‘সাকিবের সাথে আর বিশ্বকাপ খেলতে চাই না’ তামিম এরূপ কোনো মন্তব্য করেননি

সম্প্রতি, ‘আমি আর সাকিবের সাথে বিশ্বকাপে খেলতে চাই না। লাইভে এসে মুখ খুললো তামিম ইকবাল’ শীর্ষক শিরোনামে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে।

ফেসবুকে প্রচারিত ভিডিও পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

একই দাবিতে টিকটকে প্রচারিত ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ইউটিউবে প্রচারিত ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

ভিডিওতে তামিম ইকবালকে যা বলতে শোনা যাচ্ছে

‘ছোট একটা এনাউন্সমেন্ট ছিল। আমি কিছুক্ষণ আগে আমাদের বোর্ড প্রেসিডেন্ট পাপন ভাই আর আমাদের টিম সিলেক্টর নান্নু ভাইয়ের সাথে… আমি উনাদেরকে ফোন করেছিলাম, ফোন করে আমি কিছু জিনিস শেয়ার করেছি। যেটা আমি সবার সাথেই শেয়ার করতে চাই… আমি উনাদের বলেছি, আমার মনে হয় না যে আমার ওয়ার্ল্ড কাপ টিমে থাকা উচিত। আইএম বেসিকলি নট অ্যাভিয়েলেবল ফর দ্যা ওয়ার্ল্ড কাপ। এটার দুই-তিনটি কারণ আছে। আমার কাছে মনে হয় যে গেইম টাইম ইজ ওয়ান অফ দ্যা বিগেস্ট রিজন। আমি বেশ কয়েকদিন ধরে খেলছি না এই ফর্মেটটা ৷ সেকেন্ডলি ইঞ্জুরি, বাট ইঞ্জুরি মনে হয় না অত বড় সমস্যা। বিকজ আমি আশা করি, যে ওয়ার্ল্ড কাপের আগেই ঠিক হয়ে যাবো। বাট যে জিনিসটা আমাকে এই ডিসিশন নিতে ট্রিক করেছে…প্লাস আমার জায়গায় যারা খেলছিল আমার কাছে কোনোভাবেই মনে হয় না যে এটা ফেয়ার হতে তাদের প্রতি, যদি আমি হঠাৎ করে এসে ওদের জায়গাটা নিয়ে নেই। প্রবাবলি হয়তো বা আমি ওয়ার্ল্ড  কাপ টিমে থাকতাম… বাট আমার কাছে মনে হয় না যে এটা ফেয়ার হতো।… প্রববলি এই ওয়ার্ল্ড  কাপে আপনারা আমাকে দেখবেন না।…  আবার ক্লিয়ার করে দেই, আইএম নট রিটায়ারিং। আমি রিটায়ার করছি না। বাট প্রবাবলি এই ওয়ার্ল্ড  কাপটা আমার খেলা  হবে না। আমার কাছে মনে হয় যে ইট’স এ ফেয়ার ডিসিশন…।’

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, সম্প্রতি ফেসবুক লাইভে এসে ‘আমি আর সাকিবের সাথে বিশ্বকাপ খেলতে চাই না’ শীর্ষক কোনো মন্তব্য তামিম ইকবাল করেননি বরং ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে সে সময় তামিম ইকবালের ফেসবুক পেজ থেকে আসা লাইভ ভিডিওকে আলোচিত দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে। তাছাড়া, সে সময়ের লাইভ ভিডিওতেও তিনি সাকিবের নাম উল্লেখ করে এমন কোনো মন্তব্য করেননি।

রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে তামিম ইকবালের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে ২০২১ সালের ১ সেপ্টেম্বর প্রচারিত একটি লাইভ ভিডিও (আর্কাইভ) বার্তা খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: Facebook

৩ মিনিট ২১ সেকেন্ডের ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, এই ভিডিওটির সঙ্গে আসন্ন বিশ্বকাপ ২০২৩ প্রসঙ্গে তামিম ইকবালের বক্তব্য দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটির হুবহু মিল রয়েছে।

Video Comparison by Rumor Scanner 

ভিডিওটিতে মূলত তিনি ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে কথা বলেন। এছাড়া, তিনি ঐ ভিডিওতে বিশ্বকাপের দল থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়া কারণ হিসেবে সাকিবকে জড়িয়ে কোনো মন্তব্য করেননি।

উক্ত ভিডিও বার্তার সূত্র ধরে জাতীয় দৈনিক প্রথম আলোর ওয়েবসাইটে ২০২১ সালের ১ সেপ্টেম্বর “টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিলেন তামিম ইকবাল” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাংলাদেশ দল থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন জাতীয় দলের ওপেনার তামিম ইকবাল। নিজের ফেসবুক পেজে এক ভিডিও বার্তায় তিনি এ ঘোষণা দিয়েছেন।

অর্থাৎ, তামিম ফেসবুক লাইভে এসে আসন্ন বিশ্বকাপে সাকিব আল হাসানের সাথে খেলতে না চাওয়ার কথা বলেছেন দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি পুরোনো এবং আলোচিত দাবির সাথে প্রচারিত ভিডিওটি অপ্রাসঙ্গিক। 

মূলত, আসন্ন বিশ্বকাপ ক্রিকেটে বাংলাদেশ দলের স্কোয়াডে তামিম ইকবালের থাকা না থাকা নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরেই গণমাধ্যমসহ ক্রিকেট অঙ্গনে নানা কথার চাউর হয়। এরই মাঝে গতকাল ২৬ সেপ্টেম্বর তামিম ইকবালকে ছাড়াই ১৫ সদস্যের স্কোয়াড ঘোষণা করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এই স্কোয়াড ঘোষণার কয়েক ঘন্টা আগ থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও প্রচার করে দাবি করা হচ্ছে যে, ‘তামিম ইকবাল ফেসবুক লাইভে এসে বলেছেন, তিনি আর সাকিবের সাথে বিশ্বকাপ খেলতে চান না। তবে অনুসন্ধানে জানা যায়, আলোচিত দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দিতে তামিম ইকবালের ফেসবুক পেজ থেকে আসা একটি লাইভের এবং ঐ লাইভেও সাকিবকে জড়িয়ে তামিম এরূপ কোনো মন্তব্য করেননি। এছাড়া, এই প্রতিবেদন প্রকাশের আগ পর্যন্ত তামিম ইকবাল স্কোয়াডে থাকা না থাকা নিয়ে ফেসবুক লাইভে কিংবা গণমাধ্যমে আলোচিত দাবিতে কোনো মন্তব্য করেননি।

সুতরাং, তামিম ইকবাল ফেসবুক লাইভে এসে সাকিব আল হাসানের সাথে আর বিশ্বকাপ খেলতে চান না বলে জানিয়েছেন দাবিতে প্রচারিত বিষয়টি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img