মঙ্গলবার, জুলাই 23, 2024
spot_img

নির্বাচনের কারণে ৫-৮ জানুয়ারি সাধারণ ছুটির ঘোষণা দাবিতে ভুয়া প্রজ্ঞাপন ফেসবুকে 

গত ০২ জানুয়ারি থেকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে ০৫ জানুয়ারি হতে ০৮ জানুয়ারি, ২০২৪ পর্যন্ত ৪ দিন সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে দাবিতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব সোনিয়া হাসান স্বাক্ষরিত একটি প্রজ্ঞাপনের ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়তে দেখেছে রিউমর স্ক্যানার টিম। 

এই প্রজ্ঞাপন এতটাই ছড়িয়েছে যে এটি রীতিমতো প্রিন্ট করেও প্রচার করা হচ্ছে। 

এ সংক্রান্ত ফেসবুকের কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে ৫-৮ জানুয়ারি চারদিন সরকারি ছুটি ঘোষণার দাবিতে প্রচারিত প্রজ্ঞাপনটি আসল নয় বরং আগামী ০৭ জানুয়ারির নির্বাচন উপলক্ষ্যে কেবল ভোটের দিনই সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত একটি প্রজ্ঞাপন ডিজিটাল প্রযুক্তির মাধ্যমে সম্পাদনা করে উক্ত দাবির প্রজ্ঞাপনটি তৈরি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে গত ২৮ ডিসেম্বর (২০২৩) দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে ঘোষণাকৃত সাধারণ সরকারি ছুটির মূল প্রজ্ঞাপনটি খুঁজে পাওয়া যায়। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, নির্বাচন উপলক্ষ্যে কেবল ভোটের দিন অর্থাৎ ৭ জানুয়ারি সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

উক্ত প্রজ্ঞাপনটির সাথে আলোচ্য দাবিতে প্রচারিত প্রজ্ঞাপনটির তুলনামূলক বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, দাবিকৃত প্রজ্ঞাপনটিতে স্মারক নম্বর, তারিখ, অনুলিপি পাঠানোর ঠিকানায় অসঙ্গতির পাশাপাশি একাধিক বানান ভুল রয়েছে। 

Image comparison: Rumor Scanner

মূল প্রজ্ঞাপনে দুইবার স্মারক নম্বর এবং দুইবার তারিখ লিখা রয়েছে। অন্যদিকে, ভুয়া প্রজ্ঞাপনে একবার স্মারক নম্বর এবং কোনো তারিখ উল্লেখ নেই। মূল প্রজ্ঞাপনে অনুলিপি পাঠানোর ১৭টি ঠিকানা উল্লেখ করা হলেও ভুয়া প্রজ্ঞাপনে কেবল ৮টি ঠিকানা উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া ভুয়া প্রজ্ঞাপনে ‘প্রজ্ঞাপন’ বানানই ভুল। এসব বিষয় ছাড়াও ভুয়া প্রজ্ঞাপনে নতুন কিছু শব্দ জুড়ে দেওয়া হয়েছে। মূল প্রজ্ঞাপনে ছুটি অবহেলা করলে কোনো শাস্তির কথা উল্লেখ না করা হলেও ভুয়া প্রজ্ঞাপনে ছুটি অবহেলা করলে আর্থিক জরিমানাসহ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। 

পরবর্তীতে বিষয়টি অধিকতর নিশ্চিতের জন্য প্রজ্ঞাপনে স্বাক্ষরকারী জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব সোনিয়া হাসানের সাথে যোগাযোগ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। তিনি জানান, “আমাদের ওয়েবসাইটে যেটা দেওয়া আছে সেটাই সঠিক। এটা ভুয়া প্রজ্ঞাপন।”

রিউমর স্ক্যানার টিমকে বক্তব্য দেওয়ার পরই উক্ত ভুয়া প্রজ্ঞাপনের বিষয়ে সতর্ক করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

মূলত, আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে কেবল ভোটের দিন অর্থাৎ ৭ জানুয়ারি সাধারণ সরকারি ছুটি ঘোষণা করে গত ২৮ ডিসেম্বর (২০২৩) প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। সম্প্রতি সেই প্রজ্ঞাপনটি প্রযুক্তির সহায়তায় এডিট করে তাতে ৭ জানুয়ারির স্থলে ৫ জানুয়ারি হতে ৮ জানুয়ারি চারদিনের নির্বাচনকালীন সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে দাবি করে একটি তথ্য ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে। উক্ত এডিটেড প্রজ্ঞাপনে স্মারক নম্বর, তারিখ, অনুলিপি পাঠানোর ঠিকানায় অসঙ্গতির পাশাপাশি একাধিক বানান ভুল লক্ষ্য করা গেছে। 

প্রসঙ্গত, নির্বাচনের কারণে আগামী ৫ জানুয়ারি দুপুর ১২টা থেকে ৮ জানুয়ারি দুপুর ১২টা পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচলের অনুমতি দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। 

সুতরাং, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে ৫-৮ জানুয়ারি সাধারণ ছুটি ঘোষণার দাবিতে প্রচারিত প্রজ্ঞাপনটি বিকৃত বা এডিটেড।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img