বুধবার, ফেব্রুয়ারি 21, 2024
spot_img

টিকার দুই ডোজ নিয়ে ৪০ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঘটনাটি বাংলাদেশের নয়

সম্প্রতি ‘টিকার দুই ডোজ নিয়ে করোনায় আক্রান্ত ৪০ হাজার’ শীর্ষক শিরোনামে একটি তথ্য সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

ভাইরাল কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, উভয় ডোজ টিকা নেয়া সত্ত্বেও ৪০ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হওয়ার তথ্যটি ভারতের কেরালা রাজ্যের, বাংলাদেশের নয়।

মূলত, ১১ আগস্ট বুধবার ভারতের একাধিক গণমাধ্যমে দেশটির স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তাদের বরাতে দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কেরালায় করোনাভাইরাসের টিকার উভয় ডোজ সম্পূর্ণ করার পরও ৪০ হাজারের বেশি মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বলে সংবাদ প্রচারিত হয়।

পরবর্তীতে ভারতের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমকে সূত্র ধরে বাংলাদেশের একাধিক সংবাদমাধ্যমে খবরটি প্রচার করেছে। তবে বাংলাদেশের বেশকিছু ফেসবুক আইডি ও পেজে ভারত শব্দটি বাদ দিয়ে শুধুমাত্র শিরোনামের লেখাটি পোস্ট করার কারণে ঘটনাটি বাংলাদেশের মনে করে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে পড়ে।

টিকা নেয়ার পরও কি করোনা হতে পারে?

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের দ্বারা পরিচালিত ফ্যাক্ট-চেকার এবং সাংবাদিকদের একটি ফোরাম Health Desk এ গত ৮ জুলাই ২০২১ এ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, অনুমোদিত ভ্যাকসিনগুলি মানুষকে গুরুতর রোগ, হাসপাতালে ভর্তি এবং মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা করে। ভ্যাকসিন অসুস্থতা প্রতিরোধে ১০০% কার্যকর নয়। ভ্যাকসিন নেয়া অনেক মানুষ মনে করেন তারা একদম অনাক্রম্য। কিন্তু এতে Breakthrough infection বা সম্পূর্ণ ভ্যাকসিন ডোজ দেয়ার পরেও সংক্রমণ ঘটতে পারে এমন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

প্রতিবেদনটি পড়ুন এখানে

সেখানে আরো বলা হয়েছে, সিডিসির (Centers for Disease Control and Prevention) নির্দেশিকা অনুযায়ী ভ্যাকসিনেশনের সম্পূর্ণ কোর্সের ২ সপ্তাহ পরে শরীরে সুরক্ষা অনাক্রম্যতা তৈরি করে যা কমপক্ষে কয়েক মাস স্থায়ী হতে পারে এবং এই সুরক্ষা গুরুতর রোগ এবং মৃত্যু প্রতিরোধ সাহায্য করে।

এছাড়াও, সিডিসির গত ২ আগস্ট প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে দেখা যায়, যুক্তরাষ্ট্রে ১৬৪ মিলিয়নের বেশি সম্পূর্ণ ভ্যাকসিনেটেড লোকের মধ্যে মাত্র ৭,৫২৫ জন Breakthrough infection (Breakthrough infection বা সম্পূর্ণ ভ্যাকসিন ডোজ দেয়ার পরেও সংক্রমণ) এ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে এবং কিছু সংখ্যক লোক মারা গেছে।

প্রতিবেদনটি পড়ুন এখানে

সিডিসির সিনিয়র পাবলিক অ্যাফেয়ার্স অফিসার টম স্কিনার ২৩ জুলাই ফ্যাক্টচেকিং সংস্থা এএফপিকে বলেনঃ

কোভিড ভ্যাকসিন সংক্রমণ রোধে অত্যন্ত কার্যকর এবং গুরুতর অসুস্থতা প্রতিরোধে আরও বেশি কার্যকর। কিন্তু কোন ভ্যাকসিনই শতভাগ কার্যকর নয়।

প্রতিবেদনটি পড়ুন এখানে

অর্থাৎ, উভয় ডোজ টিকা নেয়ার পরও রোগটিতে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা স্বাভাবিক প্রক্রিয়া, তবে এটি গুরুতর অসুস্থ কিংবা মৃত্যুর ঝুঁকি কমায়।

ব্যবহারকারীদের বিভ্রান্ত হওয়ার নমুনাঃ

সর্বোপরি, পোস্টে ব্যবহৃত শিরোনামের ফলে ব্যবহারকারীদের মধ্যে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হওয়ায় রিউমর স্ক্যানার টিম বিষয়টিকে বিভ্রান্তিকর হিসেবে চিহ্নিত করেছে।

রিয়াজ আহমেদ নামের একজন ব্যবহারকারী লিখেছেনঃ

ব্রেকিং নিউজ
টিকার দুই ডোজ নিয়ে করোনায় আক্রান্ত ৪০ হাজার।
আর হ্যা এটাই হলো আমার বাংলাদেশ!!! 🙂
প্রিয়দর্শিনী পিউ নামের একজন লিখেছেনঃ
এটাই বাংলাদেশ আর এটাই সাইন্স🤣
যে টিকা নিয়ে কোনো লাভ নেই,সেই টিকা এতো যুদ্ধ করে নেওয়ার দরকার কি💔
খুরশেদুল সুমন নামের একজন লিখেছেনঃ
যারা করোনা টিকা নেওয়ার জন্য ধাক্কাধাক্কি করছে, তাদের এই নিউজটা দেখার দরকার আছে

সুতরাং, “টিকার দুই ডোজ নিয়েও করোনায় আক্রান্ত ৪০ হাজার” শীর্ষক শিরোনামে সামাজিক মাধ্যমে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ বিভ্রান্তিকর।

[su_box title=”True or False” box_color=”#f30404″ radius=”0″]

  • Claim Review: টিকার দুই ডোজ নিয়ে করোনায় আক্রান্ত ৪০ হাজার
  • Claimed By: Facebook Posts
  • Fact Check: Misleading

[/su_box]

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img