১১ এপ্রিল ঈদুল ফিতর উদযাপনে বাংলাদেশই একমাত্র মুসলিম দেশ নয়

সৌদি আরবসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আজ (১০ এপ্রিল) পালিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর। বাংলাদেশের জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির ঘোষণা অনুয়ায়ী, বাংলাদেশের আকাশে ০৯ এপ্রিল চাঁদ দেখা না যাওয়ায় আগামীকাল ১১ এপ্রিল পালিত হবে পবিত্র ঈদুল ফিতর। এই ঘোষণার পর ইন্টারনেটের বিভিন্ন মাধ্যমে দাবি করা হচ্ছে, একমাত্র মুসলিম দেশ হিসেবে আগামীকাল (১১ এপ্রিল) ঈদ পালিত হবে বাংলাদেশে। 

ঈদুল ফিতর

উক্ত দাবিতে গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন দেখুন কালবেলা, যুগান্তর, ঢাকা পোস্ট, আরটিভি, সময়ের আলো, বাংলাদেশ প্রতিদিন, ঢাকা ট্রিবিউন (ইউটিউব), এনটিভি, নয়া শতাব্দী, আলোকিত বাংলাদেশ, বাংলানিউজ২৪, একুশে টিভি, বণিক বার্তা, মানবকণ্ঠ, দ্য ডেইলি ক্যাম্পাস, ঢাকা মেইল, জুম বাংলা, বিডি২৪রিপোর্ট, ঢাকা প্রকাশ, প্রবাসীর দিগন্ত, জনবাণী, বার্তা বাজার, সোনালী নিউজ, সানবিডি২৪, বিডি২৪লাইভ, বিবার্তা২৪, রেডিও টুডে নিউজ, প্রবাস টাইমস, অধিকার বিডি, নিউজ জোন, শিক্ষা বার্তা, স্বদেশ প্রতিদিন, স্বাধীন আলো, দেশের কণ্ঠ।

একই দাবিতে গণমাধ্যমের ফেসবুক পেজসহ অন্যান্য ফেসবুক পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক 

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, আগামীকাল ১১ এপ্রিল ঈদুল ফিতর উদযাপনে বাংলাদেশই একমাত্র মুসলিম দেশ নয় বরং মুসলিম অধ্যুষিত দেশ ব্রুনাইতেও একইদিন ঈদ উদযাপিত হবে। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানের শুরুতে গণমাধ্যমের এ সংক্রান্ত দাবির সূত্রপাত খোঁজার চেষ্টা করেছে রিউমর স্ক্যানার৷ এ বিষয়ে গতরাত ১০ টা ৫৮ মিনিটে প্রথম সংবাদ প্রকাশ করে ঢাকা পোস্ট। গণমাধ্যমটি উক্ত দাবির সূত্র হিসেবে উল্লেখ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবী বিভাগের চেয়ারম্যান যুবাইর এহসান হকের একটি ফেসবুক পোস্ট। 

জনাব যুবাইর গতরাত ১০ টা ৩৭ মিনিটে এ বিষয়ে যে পোস্টটি করেন তাতে স্পষ্টত এমন কোনো দাবি করা হয়নি যে, ১১ এপ্রিল ঈদুল ফিতর উদযাপনে বাংলাদেশই একমাত্র মুসলিম দেশ। বরং তিনি ১০ ও ১১ এপ্রিল ঈদ উদযাপন করতে যাওয়া মুসলিম দেশগুলোর তালিকা দিয়ে জানতে চেয়েছেন ১১ এপ্রিল বাংলাদেশের সাথে আর কোনো দেশ ঈদ পালন করবে কিনা। 

Screenshot: Facebook 

অর্থাৎ, ঢাবি শিক্ষকের দেওয়া তথ্যকে বিভ্রান্তিকরভাবে গণমাধ্যমে উপস্থাপন করা হয়েছে। 

বাংলাদেশ ছাড়া আর কোনো মুসলিম দেশ ১১ এপ্রিল ঈদুল ফিতর উদযাপন করতে যাচ্ছে কিনা সে বিষয়ে অনুসন্ধানে আমরা দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার দেশ ব্রুনাইয়ের খোঁজ পাই৷ দেশটির অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সোসাইটি এক ফেসবুক পোস্টে জানিয়েছে, গতকাল দেশটিতে চাঁদ দেখা না যাওয়ায় ১১ এপ্রিল শাওয়াল মাস শুরু হবে। ব্রুনাইয়ের সংবাদমাধ্যম বর্নিও বুলেটিন সূত্রেও একই তথ্য মিলেছে। 

Screenshot collage: Rumor Scanner

বর্নিও বুলেটিনের প্রতিবেদনে ঈদকে হারি রায়া হিসেবে সম্বোধন করা হয়েছে যা মালয় ভাষার শব্দ। মালয় দেশটির সরকারি ভাষা। চার লক্ষাধিক মানুষের দেশটির সরকারি ধর্ম ইসলাম। দেশটির মোট জনসংখ্যার ৬৬ শতাংশই মুসলিম৷ 

মূলত, আগামীকাল ১১ এপ্রিল বাংলাদেশে পালিত হবে পবিত্র ঈদুল ফিতর। এ সংক্রান্ত সরকারি ঘোষণার পর ইন্টারনেটের বিভিন্ন মাধ্যমে দাবি করা হচ্ছে, একমাত্র মুসলিম দেশ হিসেবে আগামীকাল (১১ এপ্রিল) ঈদ পালিত হবে বাংলাদেশে। তবে রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে জানা যাচ্ছে, ১১ এপ্রিল ঈদুল ফিতর উদযাপনে বাংলাদেশই একমাত্র মুসলিম দেশ নয়। মুসলিম অধ্যুষিত দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার আরেক দেশ ব্রুনাইতেও একইদিন ঈদ উদযাপিত হবে।

সুতরাং, ১১ এপ্রিল ঈদুল ফিতর উদযাপনে বাংলাদেশই একমাত্র মুসলিম দেশ শীর্ষক একটি দাবি গণমাধ্যমসহ ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে; যা বিভ্রান্তিকর। 

তথ্যসূত্র 

হালনাগাদ/ Update

১২ এপ্রিল, ২০২৪ : এই প্রতিবেদন প্রকাশ পরবর্তী সময়ে আরো একাধিক গণমাধ্যমে একই দাবি সম্বলিত প্রতিবেদন আমাদের নজরে আসার প্রেক্ষিতে উক্ত প্রতিবেদনগুলোকেও দাবি হিসেবে যুক্ত করা হলো।

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img