শনিবার, জুলাই 13, 2024
spot_img

বাংলাদেশের নির্বাচন বন্ধের জন্য শেখ হাসিনার ওপর জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞার গুজব 

সম্প্রতি, নির্বাচন বন্ধে হাসিনার উপর নিষেধাজ্ঞা দিলো জাতিসংঘ– শীর্ষক শিরোনামে এবং হাসিনার উপর চটলো, জাতিসংঘ দিলো রেড এলার্ট জরুরী নিষেধাজ্ঞা– শীর্ষক থাম্বনেইলে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে। 

ভিডিওটিতে দাবি জরা হচ্ছে, বাংলাদেশের আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বন্ধের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে জাতিসংঘ। 

নির্বাচন বন্ধের

ইউটিউবে প্রচারিত ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক 

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, বাংলাদেশের আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বন্ধের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়নি জাতিসংঘ বরং অধিক ভিউ পাবার আশায় চটকদার থাম্বনেইল ব্যবহার করে নির্ভরযোগ্য কোনো তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই আলোচিত ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে।

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, জাতিসংঘের সেক্রেটারি জেনারেলের মুখপত্র স্টিফেন ডুজারিকের করা প্রেস ব্রিফিংয়ের একটি ভিডিও কেটে চটকদার থাম্বনেইলে তা প্রচার করা হচ্ছে। 

ভিডিও যাচাই 

আলোচিত ভিডিওটিতে জাতিসংঘের সেক্রেটারি জেনারেলের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিককে বক্তব্য দিতে দেখা যায় এবং ব্যাকগ্রাউন্ডে জাতিসংঘে লোগো দেখা যায়। সেই লোগো’র সূত্র ধরে অনুসন্ধানে জাতিসংঘের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে গত ২২ ডিসেম্বর “Gaza, Gaza/Food Insecurity, Sudan & other topics – Daily Press Briefing (21 Dec 2023)” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রেস ব্রিফিংয়ের ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। 

৩০ মিনিট ১১ সেকেন্ডের ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, ২১ মিনিটের পর থেকে আলোচিত ভিডিওটিতে থাকা ভিডিওটির হুবহু মিল রয়েছে। 

Video Comparison: Rumour Scanner 

স্টিফেন ডুজারিককে সাংবাদিক মুশফিক ফজল আনসারী “গণমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বাংলাদেশের সরকার আগামী ৭ জানুয়ারি একতরফা নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত এবং তারা অন্যান্য দলগুলোর নেতাকর্মীদের জেলে আটকে রাখছে৷ এপর্যন্ত ছয়জন মারাও গেছে। এখন জেনারেল সেক্রেটারি কী পদক্ষেপ নিবেন? শীর্ষক একটি প্রশ্ন করেন।

এই প্রশ্নের উত্তরে মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক বলেন, মুশফিক (সাংবাদিকের নাম) আমি আপনার উত্তর আগেই দিয়ে দিয়েছি। আমরা নির্বাচনের পর পদক্ষেপ নিব। তবে, নির্বাচনের আগে আমাদের অবস্থান অপরিবর্তনীয় থাকবে। আমরা চাই সুষ্ঠু নির্বাচন হোক। যেখানে ভোটাররা নির্দ্বিধায় ভোট দিতে পারবে৷ আমরা নির্বাচনের পর অবশ্যই এটি নিয়ে কথা বলবো। তবে, নির্বাচনের আগে আমাদের সিদ্ধান্ত অপরিবর্তনীয় থাকবে। 

অর্থাৎ, সাংবাদিক মুশফিক ফজল আনসারীর প্রশ্নের জবাবে জাতিসংঘের সেক্রেটারি জেনারেলের মুখপত্র স্টিফেন ডুজারিক বাংলাদেশের আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে জাতিসংঘের অবস্থান নিয়ে কথা বলেন। তখন স্টিফেন ডুজারিক নির্বাচন বন্ধ বা শেখ হাসিনার ওপর নিষেধাজ্ঞা সংক্রান্ত কোনো কথা বলেননি। 

এছাড়া, জাতিসংঘ বাংলাদেশের নির্বাচন বন্ধে শেখ হাসিনার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে কি না সে বিষয়ে অনুসন্ধান করে রিউমর স্ক্যানার টিম। অনুসন্ধানে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করলে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে এসংক্রান্ত কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। 

পাশাপাশি, জাতিসংঘের ফেসবুক পেজ এবং ওয়েবসাইটেও এসংক্রান্ত কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।  

মূলত, আগামী ৭ জানুয়ারি বাংলাদেশের দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবি জানিয়ে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক দল এই নির্বাচন বয়কটের ঘোষণা দিয়েছে। এদিকে বেশ কয়েকজন ধরেই এই নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে করার দাবি জানিয়ে আসছে জাতিসংঘসহ বিভন্ন আন্তর্জাতিক সংগঠন। এরই প্রেক্ষিতে সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে “নির্বাচন বন্ধে হাসিনার উপর নিষেধাজ্ঞা দিলো জাতিসংঘ” শীর্ষক দাবিতে একটি ভিডিও প্রচার করা হয়। তবে অনুসন্ধানে জানা যায়, প্রচারিত দাবিটি সঠিক নয়। অধিক ভিউ পাবার আশায় জাতিসংঘের প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিক মুশফিক ফজল আনসারীর প্রশ্ন এবং তার উত্তরের ঘটনার ভিডিওর সাথে চটকদার থাম্বনেইল ব্যবহার করে কোনোপ্রকার নির্ভরযোগ্য তথ্যসূত্র ছাড়াই আলোচিত দাবিটি প্রচার করা হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে, উক্ত ব্রেফিংয়ে জাতিসংঘের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক সাংবাদিক মুশফিক ফজলের প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশের নির্বাচন বন্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া সংক্রান্ত কোনো কথা বলেননি।

সুতরাং, জাতিসংঘ বাংলাদেশের নির্বাচন বন্ধে শেখ হাসিনার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচারিত তথ্যগুলো সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img