শনিবার, জুলাই 20, 2024
spot_img

যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা পাওয়ার লোভে শান্ত ম্যাচ ফিক্সিং করেছেন শীর্ষক কোনো মন্তব্য তাওহীদ হৃদয় করেননি

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র জাতীয় পুরুষ ক্রিকেট দলের বিপক্ষে সে দেশের মাটিতে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ জাতীয় পুরুষ ক্রিকেট দল। যার মধ্যে শেষ ম্যাচ জিতলেও প্রথম দুই ম্যাচ হেরে সিরিজ হাতছাড়া করেছে নাজমুল হোসেন শান্তর দল। এরই প্রেক্ষিতে গত ২২ মে শর্ট ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটকে দাবি প্রচার করা হচ্ছে, জাতীয় দলের ক্রিকেটার তাওহীদ হৃদয় বলেছেন, নাগরিক ভিসা পাওয়ার লোভে ম্যাচ ফিক্সিং করেছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। 

উক্ত দাবিতে টিকটকে প্রচারিত ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)। 

এই প্রতিবেদনটি প্রকাশ হওয়া অবধি উক্ত ভিডিওটি ১ লক্ষ ২০ হাজারেরও অধিক বার দেখা হয়েছে এবং ৩ হাজারেরও অধিক পৃথক অ্যাকাউন্ট থেকে ভিডিওটিতে প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, আমেরিকার নাগরিক ভিসা পাওয়ার লোভে শান্ত ম্যাচ ফিক্সিং করেছেন শীর্ষক কোনো মন্তব্য তাওহীদ হৃদয় করেননি বরং আলোচিত দাবিতে প্রচারিত হৃদয়ের ফুটেজটি পুরোনো যা ২০২৩ সালে সিলেটে অনুষ্ঠিত হওয়া আফগানিস্তান ও বাংলাদেশের মধ্যকার টি২০ সিরিজের ১ম টি২০ ম্যাচের ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনের দৃশ্যের ফুটেজ। 

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটিতে ব্যবহৃত তাওহীদ হৃদয়ের ফুটেজের কিছু কী-ফ্রেম রিভার্স ইমেজ সার্চ করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের অফিশিয়াল ইউটিউব চ্যানেল Bangladesh Cricket : The Tigers এ ১৪ জুলাই ২০২৩ সালে “Post-match press conference | Tawhid Hridoy, Bangladesh | 1st T20i” শিরোনামে প্রচারিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। যার একটি অংশের সাথে আলোচিত ফুটেজটির মিল রয়েছে।

Comparison : Rumor Scanner

উক্ত ভিডিওটিতে তাওহীদ হৃদয় ম্যাচ চলাকালীন সতীর্থদের সাথে নিজের আলোচনা ও আত্মবিশ্বাসের বিষয় ব্যক্ত করেন। নিজের সতীর্থ শামীমকে বলা নিজের আত্মবিশ্বাসের কথা জানিয়ে হৃদয় বলেন, ‘শামীমকে একটি কথাই বলেছিলাম, এরকম ম্যাচ আমরা অনেক জিতিয়েছি।’ পুরো ভিডিওতে তাওহীদ হৃদয় নিজের আত্মবিশ্বাস, ম্যাচ চলাকালীন পরিকল্পনা ও আলোচনা ইত্যাদি বিষয় সাংবাদিকদের সাথে শেয়ার করেন। কোথাও শান্তের ফিক্সিং বা আর কোনো সতীর্থের ফিক্সিংয়ের বিষয়েও কোনো মন্তব্য তিনি করেননি। 

উল্লেখ্য, ২০২৩ সালের ১৪ জুলাই সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ বনাম আফগানিস্তানের মধ্যকার প্রথম টি২০ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়৷ ১ বল হাতে রেখে উক্ত ম্যাচটি ২ উইকেটে জিতে নেয় বাংলাদেশ দল। উক্ত ম্যাচটির ম্যাচসেরা খেলোয়াড় ছিলেন তাওহীদ হৃদয় এবং ম্যাচশেষে অনুষ্ঠিত হওয়া সংবাদ সম্মেলনে উক্ত ভিডিওটি ধারণ করা হয়।

তাছাড়া, শান্তের ফিক্সিং বা অন্য কারোর ফিক্সিংয়ের বিষয়ে নির্ভরযোগ্য সূত্রে তাওহীদ হৃদয়ের কোনোরকম মন্তব্যের তথ্যপ্রমাণ খুঁজে পাওয়া যায়নি।

মূলত, সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত হওয়া তিন ম্যাচের টি২০ সিরিজে প্রথম দুই ম্যাচ হেরে সিরিজ হারায় বাংলাদেশ দল। এরই প্রেক্ষিতে ২০২৩ সালে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হওয়া বাংলাদেশ বনাম আফগানিস্তানের মধ্যকার ১ম টি২০ ম্যাচের ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনের তাওহীদ হৃদয়ের ভিডিও ফুটেজ সংযুক্ত করে দাবি প্রচার করা হচ্ছে, তাওহীদ হৃদয় জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক ভিসা পাওয়ার লোভে ম্যাচ ফিক্সিং করেছেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। কিন্তু রিউমর স্ক্যানার যাচাই করে দেখেছে, শান্তর বিষয়ে এমন কোনো মন্তব্য করেননি তাওহীদ হৃদয়।

সুতরাং, যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা পাওয়ার লোভে শান্ত ম্যাচ ফিক্সিং করেছেন দাবি করে তাওহীদ হৃদয় মন্তব্য করেছেন শীর্ষক দাবিটি মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img