‘বাংলাদেশ থেকে আর্জেন্টিনা যেতে ভিসার প্রয়োজন নেই’ শীর্ষক তথ্যটি বিভ্রান্তিকর

সম্প্রতি “বাংলাদেশ ও আর্জেন্টিনা ভিসা অব্যাহতি চুক্তি সই আর্জেন্টিনা যেতে প্রয়োজন নেই ভিসার” শীর্ষক শিরোনামে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ
Screenshot from Facebook.

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানেএখানে। আর্কাইভ  দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানেএখানে

Screenshot from TikTok.

টিকটকে প্রচারিত এমন কিছু ভিডিও দেখুন এখানে, এখানেএখানে। আর্কাইভ দেখুন এখানে, এখানেএখানে

একই দাবিটি পাসপোর্টের ভুল ছবি দিয়েও বিভিন্ন পেইজে প্রচার করা হয়। এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানেএখানে। আর্কাইভ দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানেএখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, আর্জেন্টিনা যেতে বাংলাদেশিদের ভিসার না লাগার দাবিটি সঠিক নয় বরং দুই দেশের কূটনৈতিক ও অফিসিয়াল পাসপোর্টধারীরা এই সুবিধা পাবে। কিন্তু সাধারণ পাসপোর্টে আর্জেন্টিনা যেতে ভিসার প্রয়োজন হবে।

কি-ওয়ার্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে মূলধারার অনলাইন পোর্টাল Dhaka Post এ গত ২৭ ফেব্রুয়ারি “আর্জেন্টিনা যেতে ভিসা লাগবে না যাদের” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot Source: Dhaka Post

প্রতিবেদনটি থেকে জানা যায়, কূটনৈতিক এবং অফিসিয়াল পাসপোর্টে ভিসা অব্যাহতি চুক্তি সই ক‌রে‌ছে বাংলা‌দেশ ও আর্জেন্টিনা। ‌এর ফলে অফিসিয়াল পাসপোর্ট ও কূটনীতিকদের আর্জেন্টিনা যেতে ভিসা লাগবে না। ২৭ ফেব্রুয়ারি রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মো‌মেন ও আর্জেন্টিনার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সান্তিয়াগো ক্যাফিয়েরো নিজ নিজ দে‌শের প‌ক্ষে এ চু‌ক্তিতে স্বাক্ষর ক‌রেন।

এটি ছাড়াও বাংলাদেশের একাধিক মূলধারার গণমাধ্যম সূত্রে একই তথ্য সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যে, বাংলাদেশ থেকে আর্জেন্টিনা যেতে কূটনৈতিক-অফিসিয়াল পাসপোর্টধারীদের কোনো ভিসা লাগবে না। মূলধারার একাধিক গণমাধ্যমে এ সম্পর্কিত সংবাদ দেখুন ‘ ভিসা ছাড়াই আর্জেন্টিনা যেতে পারবেন যারা (দেশ রূপান্তর), আর্জেন্টিনা যেতে যাদের ভিসা লাগবে না (যুগান্তর), আর্জেন্টিনা যেতে যাদের ভিসা লাগবে না (মানবকণ্ঠ)।

Screenshot Source: Desh Rupantor

এসব প্রতিবেদন থেকে নিশ্চিত হওয়া যায় যে, কূটনৈতিক এবং অফিসিয়াল পাসপোর্টে ভিসা অব্যাহতি চুক্তি সই ক‌রে‌ছে বাংলা‌দেশ ও আর্জেন্টিনা। ‌এর ফলে অফিসিয়াল পাসপোর্ট ও কূটনীতিকদের আর্জেন্টিনা যেতে ভিসা লাগবে না। তবে এর বাইরে সাধারণ পাসপোর্টধারীদের বাংলাদেশ থেকে আর্জেন্টিনা যেতে  ভিসা লাগবে৷

আর্জেন্টিনা যেতে ভিসার প্রয়োজন নেই দাবিতে পাসপোর্টের ভুল ছবি প্রচার

অনুসন্ধানে দেখা যায়, বাংলাদেশিদের জন্য তিন ধরনের পাসপোর্ট চালু আছে। 

Screenshot Source: BBC Bangla

এর মধ্যে অফিসিয়াল পাসপোর্ট হচ্ছে সরকারি কাজে কোনো কর্মকর্তা বা কর্মচারী যখন দেশের বাইরে ভ্রমণ করে তখন এই পাসপোর্ট ব্যবহার করে। এ পাসপোর্ট করার জন্য সংশ্লিষ্ট সরকারি অফিসের অনুমোদন বা গভর্নমেন্ট অর্ডার (জিও) প্রয়োজন হয়। এ ধরনের পাসপোর্ট নীল রঙের হয়ে থাকে।

Screenshot Source: BBC Bangla

অপরদিকে রাষ্ট্রপ্রধান, প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রিসভার সদস্য, সংসদ সদস্য এবং তাদের স্পাউস অর্থাৎ স্বামী বা স্ত্রী যে ধরনের পাসপোর্ট ব্যবহার করে সেগুলোকে লাল পাসপোর্ট বলা হয়। উল্লেখিত ব্যক্তিবর্গ ছাড়াও এই পাসপোর্ট ব্যবহার করতে পারেন উচ্চতর আদালতের বিচারপতি, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, পাবলিক সার্ভিস কমিশনের প্রধান, মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং বিদেশে বাংলাদেশি মিশনের কর্মকর্তারা লাল পাসপোর্ট পান। এই পাসপোর্ট যাদের আছে, তাদের বিদেশ ভ্রমণের জন্য কোনো ভিসা প্রয়োজন হয় না। তারা সংশ্লিষ্ট দেশে অবতরণের পর অন-অ্যারাইভাল ভিসা পান।

Screenshot Source: BBC Bangla

বাংলাদেশের সাথে আর্জেন্টিনার ভিসা অব্যাহতি চুক্তির আওতায় এই দুই ধরনের(নীল-লাল) পাসপোর্টধারীদের ভিসার প্রয়োজন হবে না।

এই দুই ধরনের পাসপোর্টের বাইরে জন্ম ও বৈবাহিক উভয় সূত্রে বাংলাদেশের সব নাগরিকের জন্য আরেক ধরনের পাসপোর্ট আছে যেটা সবুজ রঙের। এই রঙের পাসপোর্টে বিদেশে গমনের জন্য সংশ্লিষ্ট দেশের ভিসার প্রয়োজন হয়। 

Screenshot Source: BBC Bangla

কিন্তু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের এই সংক্রান্ত পোস্টগুলোতে এই সবুজ পাসপোর্টের ছবি প্রচার করে দাবি করা হচ্ছে, ”বাংলাদেশ ও আর্জেন্টিনা ভিসা অব্যাহতি চুক্তি সই আর্জেন্টিনা যেতে প্রয়োজন নেই ভিসার।”

Screenshot from Facebook.

মূলত, গত ২৭ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন এবং আর্জেন্টিনার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সান্তিয়াগো আন্দ্রেস ক্যাফিয়েরো বেশ কয়েকটি  চুক্তি স্বাক্ষর করেন। এর মধ্যে ছিল বাংলাদেশ ও আর্জেন্টিনা ভিসা অব্যাহতি চুক্তি। এই চুক্তির আওতায় কূটনৈতিক ও অফিসিয়াল পাসপোর্টে আর্জেন্টিনা যেতে ভিসা লাগবে না।  ভিসা অব্যাহতি চুক্তির এই বিষয়টিকেই পরবর্তীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘বাংলাদেশ ও আর্জেন্টিনা ভিসা অব্যাহতি চুক্তি সই আর্জেন্টিনা যেতে প্রয়োজন নেই ভিসার।’ দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে। তবে রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে দেখা যায়, কূটনৈতিক ও অফিসিয়াল পাসপোর্ট ছাড়া সবুজ পাসপোর্টে আর্জেন্টিনা যেতে ভিসার প্রয়োজন হবে। 

সুতরাং, বাংলাদেশ ও আর্জেন্টিনা ভিসা অব্যাহতি চুক্তি সই আর্জেন্টিনায় যেতে ভিসার প্রয়োজন নেই দাবিতে প্রচারিত তথ্যটি বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img