আপন ভাই-বোনের বিয়ের দৃশ্য দাবিতে বানোয়াট ভিডিও প্রচার

সম্প্রতি, “রংপুরে আপন ভাই বোনের বিয়ে” শীর্ষক শিরোনামে শিরোনামে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক এবং ইউটিউবে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ইউটিউব ভিডিও দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। ভিডিওগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, রংপুরে আপন ভাই বোনের বিয়ের দৃশ্য দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি বাস্তব নয় বরং সামাজিক মাধ্যমে প্রচার পাওয়ার উদ্দেশ্যেই উক্ত ভুয়া ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে।

অনুসন্ধানে দেখা যায়,  Duniar Pagol/দুনিয়ার পাগল নামের ফেসবুক একাউন্ট থেকে গত ১৫ আগস্ট বিয়ে এখনো হয়নি কেউ বিভ্রান্ত হবেন না।আপনারা পুরো ভিডিওটি না দেখে কেনো কমেন্টে করেন জানি না আমরা ভিডিওটির মদ্ধে বলে দিয়েছি বিয়ে হয়নি আর আমরা সেই মেয়ের জন্য একটি ভালো ছেলে খুজে পেয়েছি সে টাকা ছাড়া সেই মেয়েটিকে বিয়ে করবে কালকে সেই মেয়ের অন্য ছেলের সাথে বিয়ে হবে। আপনাদের সবাইকে জানাবো শিরোনামে একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়।

ভিডিওতে দেখা যায়, বর-কণের সাজে সজ্জিত দুইজন ব্যক্তিকে উপস্থাপক ভাই বোন হিসেবে দাবি করেন এবং দাবির স্বপক্ষে, উপস্থাপক বর-কনের ভাই হিসেবে দাবিকৃত এক ব্যক্তির সাথে কথা বলেন। বর এবং দাবিকৃত ভাই উভয়েই জানায় যে বর এবং কনে সম্পর্কে আপন ভাই বোন। রংপুরে মেয়ের বিয়ে দিতে দেড় লাখ টাকার প্রয়োজন হয়। বরের দাবিকৃত ভাই বলেন, আর্থিক অসংগতির জন্যই তারা আপন ভাই বোনকে বিয়ে দিয়েছেন এবং বিবাহ রেজিস্ট্রেশন করার মাধ্যমে তাদের বিবাহ সম্পন্ন হয়েছে। ভিডিওতে উপস্থাপক জানায় যে, শুধুমাত্র বিয়ের রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হলেও ইসলামি বিধান মোতাবে তাদের বিয়ে হয় নি। তবে ভিডিওর কোথাও ইমাম বা কাজী কারো বক্তব্য পাওয়া যায় নি। ভিডিও থেকে আরো জানা যায় যে, ঘটনাটি রংপুরের। তবে রংপুরের ঠিক কোন জায়গার ঘটনা তা বলা হয়নি।

পরবর্তীতে, উক্ত পোস্টটির সম্পাদনা হিস্ট্রিতে গিয়ে দেখা যায়, একাধিকবার পোস্টটির ক্যাপশন পরিবর্তন করা হয়েছে। প্রথমে তাদের বিয়ে হয়েছে বলে দাবি করলেও পরবর্তীতে ক্যাপশন পরিবর্তন করে বিয়ে হয়নি বলে দাবি করা হয়।

অন্যদিকে, Duniar Pagol/দুনিয়ার পাগল নামের একই আইডি থেকে ১৭ আগস্ট এই মাত্র বেরিয়ে এলো আপন ভাই ও বোনের আসল রহস্য শিরোনামে একই ব্যক্তির আরেকটি ভিডিও পাওয়া যায়। ভিডিও থেকে জানা যায়, ভাই-বোনের মধ্যে আসলে বিয়ে হয়নি এবং বিয়ের ঘটনাটি ভাইরাল হলে ওই পরিবারের উপর এলাকাবাসী ক্ষোভ প্রকাশ করে এবং বাড়ি ঘর ভাঙচুর করে। তবে ভিডিওর কোথাও ভাঙচুরের দৃশ্য দেখানো হয়নি। এছাড়াও ভিডিও থেকে জানা যায়, এ ঘটনাটি নিয়ে থানায় জিডিও করা হয়েছে।

পরবর্তীতে, রিউমর স্ক্যানার টিম এ বিষয়ে জানতে রংপুর জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম এন্ড অপস্) সৈয়দ মোহাম্মদ ফরহাদের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, তাদের কাছে এমন কোন অভিযোগ আসে নি এবং এমন কোন ঘটনার কথাও তিনি শোনেন নি।

এছাড়া, এ ঘটনা নিয়ে দেশীয় মূলধারার কোনো গণমাধ্যমের প্রতিবেদন ইন্টারনেটে খুঁজে পাওয়া যায় নি।

মূলত, রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে রংপুরে আপন ভাই-বোনের বিয়ে দাবিতে চটকদার শিরোনামে প্রচারিত ভিডিওটির কোনো বাস্তবিক ভিত্তি খুঁজে পাওয়া যায়নি। সামাজিক মধ্যমে প্রচার পাওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে তৈরি ভিডিওটি, ভুয়া দাবিতে ফেসবুক ও ইউটিউবে প্রচার করা হচ্ছে।

সুতরাং, রংপুরে আপন ভাই-বোনের বিয়ের দৃশ্য দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি বানোয়াট ও মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img