পাকিস্তানে ভারী বর্ষণের ঘটনায় গণমাধ্যমে একাধিক পুরোনো ছবি

গত জুনে পাকিস্তানের খাইবার পাখতুম প্রদেশের বান্নু, লাক্ষী মারওয়াত এবং কারাক জেলায় ভারী বৃষ্টির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় কতিপয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদে ১২ টি ছবি ব্যবহার করা হয়েছে।

উক্ত ছবিগুলো যুক্ত করে গণমাধ্যমে প্রকাশিত এমন কিছু প্রতিবেদন দেখুন একাত্তর টিভি, চ্যানেল২৪, সময় টিভি, চ্যানেল আই, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস), কালের কণ্ঠ, যমুনা টিভি, যুগান্তর, ইত্তেফাক, ইনকিলাব, নিউজ২৪, ডিবিসি নিউজ, সাম্প্রতিক দেশকাল, ডেইলি সান (১), ডেইলি সান (২), ইত্তেফাক, দেশ রূপান্তর, মানবজমিন, বাংলাদেশ প্রতিদিন, ভোরের কাগজ, দৈনিক আমাদের সময়, সময়ের আলো, বাংলানিউজ২৪, ঢাকা মেইল, বায়ান্ন টিভি, সোনালী নিউজ, বার্তা২৪, বাংলাদেশ জার্নাল, এশিয়ান টিভি, ডেইলি মেসেঞ্জার, জাগোনিউজ২৪ (ইউটিউব), ফ্রিডম বাংলা নিউজ, মত ও পথ, ডেল্টা টাইমস, সময়ের কণ্ঠস্বর, বিজনেস পোস্ট, নিউজনাউ২৪, আমাদের বার্তা, আজকালের খবর

এর মধ্যে একটি ছবি সাম্প্রতিক সময়ে পাকিস্তানের ভারী বর্ষণের ঘটনার প্রকাশিত প্রতিবেদনে ব্যবহার করেছে আল জাজিরা। 

উক্ত ছবিগুলো ব্যবহার করে ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, পাকিস্তানে গত জুনে ভারী বর্ষণের ঘটনায় গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের সাথে প্রচারিত ছবিগুলো সাম্প্রতিক সময়ের নয় বরং পূর্বে পাকিস্তানের বিভিন্ন ঘটনার পুরোনো ছবিকে দেশটির সাম্প্রতিক ভারী বর্ষণের ঘটনার দাবিতে প্রচার করা হয়েছে।

ছবি যাচাই ১

Screenshot source: Facebook

পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বৃষ্টির ঘটনার বিষয়ে জানিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই ছবিটি ব্যবহার করেছে ইনকিলাব, সাম্প্রতিক দেশকাল, ঢাকা মেইল, সোনালী নিউজ, বার্তা২৪। 

কিন্তু ছবিটি উক্ত ঘটনার নয়। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে সৌদি আরবের সংবাদমাধ্যম Arab News এর ওয়েবসাইটে ২০১৯ সালের ১৬ এপ্রিল প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

আরব নিউজ বলছে, সেসময় পাকিস্তানে ভারী বর্ষণের কারণে রাস্তাঘাট পানিতে ডুবে গিয়েছিল। আরব নিউজের পক্ষে ছবিটি তুলেছেন শফিক মালিক। 

Screenshot source: Arab News

অর্থাৎ, গণমাধ্যমে প্রচারিত এই ছবিটি পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বর্ষণের ঘটনার নয়।

ছবি যাচাই ২ 

Screenshot source: Facebook

পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বৃষ্টির ঘটনার বিষয়ে জানিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই ছবিটি ব্যবহার করেছে চ্যানেল২৪, সময় টিভি, ডিবিসি নিউজ, ডেইলি সান, ইত্তেফাক, দেশ রূপান্তর, মানবজমিন, বাংলাদেশ প্রতিদিন, সময়ের আলো, বাংলানিউজ২৪, বাংলাদেশ জার্নাল, এশিয়ান টিভি, ডেইলি মেসেঞ্জার, নিউজনাউ২৪।

কিন্তু ছবিটি উক্ত ঘটনার নয়। 

অনুসন্ধানে দেখা যায়, দেশের একাধিক গণমাধ্যমে উক্ত ছবিটির সূত্র হিসেবে আল জাজিরায় নাম উল্লেখ রয়েছে। 

পরবর্তীতে কাতার ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম Al Jazeera এর ওয়েবসাইটে গত ১০ জুন প্রকাশিত পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বর্ষণের ঘটনার বিষয়ে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে আলোচিত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

আল জাজিরা তাদের প্রতিবেদনে এই ঘটনার বিষয়ে একটি ভিডিও যুক্ত করেছে যার থাম্বনেইলে উক্ত ছবিটি দেখা যাচ্ছে।  কিন্তু ছবিটি ঠিক কোন ঘটনা বা সময়ের সে বিষয় উল্লেখ করেনি সংবাদমাধ্যমটি। ফলে স্বাভাবিকভাবেই ছবিটি সাম্প্রতিক সময়ের বলে প্রতীয়মান হবে যে কারো কাছে।

Screenshot source: Al Jazeera 

এ বিষয়ে তাই আরো অনুসন্ধান করে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম Reuters এর ওয়েবসাইটে ২০২২ সালের ২৭ আগস্ট প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে একই ছবি খুঁজে পায় রিউমর স্ক্যানার টিম। 

রয়টার্স ছবির ক্যাপশনে লিখেছে, সেসময় পাকিস্তানে বন্যায় এক ব্যক্তিকে সাঁতার কাটতে দেখা যায় যার ছবি রয়টার্সের পক্ষে তুলেছেন ফায়াজ আজিজ। 

Screenshot source: Reuters 

অর্থাৎ, গণমাধ্যমে প্রচারিত এই ছবিটি পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বর্ষণের ঘটনার নয়।

ছবি যাচাই ৩

পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বৃষ্টির ঘটনার বিষয়ে জানিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই ছবিটি ব্যবহার করেছে ভোরের কাগজ, আমাদের বার্তা। 

Screenshot source: Bhorer Kagoj

কিন্তু ছবিটি উক্ত ঘটনার নয়। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধান করতে গিয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম Voice of America এর ওয়েবসাইটে ২০১৩ সালের ০৫ আগস্ট প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে আলোচিত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

ছবিটির ক্যাপশন থেকে জানা যায়, ২০১৩ সালের ০৪ আগস্ট রয়টার্স কর্তৃক তোলা ছবিটি পাকিস্তানের সেসময়ের বন্যার দৃশ্য তুলে ধরা হয়েছে। 

Screenshot source: VoA

অর্থাৎ, গণমাধ্যমে প্রচারিত এই ছবিটি পাকিস্তানের প্রায় দশ বছর পুরোনো ঘটনার দৃশ্য। 

ছবি যাচাই ৪ 

Screenshot source: Freedom Bangla News 

পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বৃষ্টির ঘটনার বিষয়ে জানিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই ছবিটি ব্যবহার করেছে জাগোনিউজ২৪ (ইউটিউব), ফ্রিডম বাংলা নিউজ, মত ও পথ, ডেল্টা টাইমস। 

কিন্তু ছবিটি উক্ত ঘটনার নয়। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে রয়টার্সের ওয়েবসাইটে ২০২২ সালের ২৯ আগস্ট প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

সে বছরের ২৮ আগস্ট আমের হোসেনের তোলা ছবিটিতে দেখা যায়, সেমসয় পাকিস্তানের বন্যায় মানুষ ঘর থেকে বেরিয়ে চারপাশের পরিবেশ পর্যবেক্ষণ করছে। 

Screenshot source: Reuters 

অর্থাৎ, গণমাধ্যমে প্রচারিত এই ছবিটি বছরখানেকের পুরোনো। 

ছবি যাচাই ৫

Screenshot source: Dainik Amader Somoy 

পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বৃষ্টির ঘটনার বিষয়ে জানিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই ছবিটি ব্যবহার করেছে দৈনিক আমাদের সময়, সময়ের কণ্ঠস্বর

ছবিটির বিষয়ে অনুসন্ধানে ছবি শেয়ারিং এবং স্টোরেজ সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান Getty Images এর ওয়েবসাইটে উক্ত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

উক্ত পাতা থেকে জানা যায়, পাকিস্তানে গত বছরের আগস্টে বন্যার ঘটনার সময়ের ছবি এটি, যা তুলেছেন শহীদ সায়েদ মির্জা। 

Screenshot source: Getty Images 

অর্থাৎ, গণমাধ্যমে প্রচারিত এই ছবিটি বছরখানেকের পুরোনো। 

ছবি যাচাই ৬

Screenshot source: Business Post

পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বৃষ্টির ঘটনার বিষয়ে জানিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই ছবিটি ব্যবহার করেছে বিজনেস পোস্ট

কিন্তু ছবিটি উক্ত ঘটনার নয়। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে মার্কিন সংবাদমাধ্যম Bloomberg এর ওয়েবসাইটে ২০২২ সালের ২৮ আগস্ট প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে উক্ত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

ব্লুমবার্গ বলছে, সেসময় পাকিস্তানের পাঞ্জাব জেলার বন্যায় মানুষকে উদ্ধারের দৃশ্য ছিল এটি। 

আরেক মার্কিন সংবাদমাধ্যম Associated Press (AP) এর পক্ষে ২৭ আগস্ট ছবিটি তোলেন আসিম তানভীর। 

Screenshot source: Bloomberg 

অর্থাৎ, গণমাধ্যমে প্রচারিত এই ছবিটি এক বছর পুরোনো। 

ছবি যাচাই ৭

Screenshot source: News24

পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বৃষ্টির ঘটনার বিষয়ে জানিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই ছবিটি ব্যবহার করেছে নিউজ২৪, আজকালের খবর

একই ছবি পাকিস্তানের বালুচিস্তানে এপ্রিলের বন্যার খবরে প্রচার করেছে যমুনা টিভি, বায়ান্ন টিভি। 

কিন্তু ছবিটি উক্ত দুই ঘটনার নয়। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে মূল ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায় গেটি ইমেজেসে। 

গেটি ইমেজেসের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ২০২২ সালের ০৫ জুলাই পাকিস্তানের এই ছবিটি এএফপির পক্ষে তুলেছিলেন বানারাশ খান। 

সেসময় দেশটিতে বর্ষার প্রবল বৃষ্টিতে বাড়িঘরও ক্ষতিগ্রস্ত হয় যা বাসিন্দাদের কর্তৃক পরিষ্কার করার দৃশ্য এটি।  

Screenshot source: Getty Images 

অর্থাৎ, গণমাধ্যমে প্রচারিত এই ছবিটি সাম্প্রতিক সময়ের নয়। 

ছবি যাচাই ৮

Screenshot source: Channel I

পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বৃষ্টির ঘটনার বিষয়ে জানিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই ছবিটি ব্যবহার করেছে চ্যানেল আই

কিন্তু ছবিটি উক্ত ঘটনার নয়। 

ছবিটির বিষয়ে অনুসন্ধানে ছবি শেয়ারিং এবং স্টোরেজ সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান Alamy এর ওয়েবসাইটে উক্ত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

উক্ত পাতা থেকে জানা যায়, পাকিস্তানের পেশোয়ার থেকে ২০২০ সালের ০৭ মার্চ ছবিটি তুলেছিল মার্কিন প্রকাশনা সংস্থা Pacific Press Agency। 

Screenshot source: Alamy

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম Geo Tv বলছে, সেসময় দেশটিতে প্রবল বৃষ্টিপাতের কারণে ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার দৃশ্য এটি।   

অর্থাৎ, গণমাধ্যমে প্রচারিত এই ছবিটি বছরখানেক আগে ভিন্ন ঘটনার দৃশ্য।

ছবি যাচাই ৯

Screenshot source: BSS

পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বৃষ্টির ঘটনার বিষয়ে জানিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই ছবিটি ব্যবহার করেছে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস), কালের কণ্ঠ

কিন্তু ছবিটি উক্ত ঘটনার নয়। 

ছবিটির বিষয়ে অনুসন্ধানে Associated Press (AP) এর ওয়েবসাইটে উক্ত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

এপি বলছে, পাকিস্তানে গত বছরের জুলাইয়ে প্রবল বৃষ্টিতে রাস্তা ডুবে যাওয়ার ঘটনার সময়ের ছবি এটি, যা তুলেছেন ফরিদ খান। 

Screenshot source: AP

অর্থাৎ, গণমাধ্যমে প্রচারিত এই ছবিটি সাম্প্রতিক সময়ের নয়। 

ছবি যাচাই ১০

Screenshot source: Jugantor 

পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বৃষ্টির ঘটনার বিষয়ে জানিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই ছবিটি ব্যবহার করেছে যুগান্তর, ইত্তেফাক।

কিন্তু ছবিটি উক্ত ঘটনার নয়। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে রয়টার্সের ওয়েবসাইটে ২০২২ সালের ১০ জুলাই প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে উক্ত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

রয়টার্স জানিয়েছে, পাকিস্তানে গত বছরের জুলাইয়ে ভারী বৃষ্টি থেকে সৃষ্ট বন্যার ঘটনার সময়ের ছবি এটি, যা তুলেছেন আক্তার সোম্রো। 

Screenshot source: Reuters 

অর্থাৎ, গণমাধ্যমে প্রচারিত এই ছবিটিও সাম্প্রতিক সময়ের নয়। 

ছবি যাচাই ১১

Screenshot source:, Ekattor Tv

পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বৃষ্টির ঘটনার বিষয়ে জানিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই ছবিটি ব্যবহার করেছে একাত্তর টিভি।

কিন্তু ছবিটি উক্ত ঘটনার নয়। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে Getty Images এর ওয়েবসাইটে উক্ত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

উক্ত পাতা থেকে জানা যায়, পাকিস্তানের লাহোরে ২০২১ সালের সেপ্টেম্বরে অতিবৃষ্টি থেকে সৃষ্ট বন্যার ঘটনার সময়ের ছবি এটি। 

Screenshot source: Getty Images 

অর্থাৎ, গণমাধ্যমে প্রচারিত এই ছবিটি প্রায় দুই বছরের পুরোনো।

ছবি যাচাই ১২

Screenshot source: Daily Sun

পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বৃষ্টির ঘটনার বিষয়ে জানিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই ছবিটি ব্যবহার করেছে ডেইলি সান। 

কিন্তু ছবিটি উক্ত ঘটনার নয়। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে Getty Images এর ওয়েবসাইটে উক্ত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot source: Getty Images

উক্ত পাতা থেকে জানা যায়, পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশে ২০২২ সালের আগস্টে অতিবৃষ্টি থেকে সৃষ্ট বন্যার ঘটনার সময়ের ছবি এটি।

গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে আলোচিত ছবিগুলোর ক্যাপশনে ফাইল ফটো বা পুরনো ঘটনার ছবি শীর্ষক কোনো তথ্য দেওয়া হয়নি। বরং কিছু গণমাধ্যম ছবিগুলো সংগৃহিত, কেউ-বা ছবিসূত্র হিসেবে বিদেশী গণমাধ্যমের নাম উল্লেখ করেছে। কতিপয় গণমাধ্যম ছবির ক্যাপশনে কিছুই লিখে নি। সাম্প্রতিক ঘটনার বিষয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে ছবিগুলো ব্যবহার করে সংগৃহিত উল্লেখ, বিদেশী গণমাধ্যমের নাম উল্লেখ কিংবা কোনো তথ্যই উল্লেখ না থাকায় স্বাভাবিকভাবে ছবিগুলো পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বর্ষণের ঘটনার বলে প্রতীয়মান হয়। এতে করে নেটিজেনদের মধ্যে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হওয়া অমূলক নয়।  

মূলত, গত ১০ জুন পাকিস্তানে ভারী বৃষ্টির ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় কতিপয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে পাকিস্তানের পুরোনো ও ভিন্ন ঘটনার ছবি ব্যবহার করে সাম্প্রতিক ঘটনার ছবি দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে। প্রতিবেদনগুলোতে আলোচিত ছবিগুলোর ক্যাপশনে ফাইল ফটো বা পুরনো ঘটনার ছবি শীর্ষক কোনো তথ্যও দেওয়া হয়নি। এতে করে স্বাভাবিকভাবে ছবিগুলো পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ভারী বর্ষণের ঘটনার বলে প্রতীয়মান হয়, যা বিভ্রান্তির জন্ম দিয়েছে। 

সুতরাং, সম্প্রতি পাকিস্তানে ভারী বর্ষণের ঘটনায় গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদে একাধিক পুরোনো ঘটনার ছবিকে সাম্প্রতিক দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে; যা বিভ্রান্তিকর। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img