মিসরীয় মানবিক সাহায্যের গাড়িবহরের পুরোনো ভিডিওকে চলমান হামাস-ইসরায়েল যুদ্ধের ভিডিও দাবিতে প্রচার

সম্প্রতি, চলমান হামাস-ইসরায়েল যুদ্ধের প্রেক্ষাপটে গাজায় পাঠানো ত্রাণ সামগ্রীর গাড়িবহরের ভিডিও দাবিতে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।

হামাস

ফেসবুকে প্রচারিত এরূপ ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে(আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, আলোচিত ভিডিওটি হামাস-ইসরায়েল সাম্প্রতিক যুদ্ধের ত্রাণ সহায়তার গাড়িবহর আটকে পড়ার নয় বরং এটি ২০২১ সালের ৩১ মে মিসর সীমান্তের রাফাহ ক্রসিং অঞ্চলে গাজার উদ্দেশ্যে মিসরের ত্রাণ সহায়তার গাড়ি বহর আটকে পড়ার ভিডিও।

ছবিটির কী ফ্রেম রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে, আলোচ্য ভিডিওটিকে মিসরীয় টিভি চ্যানেল Al Nahar এর ফেসবুক পেজে ২০২১ সালের ৩১ মে’র একটি পোস্টে খুঁজে পায় রিউমর স্ক্যানার টিম।

উক্ত ফেসবুক পোস্টের আরবি ভাষার ক্যাপশন বাংলায় অনুবাদ করে দেখা যায়, গাজায় ফিলিস্তিনিদের মানবিক সাহায্যের জন্য মিসরের পাঠানো ত্রাণ সহায়তার গাড়িবহরের ভিডিও এটি।

Source: Al Naha

পরবর্তীতে, আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্সের ওয়েবসাইটে ২০২৩ সালের ১৭ অক্টোবর “Fact Check: Video of Egyptian aid convoy bound for Gaza is from 2021, not 2023” শীর্ষক একটি ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত প্রতিবেদন থেকে নিশ্চিত হওয়া যায় যে, আলোচিত ভিডিওটি ২০২১ সালের ৩১মে মিসরের ত্রাণ সাহায্যের গাড়িবহরের ভিডিও।

অন্যদিকে, হামাস-ইসরায়েল চলমান যুদ্ধে মানবিক সাহায্যের গাড়িবহর আটকে দেওয়ার বিষয়ে অনুসন্ধান করে, কাতার ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা’র ওয়েবসাইটে ২০২৩ সালের ১৬ অক্টোবর “Humanitarian aid stuck at Gaza border as WHO warns of ‘catastrophe’” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পায় রিউমর স্ক্যানার টিম। 

উক্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, মিসর সীমান্তে ফিলিস্তিনিদের জন্য মানবিক সাহায্য নিয়ে বিশাল গাড়িবহর অপেক্ষা করছে। কিন্তু, ইসরায়েল রাফাহ ক্রসিং পয়েন্ট বন্ধ করে দেওয়ায় মিসরের ত্রাণ সহায়তার এসব গাড়ি গাজায় পৌছতে পারছে না।

Source: AlJazeera

এছাড়াও, অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে মিসরের ত্রাণ সহায়তা আটকে দেওয়ার প্রতিবেদন দেখুন AP News, Reuters.

অর্থাৎ, চলমান হামাস-ইসরায়েল যুদ্ধে রাফাহ ক্রসিং পয়েন্টে সীমান্তে ইসরায়েল কর্তৃক মিশরের ত্রাণ সহায়তা আটকে দেওয়ার তথ্যটি সঠিক।

মূলত, চলমান হামাস-ইসরায়েল যুদ্ধে গাজায় প্রবেশের একমাত্র পথ রাফাহ ক্রসিং পয়েন্ট বন্ধ থাকায় মিসরের পক্ষ থেকে পাঠানো ত্রাণ সামগ্রীর গাড়িবহর আটকে পড়ে। এই ঘটনার সাথে ২০২১ সালের ৩১মে মিসর থেকে গাজার উদ্দেশ্যে পাঠানো ত্রাণ সহায়তা আটকা পড়া গাড়িবহরের ভিডিও জুড়ে দিয়ে চলমান হামাস-ইসরায়েল যুদ্ধে ত্রাণ সামগ্রী আটকে দেওয়ার ভিডিও দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, পূর্বেও গাজা সীমান্তে চার ইসরায়েলি সৈন্য লুকিয়ে রাখা বোমার আঘাতে আহত হওয়ার ঘটনার পুরোনো ভিডিওকে হামাস-ইসরায়েল চলমান সংঘাতের ভিডিও দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচারিত হলে সেবিষয়ে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, রাফাহ ক্রসিং পয়েন্টে মিসরের ত্রাণ সামগ্রী আটকে পড়ার ঘটনাটি সত্য; কিন্তু উক্ত তথ্যের সাথে প্রচারিত ভিডিওটি পুরোনো এবং বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img