আমেরিকায় ৭ লাখ খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীর হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করার দাবিটি মিথ্যা

সম্প্রতি, ‘আমেরিকায় ৭ লাখ খ্রিস্টান হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করেছে’ শীর্ষক দাবিতে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।

এই দাবিতে বাংলাদেশে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

হিন্দু ধর্ম গ্রহণ

ওপার বাংলায় প্রচারিত কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, আমেরিকায় ৭ লাখ খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীর হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করার দাবিতে প্রচারিত তথ্যটি সঠিক নয়। প্রকৃতপক্ষে ২০২২ সালে যুক্তরাজ্যের লন্ডনে অনুষ্ঠিত একটি রথযাত্রার ভিডিওকে কেন্দ্র করে কোনো তথ্যসূত্র ছাড়াই উক্ত দাবিটি ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে। 

দাবিটি যেভাবে ছড়ালো

দাবিটি নিয়ে অনুসন্ধানে কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে মাইক্রো ব্লগিং সাইট এক্সের ( সাবেক টুইটারে) हम लोग We The People নামক একটি হ্যান্ডল থেকে গত ৯ অক্টোবর ‘अमेरिका में पिछले एक दशक के दौरान 7,00,000 लोगों ने Xistianity छोड़कर सनातन धर्म अपनाया है। (During the last decade in America, 7,00,000 people have left Christianity and adopted Sanatan Dharma.)’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত ২৪ সেকেন্ডের ভিডিওসহ একটি টুইট খুঁজে পাওয়া যায়।

ভিডিওটিতে উপস্থিত মানুষদেরকে হিন্দু ধর্মীয় বিভিন্ন শ্লোক পাঠ করতে শোনা যায়। তবে টুইটটিতে ৭ লাখ খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীর হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করার দাবিকৃত তথ্যের কোনো সূত্র খুঁজে পাওয়া যায়নি।

পরবর্তীতে ভিডিওটি নিয়ে অনুসন্ধানে রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম ইউটিউবে Naik78 নামের একটি চ্যানেলে ২০২২ সালের ৭ সেপ্টেম্বর ‘London Rathayatra 2022 | 4k UHD’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। ভিডিওটির বিস্তারিত বিবরণী থেকে জানা যায়, এটি লন্ডনে ২০২২ সালের রথযাত্রার ভিডিও। 

এই ভিডিওটির সাথে যুক্তরাষ্ট্রে ৭ লাখ খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীর হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করার দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটির মিল খুঁজে পাওয়া যায়। এখানে দৃশ্যমান হোটেলটির নাম  Haymarket Hotel। 

Video Comparison: Rumor Scanner 

এ পর্যন্ত অনুসন্ধানে প্রতীয়মান হয়, দাবিকৃত তথ্য ও ভিডিওটি অপ্রাসঙ্গিক। অর্থাৎ যুক্তরাষ্ট্রে ৭ লাখ খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীর হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করার দাবিতে প্রচারিত তথ্যটির সাথে শেয়ারকৃত ভিডিওটি ভিন্ন ঘটনার, ২০২২ সালে যুক্তরাজ্যের লন্ডনে অনুষ্ঠিত রথযাত্রার। 

যুক্তরাষ্ট্রে হিন্দু জনসংখ্যার সংখ্যা 

যুক্তরাষ্ট্রে ৭ লাখ খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীর হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করার দাবিতে প্রচারিত তথ্যটি নিয়ে অনুসন্ধানে নির্ভরযোগ্য সূত্রে দাবিটির পক্ষে কোনো তথ্যসূত্র খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

তবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র-ভিত্তিক জনমত জরিপ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান পিউ রিসার্চ সেন্টারের ২০১৫ সালের ২ এপ্রিল ‘THE FUTURE OF WORLD RELIGIONS: POPULATION GROWTH PROJECTIONS, 2010-2050’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন অনুসারে, আমেরিকায় ২০০৭ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীর সংখ্যা ১০ শতাংশ কমেছে। খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীর সংখ্যা ২০০৭ সালে ছিল ৭৮.৪ শতাংশ, যা ২০১৪ সালে এসে ৭০.৬ শতাংশে নেমে আসে। তবে একই সময়ে দেশটিতে মুসলিম ও হিন্দু জনসংখ্যা দ্বিগুন হয়েছে। 

একই প্রতিষ্ঠানের ২০১৫ সালের ১২ মে ‘America’s Changing Religious Landscape’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ২০০৭ সাল থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে হিন্দু জনসংখ্যা শূণ্য দশমিক চার থেকে শূণ্য দশমিক সাতে বৃদ্ধি পেয়েছে। একই সময়ে মুসলিমদের সংখ্যা  শূণ্য দশমিক চার থেকে শূণ্য দশমিক নয়ে বৃদ্ধি পেয়েছে। এর ফলে হিন্দু ধর্ম যুক্তরাষ্ট্রের চতুর্থ বৃহৎ ধর্মের জায়গা পেয়েছে।

কিন্তু এই সমীক্ষা অনুযায়ী, আমেরিকায় হিন্দু জনসংখ্যার অধিকাংশই অভিবাসী। এর মধ্যে ৯১ শতাংশই এশিয়ান বংশোদ্ভূত। অপরদিকে ২০০৭ সাল থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে দেশটিতে এমন লোকের সংখ্যা বেড়েছে, যারা কোনো ধর্মের অনুসারী নয়। এই সময়ের মধ্যে তাদের সংখ্যা ১ দশমিক ৯ কোটি বেড়ে ৫ দশমিক ৬ কোটি হয়েছে।

পিউ রিসার্চ সেন্টারের গবেষণায় আরও উঠে আসে যে, আমেরিকায় হিন্দুদের জনসংখ্যা আগামী দিনে বাড়বে। ২০১০ সালে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী হিন্দুদের শতাংশ ছিল বিশ্বের হিন্দু জনসংখ্যার  শূণ্য দশমিক ছয় শতাংশ এবং এই সংখ্যা ২০৫০ সালের মধ্যে এক দশমিক দুই শতাংশ  বৃদ্ধি পাবে।

কিন্তু এই প্রতিবেদনে এমন কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি যে আমেরিকায় মানুষ খ্রিস্টান ধর্ম ছেড়ে হিন্দু ধর্মে ধর্মান্তরিত হচ্ছে। 

তবে এবারই প্রথম নয়, এর আগে ২০১৬ সালে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নেতা প্রবীণ তোগাদিয়াও দাবি করেছিলেন, বিশ্বব্যাপী সাড়ে সাত লক্ষ মুসলমান এবং খ্রিস্টান হিন্দু ধর্মে ধর্মান্তরিত হয়েছে।  যা সে সময়ে গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। কিন্তু এই দাবির পক্ষে তিনি কোনো প্রমাণ দেননি। 

তার এ দাবি নিয়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত কিছু প্রতিবেদন দেখুন 

এ পর্যন্ত অনুসন্ধানে প্রতীয়মান হয়, কোনো ধরনের নির্ভরযোগ্য তথ্যসূত্র ছাড়াই যুক্তরাষ্ট্রে ৭ লাখ খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করেছেন দাবিটি প্রচার করা হচ্ছে। এছাড়া অনুরূপ দাবি কেবল স্থান পরিবর্তন করে এর আগে ২০১৬ সালে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নেতা প্রবীণ তোগাদিয়াও করেছিলেন।  তবে সে সময়ও তিনি কোনো প্রমাণ দেননি।

মূলত, সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রে ৭ লাখ খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করেছেন দাবিতে একটি তথ্য প্রচার করা হচ্ছে। তবে দাবিটি নিয়ে অনুসন্ধানে দেখা যায়, প্রথমে একটি ভিডিও শেয়ারের মাধ্যমে ও পরবর্তীতে কেবল লিখিত রূপে দাবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এর মধ্যে ভিডিওটি ২০২২ সালে যুক্তরাজ্যের লন্ডনে অনুষ্ঠিত একটি রথযাত্রার এবং উভয়ক্ষেত্রেই দাবিকৃত তথ্যটির কোনো নির্ভরযোগ্য সূত্র নেই।

সুতরাং,  যুক্তরাষ্ট্রে ৭ লাখ খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করার দাবিতে প্রচারিত তথ্যটি মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img