‘বিয়ে না করলে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ে’ শীর্ষক লেখাটি দেখতে পাওয়া যায়।

Image Comparison by Rumor Scanner 

অর্থাৎ, ‘বিয়ে না করলে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ে’ শীর্ষক শিরোনামের উক্ত প্রতিবেদনের ছবিটি সম্পাদনার মাধ্যমে আলোচিত ছবিটি তৈরি করা হয়েছে।

তবে উক্ত প্রতিবেদনটি কোন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছিল সেটি জানা না গেলেও কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে দৈনিক ইত্তেফাক-এর ওয়েবসাইটে ২০২২ সালের ২২ জুলাই বিয়ে করলে কী ক্যানসারের ঝুঁকি কমে শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

এর সাথে আলোচিত প্রতিবেদনটির শিরোনাম ব্যতিত বাকি অংশের মিল পাওয়া যায়। 

পরবর্তীতে উক্ত গবেষণায় গ্যাস্ট্রিক ক্যানসারের সঙ্গে বৈবাহিক অবস্থার সম্পর্ক নিয়ে কি আলোচনা করা হয়েছে তা জানতে ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নাল (বিএমজে)- এর ওয়েবসাইটে গবেষণাটি নিয়ে প্রকাশিত আলোচনা খুঁজে পাওয়া যায়। 

বিএমজে সূত্রে জানা যায়, আলোচিত গবেষণাটি চীনের হেফেই শহরে অবস্থিত আনহুই মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত হাসপাতালের একদল গবেষক করেন। যেটি পিয়ার-রিভিউড মেডিকেল জার্নাল ‘দ্য জার্নাল অব ইনভেস্টিগেটিভ মেডিসিনে (জিআইএম)’ প্রকাশিত হয়।

গবেষণাটিতে বলা হয়, প্রাথমিক পর্যায়ে গ্যাস্ট্রিক ক্যানসারে আক্রান্ত ব্যক্তিদের দীর্ঘদিন বেঁচে থাকার ক্ষেত্রে অন্যান্য বিষয়ের সঙ্গে বৈবাহিক অবস্থারও প্রভাব আছে। এই ক্ষেত্রে বিবাহিতদের মধ্যে বেশিদিন বেঁচে থাকার ভালো সম্ভাবনা মিলেছে গবেষণায়।

তাই কোনো ব্যক্তির গ্যাস্ট্রিক ক্যানসার শনাক্ত হলে তার চিকিৎসা ও অন্যান্য বিষয়ের সঙ্গে বৈবাহিক বিষয় বিবেচনায় নিয়ে ওই ব্যক্তির বাঁচার মেয়াদ হিসাব করার পরামর্শ দিয়েছেন গবেষকরা৷ তবে ওই গবেষণার আগে গ্যাস্ট্রিক ক্যানসারের ক্ষেত্রে বৈবাহিক অবস্থাকে বিবেচনায় নেওয়া হতো না৷

এই গবেষণায় গবেষকরা খোঁজার চেষ্টা করেছেন, গ্যাস্ট্রিক ক্যানসারে আক্রান্ত ব্যক্তিদের দীর্ঘদিন বাঁচার ক্ষেত্রে তার বৈবাহিক অবস্থা কোনো প্রভাব ফেলে কিনা৷ ফলে তারা দেখতে পান, এটি একজন গ্যাস্ট্রিক ক্যানসারে আক্রান্তদের দীর্ঘায়ু লাভের সম্ভাবনাকে প্রভাবিত করে৷ কারণ, অবিবাহিতদের চেয়ে বিবাহিত ব্যক্তিরা তাদের সঙ্গীদের কাছ থেকে মানসিক সহযোগিতা ও প্রবল উৎসাহ পেয়ে থাকেন৷ পাশাপাশি তাদের আর্থিক সচ্ছলতাও বেশি থাকে৷

গবেষণায় দেখা যায়, গ্যাস্ট্রিক ক্যানসারের প্রাথমিক পর্যায়ে বিবাহিতদের বেঁচে থাকার সম্ভাবনা ৭২ শতাংশ এবং অবিবাহিতদের ক্ষেত্রে ৬০ শতাংশ।

এছাড়াও দেখা যায়, গবেষণাটিতে বিয়ে না করলে ক্যানসারের ঝুঁকি তৈরি হওয়ার ব্যাপারে কোনো তথ্য ছিল না। পাশাপাশি গবেষণাটিতে বিয়েকে প্রাথমিক পর্যায়ে ক্যানসারে আক্রান্ত রোগীদের দীর্ঘায়ু লাভের কারণ হিসাবেও দেখানো হয়নি।

অর্থাৎ, দ্বিতীয় বিয়ে ক্যানসারের ঝুঁকি কমায় দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচারিত তথ্যটি সঠিক নয়।

মূলত, প্রাথমিক পর্যায়ের গ্যাস্ট্রিক ক্যানসারে আক্রান্ত ব্যক্তিদের দীর্ঘদিন বেঁচে থাকার সাথে অন্যান্য বিষয়ের সঙ্গে বৈবাহিক অবস্থারও প্রভাব রয়েছে কিনা সেটি জানতে চীনের আনহুই মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত হাসপাতালের একদল গবেষক একটি গবেষণা করেন। উক্ত গবেষণার বরাত দিয়ে ২০২২ সালে একাধিক দেশীয় গণমাধ্যম প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এরই প্রেক্ষিতে সম্প্রতি, একটি গণমাধ্যমের প্রিন্ট সংস্করণে ‘২য় বিয়ে না করলে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ে’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনের ছবি ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে। তবে রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ‘২য় বিয়ে না করলে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ে’ শীর্ষক শিরোনামে কোনো সংবাদ প্রকাশ করা হয়নি। প্রকৃতপক্ষে, ‘বিয়ে না করলে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ে’ শীর্ষক শিরোনামে একটি সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদনের ছবি ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তা সম্পাদনার মাধ্যমে প্রতিবেদনটির শিরোনামের শুরুতে ‘২য়’ লেখাটি যুক্ত করে আলোচিত দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে।

সুতরাং,‘২য় বিয়ে না করলে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ে’ শীর্ষক শিরোনামে সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদনের ছবি দাবিতে প্রচারিত ছবিটি এডিটেড বা সম্পাদিত।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img