সোমবার, জুলাই 22, 2024
spot_img

ইসরায়েলে ইরানের হামলার দৃশ্য দাবিতে ভিন্ন ভিন্ন ঘটনার ভিডিও প্রচার

গত ১ এপ্রিল সিরিয়ায় ইরানের দূতাবাসের নিকটে ইসরায়েলের হামলায় ইসলামিক রেভল্যুশনারি গার্ড কর্পসের একজন সিনিয়র কমান্ডার ও ছয় কর্মকর্তা নিহত হলে এই হামলার প্রতিবাদে গত ১৩ এপ্রিল রাতে ইসরায়েলে কয়েকশ ড্রোন ও মিসাইল হামলা চালায় ইরান। এরই প্রেক্ষিতে ইসরায়েলের ওপর ইরানের হামলার দৃশ্য দাবিতে একাধিক ফুটেজযুক্ত একটি ভিডিও ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে।

উক্ত দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)।

টিকটক প্রচারিত ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, একাধিক ফুটেজ সম্বলিত প্রচারিত ভিডিওটি ইরান কর্তৃক ইসরায়েলে হামলার ঘটনার নয় বরং ভিন্ন ভিন্ন ঘটনার পুরোনো ভিডিও একত্র করে আলোচ্য দাবিতে প্রচার করা হয়েছে।

ভিডিও যাচাই: ০১

ভিডিওটির সত্যতা যাচাইয়ের জন্য রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে projectoalestine75 নামক ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে গত ৪ এপ্রিলে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত ভিডিওর সাথে আলোচিত দাবিতে প্রচারিত ভিডিওর প্রথম অংশের সাদৃশ্য খুঁজে পাওয়া যায়।

Video Comparison: Rumor Scanner

ভিডিওটির বিস্তারিত বিবরণী থেকে জানা যায়, এটি ইসরায়েল কর্তৃক লেবাননে হামলার দৃশ্য।

পরবর্তীতে blackccclloud নামক ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে ২২ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত সম্ভাব্য প্রথম পোস্টটি খুঁজে পাওয়া যায়।

উপরের তথ্য ও সময়ের সূত্র ধরে অনুসন্ধানে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম বিবিসি এর ওয়েবসাইটে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি “Huge explosions as Israel strikes southern Lebanon” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে উক্ত দাবির (ইসরায়েল কর্তৃক লেবাননে হামলা) সত্যতা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়।

ভিডিও যাচাই: ০২

ভিডিওটির বিষয়ে জানতে রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে একটি টেলিগ্রাম চ্যানেলে ২০২৩ সালের ৫ ডিসেম্বরে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত ভিডিওর সাথে আলোচিত দাবিতে প্রচারিত ভিডিওর দ্বিতীয় অংশের সাদৃশ্য খুঁজে পাওয়া যায়।

Video Comparison: Rumor Scanner

ভিডিও থেকে জানা যায়, এটি ইসরায়েলি ডিফেন্স ফোর্স (আইডিএফ) কর্তৃক লেবাননে হামলার দৃশ্য।

ভিডিও যাচাই: ০৩

ভিডিওটির সত্যতা যাচাইয়ের শুরুতে ফুটেজটি ভালো করে পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার। ফুটেজের এক পর্যায়ে জাপানিজ ভাষায় কিছু লেখা এবং “Oh toro kitchen” শীর্ষক একটি রেস্টুরেন্টের নাম লক্ষ্য করা যায়।

Screenshot: Facebook

পবর্তীতে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করে জানা যায় এটি জাপানের রাজধানী টোকিও শহরের মিনাটো শরের শিমবাশি এলাকার একটি রেস্টুরেন্ট

উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করে জাপানের দ্য জাপান নিউজ’র ওয়েবসাইটে ২০২৩ সালের ৩ জুলাইয়ে “Large Explosion in Shimbashi, Central Tokyo, 4 Injured” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, উক্ত ঘটনা ২০২৩ সালে মধ্য টোকিওর শিমবাশি এলাকায় একটি বিল্ডিংয়ে বিস্ফোরণের।

মূলত, গত ১ এপ্রিল সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে অবস্থিত ইরানি কনস্যুলেটে ইসরায়েলি হামলার জবাবে ১৩ এপ্রিল ইরান নিজেদের ভূখন্ড থেকে সরাসরি ইসরায়েলে ড্রোন ও মিসাইল দিয়ে হামলা চালায়।এই ঘটনার পরপরই ইসরায়েলের ওপর ইরানের হামলার দৃশ্যদাবিতে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে। তবে রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ভিডিওটি উক্ত ঘটনার নয়। প্রকৃতপক্ষে, ভিন্ন ভিন্ন সময়ে ইসরায়েল কর্তৃক লেবাননে হামলার এবং ২০২৩ সালে জাপানের টোকিওর শিমবাশি এলাকায় একটি বিল্ডিংয়ে বিস্ফোরণের ভিডিও ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় একত্র করে আলোচিত দাবিতে প্রচার করা হয়েছে।

সুতরাং, ভিন্ন ভিন্ন সময়ে ইসরায়েল কর্তৃক লেবাননে হামলার এবং ২০২৩ সালে জাপানের টোকিওর শিমবাশি এলাকায় একটি বিল্ডিংয়ে বিস্ফোরণের ভিডিওকে ইসরায়েলের ওপর ইরানের হামলার দৃশ্য দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে; যা মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img