শুক্রবার, জুলাই 26, 2024
spot_img

গাছের মাথায় ইব্রাহিম রাইসির পাগড়ি পাওয়া গেছে দাবিতে এডিটেড ছবি প্রচার

গত ১৯ মে আজারবাইজানের সীমান্তবর্তী এলাকায় দুই দেশের যৌথভাবে নির্মিত একটি বাঁধ উদ্বোধন করতে যান ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি। সেখান থেকে তাবরিজে ফেরার পথে আজারবাইজানের জোলফা এলাকার নিকটবর্তী দুর্গম পাহাড়ে ইরানী প্রেসিডেন্টকে বহনকারী হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়। পরবর্তীতে দেশটির গণমাধ্যম তার এবং একই হেলিকপ্টারে অবস্থানকারী বাকি সকল আরোহীর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন।

এর প্রেক্ষিতে ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির মাথার পাগড়ি গাছের মাথায় আটকে আছে দাবিতে একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ),  এখানে (আর্কাইভ),  এখানে (আর্কাইভ),  এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

টিকটকে প্রচারিত এমন পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত ইরানী প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির পাগড়ি গাছের মাথায় পাওয়ার দাবিটি সঠিক নয়। প্রকৃতপক্ষে, উন্মুক্ত বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়ার রেডউড গাছ সম্পর্কিত একটি প্রতিবেদনে ব্যবহৃত পুরোনো গাছের ছবি ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনার মাধ্যমে আলোচিত ছবিটি তৈরি করা হয়েছে।

দাবিটির বিষয়ে অনুসন্ধানে আলোচিত ছবিটি রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে উন্মুক্ত বিশ্বকোষ WIkipedia এর ওয়েবসাইটে Redwood সম্পর্কিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: Wikipedia 

প্রতিবেদনটি পর্যালোচনা করে দেখা যায়, এতে ব্যবহৃত রেডউড গাছের ছবিটির সাথে আলোচিত দাবিতে প্রচারিত ছবিটির মিল রয়েছে। তবে উক্ত ছবিটির কোনো গাছের মাথায়ই কোনো পাগড়ি দেখতে পাওয়া যায়নি।

Photo Comparison by Rumor Scanner 

পরবর্তীতে ছবিটির বিস্তারিত বিবরণীর পড়ে দেখা যায়, ছবিটি ২০১০ সালের ৯ মে Sverrir Mirdsson নামের একজন ব্যক্তি তুলেছেন। তবে ছবিটি কোথায় তোলা হয়েছে সে বিষয়ে উক্ত পেজে কোনো প্রকার তথ্য প্রদান করা হয়নি।

Screenshot: Wikipedia 

পরবর্তীতে, ইরানী প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির পরিহিত পোশাকের কোনো অংশ বিশেষের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে কিনা তা জানতে বিভিন্ন কি-ওয়ার্ড সার্চ করেও ইরানী কিংবা আন্তর্জাতিক কোনো গণমাধ্যমে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

অর্থাৎ, প্রচারিত ছবিটি সদ্য প্রয়াত ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির পাগড়ির নয়।

মূলত, গত ১৯ মে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির মৃত্যুর ঘটনায় তার মাথার পাগড়ি গাছের মাথায় আটকে আছে দাবিতে একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে। তবে রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে দেখা যায়, আলোচিত দাবিটি সত্য নয়। প্রকৃতপক্ষে, ইন্টারনেটে বিদ্যমান একটি রেডউড গাছের পুরোনো ছবি ব্যবহার করে ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় তাতে একটি পাগড়ির ছবি যুক্ত করে আলোচিত দাবিটি প্রচার করা হচ্ছে।

সুতরাং, হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির মাথার পাগড়ি গাছের মাথায় আটকে থাকার দৃশ্য দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচারিত ছবিটি এডিটেড বা বিকৃত।

তথ্যসূত্র

হালনাগাদ/ Update

২৩ মে, ২০২৪ : এই প্রতিবেদন প্রকাশ পরবর্তী সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টিকটকে একই দাবি সম্বলিত ভিডিও আমাদের নজরে আসার প্রেক্ষিতে কতিপয় টিকটক পোস্টকে প্রতিবেদনে দাবি হিসেবে যুক্ত করা হলো।

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img