তিন মাসের মধ্যে পুনরায় নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার ভুয়া তথ্য ইউটিউবে 

গতকাল ০৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম ইউটিউবে “তিন মাসের মধ্যে পুনরায় নির্বাচনের ঘোষণা” শীর্ষক শিরোনাম এবং “তিন মাসের মধ্যে পুনরায় নির্বাচনের ঘোষণা, নির্বাচন সঠিক হয়নি” শীর্ষক থাম্বনেইলে একটি ভিডিও প্রচার করা হয়েছে। 

পুনরায় নির্বাচনের

ইউটিউবে প্রচারিত ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, তিন মাসের মধ্যে পুনরায় নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার দাবিটি সঠিক নয় এবং নির্বাচন কমিশন থেকে নির্বাচন সঠিক হয়নি শীর্ষক কোনো মন্তব্য করা হয়নি বরং অধিক ভিউ পাবার আশায় চটকদার শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে নির্ভরযোগ্য কোনো তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই আলোচিত ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে।

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, এটি ভিন্ন ভিন্ন ঘটনার কয়েকটি ভিডিও  এবং ছবি যুক্ত করে সম্পাদনার মাধ্যমে তৈরি একটি ভিডিও প্রতিবেদন যেখানে ভিডিওটির শুরুতেই কয়েকটি ভিডিও ক্লিপ দেখানো হয়। পরবর্তীতে ভিডিওটিতে আলোচিত দাবিটি প্রসঙ্গে তিনটি ভিডিও দেখানো হয়। 

ভিডিওটি’র সংবাদপাঠ অংশে বলা হয়, “হয়ে গেলো দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। কিন্তু যারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেনি বিএনপি সহ অন্যান্য দল তারা বলছে এই সংসদ ভেঙ্গে দিয়ে আবারো তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন দেওয়া কারণ তিন মাস এখনও সময় রয়েছে তা না হলে পরিনতি হবে ভয়াবহ এমন একটি নিউজ চলে এসেছে। চলুন আমরা ভিডিওটি দেখি..। ”

সংবাদপাঠ অংশে থাকা বিষয়গুলো নিয়ে অনুসন্ধানে মূলধারার গণমাধ্যম কিংবা সংশ্লিষ্ট অন্যকোনো নির্ভরযোগ্য সূত্রে আলোচিত দাবিটি’র সত্যতা পাওয়া যায়নি।

পরবর্তীতে উক্ত ভিডিওটিতে দেখানো ভিন্ন ভিন্ন ভিডিও ক্লিপের বিষয়ে পৃথকভাবে অনুসন্ধান চালায় রিউমর স্ক্যানার টিম।

ভিডিও যাচাই – ০১

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ভিডিওটিতে থাকা প্রথম ভিডিওটির অনুসন্ধানে দেশ টিভির লোগোর সূত্র ধরে প্রাসঙ্গিক কিওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে দেশ টিভির ইউটিউব চ্যানেলে আজ ৮ জানুয়ারি “নির্বাচন নিয়ে যা বললেন গনতন্ত্র মঞ্চের নেতারা। Zonayed Saki। Election News 2024” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। এই ভিডিওটির দুইটি অংশ আলোচিত দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটিতে যুক্ত করা হয়েছে। 

Video Comparison Rumor Scanner 

উক্ত ভিডিওতে গনতন্ত্র মঞ্চের নেতা জোনায়েদ সাকি সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দকে গতকাল ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে মতামত ব্যক্ত করতে দেখা যায়। 

ভিডিও যাচাই – ০২

দ্বিতীয় ভিডিওটিতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়ালের একটি ভিডিও দেখানো হয়। উক্ত ভিডিওটির অনুসন্ধানে কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে চ্যানেল ২৪ এর ইউটিউব চ্যানেলে গত ৭ জানুয়ারি “নির্বাচন যে গ্রহণযোগ্য হয়েছে সেটাতো আমি বলি নি: সিইসি | Election Update | Election News” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।  এই ভিডিওটির সাথে আলোচিত ভিডিও ক্লিপটির হুবহু মিল পাওয়া যায়।

Video Comparison : Rumor Scanner  

উক্ত ভিডিওতে কাজী হাবিবুল আউয়াল ভোট গ্রহণ শেষে ভোটের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে মতামত ব্যক্ত করেন। যেখানে তিনি ভোটের সার্বিক পরিবেশ পরিস্থিতি এবং নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে কিনা সে বিষয়ে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। তবে তিনি তার বক্তব্যের কোথাও তিন মাসের মধ্যে পুনরায় নির্বাচন হবে কিংবা নির্বাচন সঠিক হয়নি শীর্ষক কোনো মন্তব্য করেননি। 

ভিডিও যাচাই – ০৩ 

সর্বশেষ ভিডিওটির অনুসন্ধানে কিওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে গণ অধিকার পরিষদের একাংশের নেতা ‘Md Faruk Hasan’ এর ফেসবুক অ্যাকাউন্টে গতকাল ৭ জানুয়ারি প্রকাশিত একটি ভিডিও বার্তা খুঁজে পাওয়া যায়। এই ভিডিওটির একটি অংশ আলোচিত ভিডিওটিতে যুক্ত করা হয়েছে। 

Video Comparison : Rumor Scanner

উক্ত ভিডিওটিতে ফারুক হাসান গতকাল অনুষ্ঠিত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে নিজস্ব মতামত ব্যক্ত করেন। ভিডিওটিতে কোথাও তিন মাসের মধ্যে পুনরায় নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করার দাবির বিষয়ে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

পাশাপাশি, কি ওয়ার্ড সার্চ করে মূলধারার কোনো গণমাধ্যমে আলোচিত দাবিটি প্রসঙ্গে কোনো তথ্য বা সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

মূলত, গতকাল ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এরই প্রেক্ষিতে  “তিন মাসের মধ্যে পুনরায় নির্বাচনের ঘোষণা, নির্বাচন সঠিক হয়নি” শীর্ষক দাবিতে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়। তবে রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে পুনরায় নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা এবং নির্বাচন সঠিক না হওয়া সংক্রান্ত দাবির বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। অধিক ভিউ পাবার আশায় চটকদার শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে নির্ভরযোগ্য কোনো তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই আলোচিত ভিডিওটি প্রচার করা হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে তিন মাসের মধ্যে পুনরায় নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা সংক্রান্ত কোনো ঘটনা ঘটেনি। 

সুতরাং, তিন মাসের মধ্যে পুনরায় নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা শীর্ষক দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচারিত তথ্যটি মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img