বুধবার, জুলাই 24, 2024
spot_img

আবুধাবির বিএপিএস সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রথম বা দ্বিতীয় মন্দির নয়

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবিতে বিএপিএস (BAPS) নামক একটি হিন্দু মন্দিরের উদ্বোধন করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ আবুধাবিতে স্থাপিত প্রথম এই মন্দিরকে দেশটিরই প্রথম হিন্দু মন্দির দাবি করেছে কতিপয় গণমাধ্যম। একাধিক গণমাধ্যমে এমনও দাবি এসেছে যে মন্দিরটি আমিরাতের দ্বিতীয় হিন্দু মন্দির।

এটি দেশটির প্রথম হিন্দু মন্দির দাবিতে সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের গণমাধ্যমের প্রতিবেদন দেখুন একাত্তর টিভি, যমুনা টিভি (ফেসবুক), বাহান্ন নিউজ। 

আবুধাবি

এছাড়া এই মন্দিরটি সংযুক্ত আরব আমিরাতের দ্বিতীয় হিন্দু মন্দির দাবিতে বাংলাদেশের গণমাধ্যমে সাম্প্রতিক সময়ে প্রকাশিত প্রতিবেদন দেখুন সময় টিভি, যুগান্তর, জনকণ্ঠ, যায়যায়দিন, বাংলাভিশন, সংবাদ প্রকাশ, বাংলাদেশ মোমেন্টস, শেয়ার নিউজ২৪

পূর্বে বিভিন্ন সময়ে একই দাবিগুলোতে গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন দেখুন দৈনিক বাংলা (২০২৩), বাংলাদেশ জার্নাল (২০২২), নয়া দিগন্ত(২০২৩), দেশ রূপান্তর (২০২৩)।

একই দাবি ভারতের গণমাধ্যমেও এসেছে। দেখুন হিন্দুস্তান টাইমস

উক্ত দাবিগুলোতে গণমাধ্যমের ইউটিউব চ্যানেলের প্রতিবেদন দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

একই দাবিগুলোর বিষয়ে ফেসবুকের পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)

একই দাবিতে ভারতের ফেসবুক অ্যাকাউন্টের পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবির বিএপিএস হিন্দু মন্দির দেশটির প্রথম বা দ্বিতীয় হিন্দু মন্দির নয় বরং দেশটিতে দুইয়ের অধিক মন্দির রয়েছে। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানের শুরুতে বিএপিএস মন্দিরের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে জানা যায়, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি উদ্বোধন হওয়া এই মন্দির মধ্যপ্রাচ্যের প্রথম ঐতিহ্যবাহী পাথুরে হিন্দু মন্দির। তবে এই সাইট থেকে 

আলোচিত দাবিগুলোর বিষয়ে কোনো তথ্য মেলেনি। তবে দুবাইভিত্তিক সংবাদমাধ্যম Gulf News এর এক প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, এটিই আবুধাবির প্রথম হিন্দু মন্দির। একই তথ্য এসেছে সিএনএন এবং আল জাজিরাতেও। 

সংযুক্ত আরব আমিরাতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটের ২০২৩ সালের ডিসেম্বরের একটি আর্কাইভ থেকে জানা যাচ্ছে, সে সময় দুবাইতেই দুইটি হিন্দু মন্দির ছিল। এর মধ্যে প্রথমটি চালু হয় ১৯৫৮ সালে৷ অর্থাৎ, সেসময়ে উল্লিখিত দুইটি এবং সম্প্রতি চালু হওয়া একটি মন্দির মিলে এই মুহূর্তে অন্তত তিনটি হিন্দু মন্দির থাকার কথা আরব আমিরাতে। তবে গালফ নিউজের গত ডিসেম্বরের এক প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, ১৯৫৮ সালে চালু হওয়া মন্দিরটি জানুয়ারিতে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। অর্থাৎ, অন্তত দুইটি মন্দির রয়েছে আরব আমিরাতে। এ থেকে সহজেই নিশ্চিত হওয়া যায় যে, যে সকল গণমাধ্যম বিএপিএস’কে দেশটির প্রথম হিন্দু মন্দির বলে দাবি করছে তা সঠিক নয়৷ 

আমরা এ বিষয়ে জানতে আবুধাবিতে সদ্য উদ্বোধন হওয়া বিএপিএস হিন্দু মন্দিরটির কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করেছি। তাদের পক্ষ থেকে মন্দিরের প্রেস টিম লিড বিশাল প্যাটেল রিউমর স্ক্যানারকে বলেছেন, “মন্দিরটি মধ্যপ্রাচ্যের প্রথম ঐতিহ্যবাহী পাথুরে হিন্দু মন্দির শীর্ষক তথ্যটি যেমন সত্য তেমনি এটি আবুধাবিরও প্রথম হিন্দু মন্দির। তবে দুবাইতে ছোট ছোট অনেক মন্দির আছে৷”

অনুসন্ধানে আমরা আরব আমিরাতে অন্তত তিনটি মন্দির থাকার প্রমাণ পেয়েছি। এর একটি দুবাইয়ের জেবেল আলীতে, একটি বার দুবাইতে এবং অন্যটির অবস্থান জুমিরাহতে। 

এছাড়া, তিনটি ভ্রমণ এবং ব্লগ সাইটের মাধ্যমে আরব আমিরাতে যথাক্রমে , এবং টি হিন্দু মন্দির থাকার বিষয়ে জানা যাচ্ছে। 

মূলত, সম্প্রতি সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবিতে বিএপিএস (BAPS) নামক একটি হিন্দু মন্দিরের উদ্বোধন হয়েছে। এই মন্দিরকে দেশটিরই প্রথম হিন্দু মন্দির দাবি করেছে কতিপয় গণমাধ্যম। কিছু গণমাধ্যমে এমনও দাবি এসেছে যে মন্দিরটি আমিরাতের দ্বিতীয় হিন্দু মন্দির। কিন্তু রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, উক্ত দাবিগুলো সঠিক নয়৷ আবুধাবির প্রথম এই হিন্দু মন্দির আমিরাতের প্রথম বা দ্বিতীয় হিন্দু মন্দির নয়। উক্ত মন্দিরটি নির্মিত হওয়ার অনেক আগে থেকেই দেশটিতে দুইয়ের অধিক মন্দির রয়েছে।  

প্রসঙ্গত, দুবাইয়ে জেবেল আলির মন্দিরটিকে বিশ্বের ২য় বৃহত্তম মন্দির শীর্ষক দাবি ২০২২ সালে ইন্টারনেটে প্রচারের প্রেক্ষিতে সেসময় ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল রিউমর স্ক্যানার। 

সুতরাং, সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবিতে বিএপিএস হিন্দু মন্দিরকে দেশটির প্রথম (কারো দাবি দ্বিতীয়) হিন্দু মন্দির দাবিতে গণমাধ্যমে প্রচার করা হয়েছে; যা বিভ্রান্তিকর।।

তথ্যসূত্র 

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img