ধর্ষণে অভিযুক্তের পক্ষে উকিলের আইনি সহায়তা নিয়ে ডা. দীপু মনির নামে ভুয়া মন্তব্য প্রচার

বেশ কয়েকবছর ধরে “যে দেশে ধর্ষকের পক্ষে উকিল পাওয়া যায়, সে দেশ ধর্ষণ মুক্ত হবে কি করে?”- শীর্ষক একটি মন্তব্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রী ডা. দীপু মনির দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হয়ে আসছে।

সম্প্রতি ফেসবুকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

টিকটকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

২০২২ সালে ফেসবুকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

২০২১ সালে ফেসবুকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

২০২০ সালে ফেসবুকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

২০১৯ সালে ফেসবুকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্তের পক্ষে উকিলদের আইনি সহায়তা নিয়ে সমাজকল্যাণ মন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমন কোনো মন্তব্য করেননি বরং কোনো রকম তথ্যসূত্র ছাড়াই সম্পূর্ণ ভিত্তিহীনভাবে তার নামে উক্ত মন্তব্যটি প্রচার হয়ে আসছে।

ডা. দীপু মনি কি আসলেই এমন মন্তব্য করেছিলেন?

এই প্রশ্নের উত্তর জানতে অনুসন্ধানে মূলধারার গণমাধ্যম ও দীপু মনির ভেরিফাইড ফেসবুক আইডি পর্যবেক্ষণ করে আলোচিত দাবির সপক্ষে কোনো তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি।

ফেসবুকে উক্তিটি প্রথম কখন পাওয়া যায়?

হুবহু না হলেও ২০১৭ সালের ৩১ মে মুস্তাফিজুর রহমান সাবায়েত নামের একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে করা একটি পোস্ট খুঁজে (আর্কাইভ) পাওয়া যায়। 

পোস্টে তিনি লিখেন, “যে দেশে ধর্ষকের পক্ষে আইনজীবী পাওয়া যায়।”
বুঝতে হবে সে দেশ ‘বাজারী’ হয়ে গেছে। 
বুঝতে হবে এটা একটা চুতিয়া রাষ্ট্র।

Screenshot: Facebook

অনুসন্ধানে ফেসবুকে ম্যানুয়ালি সার্চের মাধ্যমে ২০১৯ সালের জুলাই মাসে হুবহু একই বক্তব্যটি দীপু মনির নামে প্রচার হতে দেখা যায়। 

 এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

Screenshot: Facebook 

সেসময় চাঁদপুরের স্থানীয় সাংবাদিক Rifat Kanti Sen এক ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে আলোচিত উক্তিটি দীপু মনির নয় জানিয়ে বলেন, “মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রীর সাথে যোগাযোগ করে জেনেছি এই ধরণের কোন বক্তব্য তিনি প্রদান করেননি। শিক্ষা মন্ত্রীর নামে ভূয়া আইডি থেকে এসব তথ্য ছড়ানো হচ্ছে। অনুগ্রহ পূর্বক এ ধরনের প্রচারণা থেকে বিরত থাকবেন।”

Screenshot: Facebook 

পরবর্তীতে একই বছর ডা. দীপু মনি ছাড়াও একই মন্তব্যটি বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা তাহসিনা রুশদীর লুনার মন্তব্য দাবিতেও প্রচার হতে দেখে রিউমর স্ক্যানার টিম।

তাহসিনা রুশদীর লুনার মন্তব্য দাবিতে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

Screenshot: Facebook

তবে এই দাবি সপক্ষেও কোনো তথ্য প্রমাণ খুঁজে পাওয়া যায়নি।

অর্থাৎ, সর্বপ্রথম আলোচিত মন্তব্যটি কে করেছেন সেই বিষয়ে নির্দিষ্ট কোনো তথ্য খুঁজে পাওয়া গেলেও এটি নিশ্চিত যে এটি দীপু মনির বক্তব্য নয়।

মূলত, সম্প্রতি সমাজকল্যাণ মন্ত্রী ডা. দীপু মনির নামে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে “যে দেশে ধর্ষকের পক্ষে উকিল পাওয়া যায়, সে দেশ ধর্ষণ মুক্ত হবে কি করে?” শীর্ষক একটি মন্তব্য প্রচার করা হচ্ছে। এ নিয়ে অনুসন্ধানে দেখা যায়, অন্তত  প্রায় ৪ বছর আগে থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ডা. দীপু মনির নামে মন্তব্যটি প্রচার করা হলেও তিনি এই মন্তব্য কবে, কোথায় করেছেন তার কোনো সূত্র উল্লেখ নেই। ২০১৯ সালে আলোচিত মন্তব্যটি দীপু মনির নামে ছড়িয়ে পড়লে সেসময় চাঁদপুরের এক স্থানীয় সাংবাদিক দীপু মনির সাথে কথা বলে এই মন্তব্য নয় বলে এক ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে নিশ্চিত করেন। এছাড়া ২০১৯ সালে একই মন্তব্যটি বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা তাহসিনা রুশদীর লুনার দাবিতেও প্রচার করা হয়েছিল। তবে এই দাবির পক্ষেও কোনো তথ্যপ্রমাণ উপস্থাপন করা হয়নি।

সুতরাং, যে দেশে ধর্ষকের পক্ষে উকিল পাওয়া যায়, সে দেশ ধর্ষণ মুক্ত হবে কি করে?- শীর্ষক মন্তব্য সমাজকল্যাণ মন্ত্রী ডা. দীপু মনির দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

  • Dipu Moni- Facebook Page
  • Mustafizur Rahman Sabayat- Facebook Post 
  • Rifat Kanti Sen- Facebook Post 
  • Rumor Scanner’s Own Analysis 
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img