বুধবার, মে 22, 2024
spot_img

দুবাইয়ের বুর্জ খলিফায় হিন্দু দেবতা ‘রাম’ এর প্রদর্শিত ছবিটি এডিটেড

সম্প্রতি, “দুবাইয়ের বুর্জ খলিফায় হিন্দু দেবতা ‘রাম’ এর ছবি প্রদর্শিত হয়েছে” শীর্ষক দাবিতে ছবিসহ একটি দাবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে ছড়িয়ে পড়েছে।

Screenshot from Twitter

টুইটারে প্রচারিত পোস্ট গুলো দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে
টুইটারে প্রচারিত পোস্ট গুলোর আর্কাইভ দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

ফেসবুকে প্রচারিত এমন পোস্ট দেখুন, এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, দুবাইয়ের বুর্জ খলিফায় হিন্দু দেবতা ‘রাম’ এর ছবি প্রদর্শিত হওয়ার ঘটনাটি সত্য নয় বরং প্রযুক্তিগত উপায় ব্যবহার করে হিন্দু দেবতা ‘রাম’ এর ছবি দুবাইয়ের বুর্জ খলিফার ছবির সাথে জুড়ে দেওয়া হয়েছে।

গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চ পদ্ধতি ব্যবহার করে, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৫ সালে স্টক ছবির সাইট ‘Istockphoto.com’ -এ “Night view of Burj Khalifa tower in Dubai stock photo” শীর্ষক শিরোনামে একটি ছবি পাওয়া যায় যা আলোচিত দাবি ও সংযুক্ত   ছবির সাথে হুবহু মিলে যায়। 

Screenshot from istockphoto.com

দাবির সাথে প্রচারিত ছবি ও স্টক ফটো’র সাইটে পাওয়া ছবির মিল দেখুন নিচেঃ

Collage by RSB

পাশাপাশি, গত ১ এপ্রিল ২০২৩ এ ভারতের প্রপাগান্ডা এবং ভুয়া খবর শনাক্তকারী প্রতিষ্ঠান ‘D-Intent Data’ তাদের টুইটার অ্যাকাউন্টে একটি টুইট  করে। সেই টুইটে তারা জানায় দুবাইয়ের বুর্জ খলিফায় হিন্দু দেবতা ‘রাম’ এর যে ছবিটি প্রদর্শিত হচ্ছে সেটি আধুনিক প্রযুক্তির সহায়তায় তৈরি করা হয়েছে যা মানুষের মাঝে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে।

Screenshot from Twitter

এছাড়াও, অনুসন্ধানে ইন্টারনেটে কোনো গ্রহণযোগ্য সূএ এবং ভারতীয় কিংবা আন্তর্জাতিক কোনো গণমাধ্যমে এ সংক্রান্ত কোনো সংবাদ পাওয়া যায়নি।

মূলত, গত ৩০ মার্চ ২০২৩ এ হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় অনুষ্ঠান ‘রাম নবমি’ কে কেন্দ্র করে প্রযুক্তির সহায়তায় দুবাইয়ের বিখ্যাত বুর্জ খলিফার ছবির সাথে হিন্দু ধর্মের দেবতা রাম এর ছবি যুক্ত করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম প্রচার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, বিভিন্ন দিবস বা উপলক্ষ্যকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন দেশের পতাকা বা তারকার ছবি বুর্জ খলিফায় প্রদর্শিত হওয়ার তথ্য পাওয়া যায়।

প্রসঙ্গত, ইতোপূর্বেও বুর্জ খলিফা থেকে ধারণকৃত হারিকেনের দৃশ্য শীর্ষক মিথ্যা তথ্য শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে “দুবাইয়ের বুর্জ খলিফায় হিন্দু দেবতা রাম’ দাবিতে প্রচারিত ছবিটি এডিটেড।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img