রবিবার, জুলাই 21, 2024
spot_img

ভারতীয় শিশুকে বাংলাদেশের শিশু আজমাইন দাবি করে আর্থিক সহায়তার নামে প্রতারণা

সম্প্রতি, “মাত্র চার মাস বয়সি শিশু মোঃ_আজমাইন হোসেন ।ডক্টর পরিক্ষা নিরিক্ষা করে জানায় মোঃ_আজমাইন হোসেন ফুসফুস ছিদ্র ও কিডনি তে সমস্যা” শীর্ষক শিরোনামে একটি বাচ্চার ছবি ব্যবহার করে একটি মানবিক সাহায্যের আবেদন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ভাইরাল কিছু ফেসবুক পোস্ট দেখুন এখানেএখানেএখানেএখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, মোঃ আজমাইন হোসেন নামে প্রচারিত ছবিগুলো কোনো বাংলাদেশি শিশুর নয় বরং এগুলো ভারতের উমা ও রাফি দম্পতির সদ্য জন্ম নেয়া যমজ শিশুর একজনের ছবি।

রিভার্স ইমেজ সার্চ পদ্ধতির মাধ্যমে, “We Became Parents After 10 Years, Please Help Us Save Our Baby” শিরোনামে ভারতের গণ-অর্থায়ন প্লাটফর্ম ‘Ketto’ এর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত মূল ছবিগুলো খুঁজে পাওয়া যায়।

আজমাইন
Screenshot from Ketto website

পাশাপাশি, ‘Ketto’ এর অফিশিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে শিশুটির চিকিৎসার জন্য ফান্ডরাইজিং নিয়ে ২০১৯ সালের ১৩ নভেম্বরে প্রকাশিত একটি ভিডিওতে এই তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়।

মূলত, ছবির শিশুটি ভারতের উমা ও রাফি দম্পতির যমজ সন্তানের মধ্যে একজন। এই যমজ শিশু দুইটি ২৫ সপ্তাহ ৩ দিন বয়সে প্রি ম্যাচিউর অবস্থায় জন্মগ্রহণ করে। তাদের মধ্যে একজন মারা যায় এবং অপর শিশুটি রেসপিরেটরি ডিস্ট্রেস সিনড্রোমে আক্রান্ত ছিলো। ফান্ডরাইজিং ঐ ওয়েবসাইটের প্রতিবেদন থেকে জানা যায় আক্রান্ত শিশুটির চিকিৎসার জন্য ১৯.৬ লাখ রুপির প্রয়োজন ছিলো। সেখানে দেয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী শিশুটির জন্য ফান্ডরাইজিং ২০১৯ সালের ১৫ নভেম্বরেই শেষ হয়ে গিয়েছে।

অন্যদিকে, মোঃ আজমাইন হোসেন নামে আর্থিক সাহায্যের জন্য আবেদনকৃত ফেসবুক পোস্টগুলোতে উল্লেখিত ব্যক্তিগত বিকাশ ও নগদ নাম্বারে (০১৩১৬৩২৫৬৩০) একাধিক বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও বন্ধ পাওয়া যায়।

মোঃ আজমাইন হোসেন নামে ছড়িয়ে পড়া ছবিগুলো ভুয়া হিসেবে শনাক্ত করা গেলেও বাস্তবিকভাবে বাংলাদেশে মোঃ আজমাইন হোসেন নামে কোনো শিশু ফুসফুস ছিদ্র ও কিডনির জটিল রোগে রোগাক্রান্ত কিনা কিংবা তার চিকিৎসার জন্য কোনো আর্থিক সাহায্যের প্রয়োজন কিনা তা আলাদাভাবে যাচাই করা যায়নি।

উল্লেখ্য, সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে অতীতে বিভিন্ন সময়ে নাম ও ছবি পরিবর্তন করে প্রায় একই শিরোনামে আর্থিক সহায়তার নামে প্রতারণা মূলক তথ্য প্রচার হয়ে আসছে।

প্রসঙ্গত, রিউমর স্ক্যানার টিম পূর্বেও বিভিন্ন নাম ব্যবহার করে প্রতারণার উদ্দেশ্যে আর্থিক সাহায্য চেয়ে করা পোস্টগুলোকে শনাক্ত করে একাধিক ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

সুতরাং, আর্থিক সহায়তার নামে প্রতারণার উদ্দেশ্যে ভারতীয় শিশুর ছবি সম্বলিত পোস্ট বাংলাদেশের শিশু মোঃ আজমাইন হোসেন দাবিতে সামাজিক মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

[su_box title=”True or False” box_color=”#f30404″ radius=”0″]

  • Claim Review: বড় মাত্র চার মাস বয়সি শিশু মোঃ আজমাইন হোসেন। ডক্টর পরিক্ষা নিরিক্ষা করে জানায় মোঃ আজমাইন হোসেন ফুসফুস ছিদ্র ও কিডনি তে সমস্যা
  • Claimed By: Facebook Posts
  • Fact Check: False

[/su_box]

তথ্যসূত্র

  1. Ketto Website: https://www.ketto.org/fundraiser/babyofumagowri
  2. Ketto YouTube: https://www.youtube.com/watch?v=vW0BKKXUygU
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img