ষষ্ঠ শ্রেণির ক্লাসে পর্ণ নিয়ে আলোচনা করে শিক্ষিকার চাকরি খোয়ানোর ঘটনাটি যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার

সম্প্রতি ‘ষষ্ঠ শ্রেণির ক্লাসে পর্ণ নিয়ে আলোচনা করায় চাকরি গেলো প্রধানশিক্ষিকার’ শীর্ষক শিরোনামে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। 

Screenshot: Facebook

ফেসবুকে প্রচারিত এমনকিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ষষ্ঠ শ্রেণির ক্লাসে পর্ণ নিয়ে আলোচনা করে শিক্ষিকার চাকরি খোয়ানোর ঘটনাটি বাংলাদেশের নয় বরং ঘটনাটি যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার। 

ফেসবুকে প্রকাশিত পোস্টগুলোর সূত্র ধরে কি-ওয়ার্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে দেশীয় মূলধারার গণমাধ্যম দেশ রূপান্তর এর অনলাইন সংস্করণে গত ২৬ মার্চ ‘ষষ্ঠ শ্রেণির ক্লাসে পর্ণ নিয়ে আলোচনা, চাকরি গেলো প্রধান শিক্ষিকার’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন(আর্কাইভ) খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: deshrupantor.com

এছাড়া, শিক্ষাভিত্তিক অনলাইন নিউজ পোর্টাল শিক্ষা বার্তা এর ওয়েবসাইটে গত ২৭ মার্চ ‘ষষ্ঠ শ্রেণির ক্লাসে পর্ন নিয়ে আলোচনা, চাকরি গেল প্রধানশিক্ষিকার’ শিরোনামে সমজাতীয় আরেকটি প্রতিবেদন(আর্কাইভ) খুঁজে পাওয়া যায়।

প্রতিবেদনের শিরোনামে ঘটনাটির স্থান উল্লেখ করা না হলেও বিস্তারিত অংশে এটি যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। 

প্রতিবেদনে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসির বরাতে জানানো হয়, যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় ষষ্ঠ শ্রেণির ক্লাসে পর্নোগ্রাফি নিয়ে আলোচনা করার অভিযোগ উঠেছে স্কুলের প্রধানশিক্ষিকার বিরুদ্ধে। বিষয়টি জানাজানি হতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন অভিভাবকরা। আর চাপের মুখে চাকরি ছাড়তে বাধ্য হন প্রধানশিক্ষিকা। তবে বাংলাদেশের নেটিজেনরা সংবাদের বিস্তারিত না জেনেই বিষয়টি বাংলাদেশের মনে করেছেন।  অন্যদিকে একাধিক ফেসবুক পেজ যথাযথভাবে যাচাই না করে অথবা অধিক রিচ পাওয়ার আশায় বিস্তারিত উল্লেখ না করে ফেসবুকে প্রচার করেছে। ফলে ঘটনাটি আমেরিকার ফ্লোরিডার হলেও স্থানের নাম উল্লেখ না করে বাংলাদেশে প্রচার করায় ঘটনাটি বাংলাদেশের ভেবে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হচ্ছে।

যেমন, MD Nafiz Chowdhury নামে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী ‘শিক্ষাবার্তা’ নামের পেজ থেকে প্রচারিত পোস্টটি শেয়ার দিয়ে লিখেছেন(আর্কাইভ) ‘আমি হতাশ’।

Screenshot: Facebook

Omar Faruk নামের এক ফেসবুক ব্যবহারকারী ‘শিক্ষাবার্তা ডট কম’ নামের পেজ থেকে প্রচারিত পোস্টটি শেয়ার দিয়ে লিখেছেন(আর্কাইভ) ‘আর এদিকে ছাত্রীদের ইজ্জত লুটেপুটে খাচ্ছে তাদের কোন বিচার নাই।’

Screenshot: Facebook

Mohammad Majharul নামের এক ফেসবুক ব্যবহারকারী ‘Educational News of Bangladesh’ নামের পেজ থেকে প্রচারিত পোস্টটি শেয়ার দিয়ে লিখেছেন(আর্কাইভ) ‘উন্নত শিক্ষা ব্যবস্থা ডুড’।

Screenshot: Facebook

এছাড়া যেসব পেজ থেকে তথ্যটি প্রচার করা হয়েছে সেসব পেজের কমেন্টবক্স যাচাই করে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ঘটনাটি বাংলাদেশের ভেবে বিভ্রান্তিকর মন্তব্য করতে দেখা যায়।

Collage: Rumor Scanner

পরবর্তীতে অধিকতর অনুসন্ধানে  বিবিসি নিউজে ২৫ মার্চ ‘Principal resigns after Florida students shown Michelangelo statue’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত মূল প্রতিবেদনটি খুঁজে পায় রিউমর স্ক্যানার টিম। সেখানে মূল ঘটনার বিস্তারিত জানা যায়। 

Screenshot: BBC News

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ফ্লোরিডার তাল্লাহাসি ক্লাসিক্যাল স্কুলের প্রধানশিক্ষিকা হোপ ক্যারাসকিল্লা ষষ্ঠ শ্রেণিতে রেনেসাঁর শিল্পকলা প্রসঙ্গে ক্লাস নিচ্ছিলেন। একপর্যায়ে ইতালির বিখ্যাত শিল্পী মাইকেলেঞ্জেলোর ভাস্কর্য ‘ডেভিড’ নিয়ে আলোচনা করেন তিনি। এদিকে বিষয়টি জানতে পেরে ক্ষুব্ধ হন অভিভাবকরা। তাদের অভিযোগ, নগ্ন পুরুষের মূর্তিটির মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের পর্নোগ্রাফি চিনিয়ে দিয়েছেন প্রধানশিক্ষিকা। পরে ক্ষুব্ধ অভিভাবকরা প্রধানশিক্ষিকার বিরুদ্ধে প্রতিষ্ঠানের কাছে অভিযোগ দেন এবং এরপরেই প্রধানশিক্ষিকাকে পদত্যাগের জন্য চাপ দেয় স্কুল কর্তৃপক্ষ।

অর্থাৎ, উপরোক্ত তথ্য উপাত্ত পর্যালোচনা করলে এটা স্পষ্ট হয় যে, ষষ্ঠ শ্রেণির ক্লাসে পর্ণ নিয়ে আলোচনা করে শিক্ষিকার চাকরি খোয়ানোর ঘটনাটি বাংলাদেশের নয় বরং যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার।

মূলত, সম্প্রতি ষষ্ঠ শ্রেণির ক্লাসে পর্ণ নিয়ে আলোচনা করে শিক্ষিকার চাকরি খোয়ানোর ঘটনা ঘটে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায়। যা নিয়ে বিবিসি নিউজে সংবাদ প্রকাশ করা হয়। পরবর্তীতে বিবিসি নিউজের সূত্রে বাংলাদেশের গণমাধ্যমে সংবাদটি প্রকাশ করা হলে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা বিষয়টি যথাযথ যাচাই না করে শুধুমাত্র শিরোনাম কপি পেস্ট করে ফেসবুকে প্রচার করছেন। ফলে ঘটনাটি যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার হলেও দেশটির নাম উল্লেখ না করে বাংলাদেশে প্রচার করায় ঘটনাটি বাংলাদেশের ঘটনা ভেবে বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে। 

সুতরাং, যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় ষষ্ঠ শ্রেণির ক্লাসে পর্ণ নিয়ে আলোচনা করে শিক্ষিকার চাকরি খোয়ানোর ঘটনাটি বাংলাদেশে ‘ফ্লোরিডা’ শব্দ উল্লেখ না করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img