শুক্রবার, জুলাই 26, 2024
spot_img

কুবিতে রমজানে ইফতার পার্টি নিষিদ্ধ হয়নি, উপাচার্যের নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে অপপ্রচার

গত ২৮ ফেব্রুয়ারি রমজানে সরকারিভাবে বড় করে ইফতার পার্টি উদ্‌যাপন না করার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর প্রেক্ষিতে গতকাল, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইফতার পার্টি নিষিদ্ধ করা হলো”- শীর্ষক একটি তথ্য কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈনের নাম এবং ছবি যুক্ত একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট করা হয়েছে। 

ইফতার পার্টি

ফেসবুকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইফতার পার্টি নিষিদ্ধের কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈনও এমন কোনো পোস্ট ফেসবুকে দেননি বরং উপাচার্যের নাম এবং ছবি ব্যবহার করে একটি ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে উক্ত পোস্ট করা হয় যার মাধ্যমে উক্ত বিষয়ে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইফতার পার্টি নিষেধাজ্ঞা সংক্রান্ত উপাচার্যের কথিত পোস্টটির বিষয়ে একাধিক গণমাধ্যমে (বাংলা ট্রিবিউন, জুম বাংলা, প্রতিদিনের বাংলাদেশ) এ সংক্রান্ত সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়৷

উক্ত সংবাদগুলো থেকে জানা যাচ্ছে, উপাচার্যের নামে পোস্টকারী ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈনের নয়। 

এই তথ্যগুলোর সূত্র ধরে ড. এ এফ এম আবদুল মঈনের মূল ফেসবুক অ্যাকাউন্টটির সন্ধান মিলেছে। এই অ্যাকাউন্টে গতরাতে তিনি একটি লাইভ ভিডিও (আর্কাইভ) প্রচার করেছেন। 

ভিডিওতে তাকে বলতে শোনা যায়, ‘বিশ্ববিদ্যালয়কে অস্থিতিশীল করতে আমার নাম ও ছবি ব্যবহার করে একটি ফেক আইডি থেকে ভুয়া তথ্য ছড়াচ্ছিল। আমি ইতোমধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে কথা বলেছি। কাল থানায় জিডিসহ অন্যান্য আইনি সাহায্য নেবো।’

তাছাড়া, লাইভ ভিডিও প্রকাশের পূর্বে আরো একটি পোস্টেও (আর্কাইভ) তিনি জানান, “সতর্কীকরণ: সংশ্লিষ্ট সকলের জন্য একটি বিজ্ঞপ্তি যে কিছু দুর্বৃত্ত আমার পরিচয় চুরি করে এবং আমার নামে একটি ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলেছে।”

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে চলতি রমজানে ইফতার পার্টি সংক্রান্ত কোনো নির্দেশনা রয়েছে কিনা এমন প্রশ্নে বিশ্ববিদ্যালয়টির রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মো: আমিরুল হক চৌধুরী রিউমর স্ক্যানারকে জানান, ইফতার পার্টি সংক্রান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। 

মূলত, গতকাল ১২ মার্চ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈনের নাম এবং ছবি যুক্ত একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে “মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইফতার পার্টি নিষিদ্ধ করা হলো”- শীর্ষক একটি তথ্য পোস্ট করা হয়। তবে রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, রমজানে ইফতার পার্টি নিষেধাজ্ঞা সংক্রান্ত কোনো সিদ্ধান্ত কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন নেয়নি এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈনও এ সংক্রান্ত কোনো পোস্ট করেননি। প্রকৃতপক্ষে, উপাচার্য অধ্যাপক ড. মঈনের নাম এবং ছবি যুক্ত করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভুয়া অ্যাকাউন্ট খুলে ভুয়া এই তথ্যটি প্রচার করা হয়। 

সুতরাং, রমজানে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইফতার পার্টি নিষিদ্ধ সংক্রান্ত কথিত তথ্য  বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে পোস্ট করেছেন দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং উক্ত ফেসবুক অ্যাকাউন্টটিও ভুয়া। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img