বৃহস্পতিবার, জুলাই 18, 2024
spot_img

গুগলের প্রতিষ্ঠাতা ইসরায়েলে গুগল বন্ধ করার ঘোষণা দেননি

সম্প্রতি শর্ট ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটকে “গুগল এর প্রতিষ্ঠাতা ফিলিস্তিন কে সাপোর্ট দিয়ে যাচ্ছেন। আর তিনি ইসরায়েল এ গুগল বন্ধ করার ঘোষণা দেন।” শীর্ষক দাবিতে একটি ভিডিও প্রচার করা হচ্ছে। 

গুগল বন্ধ

উক্ত দাবিতে টিকটকে প্রচারিত ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)। 

এই প্রতিবেদনটি প্রকাশ হওয়া অবধি উক্ত টিকটক ভিডিওটি ২৬ হাজারেরও অধিক বার দেখা হয়েছে। ১ হাজার ৮ শত এরও অধিক পৃথক অ্যাকাউন্ট থেকে ভিডিওটিতে প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, গুগল এর প্রতিষ্ঠাতা কিংবা সিইও কেউই ফিলিস্তিনকে সমর্থন জানিয়ে ইসরায়েলে গুগলের সেবা বন্ধ করার কোনো সিদ্ধান্ত নেননি বরং ইসরায়েলের সাথে যৌথভাবে প্রায় ১.২ বিলিয়ন ডলারের প্রজেক্টে গুগল কাজ করছে।

অনুসন্ধানের প্রাথমিক পর্যায়ে কি-ওয়ার্ড সার্চ করে ইসরায়েলে গুগল কিংবা গুগলের সেবা বন্ধ করার দাবির বিষয়ে গণমাধ্যম কিংবা বিশ্বাসযোগ্য সূত্রে কোনো সংবাদ পাওয়া যায়নি। বরং গুগলের তেলআবিব ও হাইফা অফিসের কার্যক্রম স্বাভাবিক গতিতেই চলার প্রমাণ পাওয়া যায়। এমনকি, ইসরায়েলে গুগলের অফিসে ৪০টি চাকুরির অবস্থান অ্যাভেইলেবল আছে। 

তাছাড়া অনুসন্ধানে জানা যায়, ইসরায়েলের সাথে ‘প্রজেক্ট নিম্বাস’ নামে ১.২ বিলিয়ন ডলারের একটি প্রজেক্টে ২০২১ সালে গুগল এবং অ্যামাজন চুক্তিবদ্ধ হয়। এই প্রকল্পের অধীনে ইসরায়েল সরকার ও ইসরায়েল মিলিটারিকে গুগল এবং অ্যামাজন তাদের ক্লাউড কম্পিউটিং সেবা প্রদান করবে। ভারতীয় শীর্ষস্থানীয় বিজনেস ম্যাগাজিন বিজনেস টুডে এর প্রতিবেদন অনুসারে, এই প্রকল্পের ফলে গুগলের প্রযুক্তি ব্যবহার করে ইসরায়েলি সরকার বৃহৎ পরিসরে ডাটা বিশ্লেষণ, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স প্রশিক্ষণ, ডাটাবেস হোস্টিং এবং আরো অন্যান্য শক্তিশালী কম্পিউটিং করতে সক্ষম হবে। 

ইসরায়েলের সাথে এই প্রজেক্টে গুগলের সরাসরি সম্পৃক্ততা থাকায় সম্প্রতি গুগল অফিসে গুগলের কর্মকর্তারা প্রতিবাদ করেন৷ ফলশ্রুতিতে গুগল এখন পর্যন্ত ৫০ জন গুগলের কর্মীকে চাকরিচ্যুত করেছে। অর্থাৎ, গুগল স্বাভাবিকভাবেই ইসরায়েলের সাথে কাজ চালিয়ে যেতে চাচ্ছে। বরং, গুগলে কর্মরত যে বা যারা ইসরায়েলের সাথে তাদের ব্যবসায়িক সম্পর্কের বিরোধীতা করছে তাদেরকে তারা চাকুরি থেকে বরখাস্ত করছে।

তাছাড়া, টিকটকে দাবিকৃত ভিডিওটিতে ব্যবহৃত ছবিটি গুগলের প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি পেজ বা সার্জি ব্রিনের মধ্যে কারোরই নয়, বরং ছবিটি গুগলের বর্তমান প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সুন্দর পিচাইয়ের। উল্লেখ্য যে, সুন্দর পিচাইয়ের ব্যবহৃত ছবিটিও পুরাতন৷ ছবিটি অন্তত ২০২৩ সাল থেকেই অনলাইনে বিদ্যমান আছে। 

মূলত, ইসরায়েলের সাথে গুগল এবং অ্যামাজনের ১.২ বিলিয়ন ডলারের একটি প্রকল্প আছে। গুগল অনেক আগে থেকেই ইসরায়েলে তাদের অফিস প্রতিষ্ঠা করে পুরোদমে কার্যক্রমও চালাচ্ছে। গুগলের যারাই ইসরায়েলের সাথে গুগলের কোনো ব্যবসায়িক চুক্তির বিরোধীতা করছে, তাদেরকেই চাকরিচ্যুত করছে। এমতাবস্থায় ইসরায়েলের সাথে গুগলের সেবা বন্ধ করার দাবিটি অবান্তর। 

অর্থাৎ, গুগলের প্রতিষ্ঠাতা ইসরায়েলে গুগল বন্ধ করার ঘোষণা দিয়েছেন মর্মে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img