শুক্রবার, জুলাই 26, 2024
spot_img

ড্যারেন পিয়ারসনের গাছে বাজ পড়ার ছবিটি সম্পাদিত

সম্প্রতি, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে “গাছে বাজ পড়ার এই অবিশ্বাস্য মুহুর্ত ক্যাপচার করেছেন ফটোগ্রাফার ড্যারেন পিয়ারসন” দাবিতে একটি ছবি প্রচারিত হচ্ছে।

বাজ

উক্ত দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

একই ছবি একই দাবিতে টিকটকেও ছড়িয়েছে। দেখুন এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, “গাছে বাজ পড়ার এই অবিশ্বাস্য মুহুর্ত ক্যাপচার করেছেন ফটোগ্রাফার ড্যারেন পিয়ারসন” শীর্ষক দাবিতে প্রচারিত ছবিটি বাস্তব নয়, বরং একাধিক ছবির সমন্বয়ে সম্পাদিত এই ছবিকে উক্ত দাবিতে প্রচার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে মার্কিন ফ্যাক্টচেকিং প্রতিষ্ঠান স্নোপসে ২০১০ সালের একটি ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদনে ছবিটির মূল ফটোগ্রাফার ড্যারেন পিয়ারসনের একটি সাক্ষাৎকার খুঁজে পাওয়া যায়।  ড্যারেন জানান, “এটি বাস্তব নয়, এটি দুটি ফটোগ্রাফের সংমিশ্রণ। একটি আমার (সান দিয়েগো, ক্যালিফোর্নিয়া শহরের প্রেসিডিওতে তোলা একটি গাছের ছবি) এবং অন্যটি NOAA ওয়েবসাইট থেকে সংগৃহীত। 

Image comparison : Rumor scanner

প্রতিবেদনে পিয়ারসন আরও জানান, “আমার ছবিটি রাতের সময় তোলা ৬১৯ সেকেন্ডের একটি দীর্ঘ এক্সপোজার ছবি। এই সময়ের মধ্যে, আমি ‘el wire‘ ইফেক্ট ব্যবহার করে নীল ধোঁয়ার প্রভাব তৈরি এবং গাছে গোলাপী আভা দেওয়ার জন্য রঙিন-জেল স্পটলাইট ব্যবহার করি।”

তিনি বলছেন, “বজ্রপাতের আইডিয়াটি আমার রুমমেট জোয়ি (যিনি একজন ফটোগ্রাফার/ ফিল্মমেকার) দিয়েছিল যখন আমি ছবিটি তৈরি করছিলাম। সে উল্লেখ করেছিল, “তুমি জানো, যদি একটি বজ্রপাত গাছটিতে আঘাত করে, কি অসাধারণ হবে?” আইডিয়াটি আমার কাছে চমৎকার মনে হওয়ায় বজ্রপাত যোগ করি, যা আমার চোখে দারুন লাগলো!”

“আমি কখনই এটি প্রকৃত বজ্রপাতের ছবির উদ্দেশ্য নিয়ে তৈরি করিনি। এটি একটি শিল্পীসুলভ বহিঃপ্রকাশ হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু এটি ইন্টারনেটে ভুল তথ্য প্রচার করেছে।” 

মূলত, ইন্টারনেটের বিভিন্ন মাধ্যমে “গাছে বাজ পড়ার এই অবিশ্বাস্য মুহুর্ত ক্যাপচার করেছেন ফটোগ্রাফার ড্যারেন পিয়ারসন” দাবিতে একটি ছবি প্রচার করা হয়েছে। তবে রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে জানা যায়, ছবিটি আসল নয়। একাধিক ছবির সমন্বয়ে ফটোগ্রাফার ড্যারেন পিয়ারসন ছবিটি নির্মাণ করেন, যা তিনি এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন।

সুতরাং, একাধিক ছবির সমন্বয়ে তৈরি একটি ছবিকে “গাছে বাজ পড়ার বাস্তব ছবি” দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে; যা এডিটেড বা সম্পাদিত।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img