তুরস্কের পুরোনো ভিডিওকে ঢাকায় ভবন ধসের ভিডিও দাবিতে প্রচার

সম্প্রতি ‘এইমাত্র ঢাকায় দেখা যাচ্ছে যে একটি বিল্ডিং ভেঙ্গে যাইতেছে‘ শীর্ষক শিরোনামে একটি বহুতল ভবন ধসের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, শর্ট ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটক এবং ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম ইউটিউবে প্রচার করা হচ্ছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু রিল ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

টিকটকে প্রচারিত এমন কিছু ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

ইউটিউবে প্রচারিত এমন কিছু শর্ট ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, প্রচারিত ভিডিওটি ঢাকার কোনো ভবন ধসের ঘটনার নয় বরং এটি  তুরস্কের ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া একটি বহুতল ভবন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কর্তৃক ধ্বংস করার দৃশ্য।

অনুসন্ধানের শুরুতে ভিডিওটির কিছু স্থিরচিত্র রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে গত ২৯  মার্চ Dr. Esmeralda নামের একটি ভেরিফাইড টুইটার অ্যাকাউন্টে একই ভিডিওটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: Twitter 

ভিডিওটির ক্যাপশনে উল্লেখিত তুর্কি ভাষার বিস্তারিত বিবরণী অনুবাদ করে জানা যায়, এটি তুরস্কে নিয়ন্ত্রিত উপায়ে ভবন ধ্বংস করার ঘটনায় ধারণকৃত ভিডিও।

Video Comparison by Rumor Scanner

এছাড়াও, muhendisyen নামের অপর একটি ভেরিফাইড টুইটার অ্যাকাউন্টে গত ২৮ মার্চ প্রকাশিত একই ভিডিওটি খুঁজে পাওয়া যায় এবং সেখানেও একই তথ্য জানা যায়।

Screenshot: Twitter

উক্ত তথ্যের সূত্র ধরে প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে তুরস্কের সংবাদমাধ্যম Anadolu Ajansi এর ওয়েবসাইটে গত ০৩ জুন ‘One of the last two buildings that suffered heavy damage on the Ebrar Site in Kahramanmaraş was destroyed more controlledly’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: Anadolu Ajansi Website

উক্ত প্রতিবেদনে সংযুক্ত ভবনের ছবিগুলোর সাথে আলোচিত ভিডিওর ভবনের মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

Image Comparison by Rumor Scanner

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ঝুঁকি এড়াতে তুরস্কে ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত ভবন ধ্বংস করার কার্যক্রমের অংশ হিসেবে উক্ত ভবনটি স্থানীয় শহর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত উপায়ে ধ্বংস করা হয়েছে। 

এছাড়াও, প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে তুরস্কের সংবাদমাধ্যম DAILY SABAH-র ওয়েবসাইটে গত ১০ মে ‘Building demolitions, waste removal speed up in southeast Türkiye’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot:dailysabha

উক্ত প্রতিবেদন থেকেও তুরস্কের শক্তিশালী ভূমিকম্পের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত ভবনগুলো সংশ্লিষ্ট প্রশাসন কর্তৃক ধ্বংস করার তথ্য জানা যায়।

পাশাপাশি, মূলধারার গণমাধ্যম কিংবা অন্যকোনো সূত্রে বাংলাদেশে  সম্প্রতি বড় কোনো ভবন ধসের সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়নি।

অর্থাৎ, উপরোক্ত তথ্য উপাত্ত পর্যালোচনা করলে এটা স্পষ্ট যে, ঢাকায় ভবন ধসের দৃশ্য দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি বাংলাদেশের নয়।

মূলত, সম্প্রতি একটি বহুতল ভবন ধসে পড়ার ভিডিও ইন্টারনেটে প্রচার করে দাবি করা হয় এটি ঢাকায় একটি ভবন ধসের ঘটনার দৃশ্য। তবে অনুসন্ধানে দেখা যায়, এটি তুরস্কের ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত ভবন নিয়ন্ত্রিত উপায়ে ধ্বংসের ঘটনায় ধারণকৃত ভিডিও’র দৃশ্য। গত মার্চে একাধিক ভেরিফাইড টুইটার অ্যাকাউন্টে উক্ত ভিডিওটির অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যায়। 

প্রসঙ্গত, গত ১৬ জুন ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ভূমিকম্প অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে যার মাত্রা ছিল ৪ দশমিক ৫ এবং উৎপত্তিস্থল ছিল সিলেটের গোপালগঞ্জ। তবে সেই ভূমিকম্পের ঘটনায় কোনো ভবন ধস কিংবা হতাহতের সংবাদ পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, পূর্বেও তুরস্কের ভূমিকম্পের ভিডিও তাজিকিস্তানের দাবিতে প্রচার করা হলে বিষয়টি নিয়ে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করে রিউমর স্ক্যানার। 

সুতরাং, তুরস্কে ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত একটি বহুতল ভবন নিয়ন্ত্রিত উপায়ে ধ্বংসের ঘটনায় ধারণকৃত ভিডিওকে ঢাকায় ভবন ধসের ভিডিও দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img