ফেসবুকের মেসেঞ্জারে আনসেন্ড অপশন বাতিল হয়নি

সম্প্রতি, “ফেসবুকের মেসেঞ্জারে আনসেন্ড অপশন বাতিল করেছে জাকারবার্গ” শীর্ষক একটি তথ্য ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। 

কী দাবি করা হচ্ছে? 

ফেসবুকের বার্তা আদান প্রদানের মাধ্যমে মেসেঞ্জারে আনসেন্ড অপশনের বিষয়ে সম্প্রতি দুইটি সুনির্দিষ্ট দাবি ছড়িয়ে পড়তে দেখেছে রিউমর স্ক্যানার টিম। 

প্রথম দাবি: আনসেন্ড অপশন বাতিল 

ছড়িয়ে পড়া পোস্টগুলোতে দাবি করা হচ্ছে, “মেসেঞ্জারে Unsent অপশন বাতিল করছে জুকারবার্গ!! ভাবিয়া করিও Chat করিয়া ভাবিও না!”

Screenshot source: Facebook 

উক্ত দাবিতে ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে।

Screenshot source:  Crowdtangle

দ্বিতীয় দাবি: অপ্রীতিকর মেসেজ মুছে ফেলা এড়াতে আনসেন্ড অপশন বন্ধ রেখেছে ফেসবুক 

ছড়িয়ে পড়া পোস্টগুলোতে দাবি করা হচ্ছে, “মেসেঞ্জারে কে কী আকাম করে তা ধরতে ম্যাসেঞ্জার স্ক্যান করা শুরু করেছে ফেসবুক। মেসেঞ্জারে টেক্সট, ছবি, লিঙ্ক বা ভিডিও স্ক্যানিং হচ্ছে। ভায়োলেশন হলে সেই আইডির সমস্যা হবে। ইতিমধ্যে যা আকাম করা হয়েছে তা যেন মুছে ফেলতে না পারে সম্ভবত সে কারণে আপাতত মেসেজ আনসেন্ডও বন্ধ। বিশেষ করে যারা মেয়েদের মেসেঞ্জারে ডিসটার্ব করে, হট ছবি বা ভিডিও পাঠায়, লিঙ্ক পাঠায় তারা ধরা খাচ্ছেন শীঘ্রই।”

Screenshot source: Facebook 

উক্ত দাবিতে ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে।
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানেএবং এখানে।

Screenshot source:  Crowdtangle

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ফেসবুকের মেসেঞ্জারে আনসেন্ড অপশন বাতিল শীর্ষক দাবিটি সঠিক নয় বরং সাময়িক সময়ের জন্য অপশনটি কাজ না করলেও পরে সমস্যাটি সমাধান হয়েছে। তাছাড়া, অপ্রীতিকর মেসেজ মুছে ফেলা এড়াতে আনসেন্ড অপশন বন্ধ রেখেছে ফেসবুক শীর্ষক দাবিটিও সঠিক নয়৷

২০১৯ সালের ৫ ফেব্রুয়ারী ফেসবুকের মেসেঞ্জারে আনসেন্ড (unsend) অপশন চালু করা হয়। গত ৩ ফেব্রুয়ারী বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশেই মেসেঞ্জারে মেসেজ পাঠিয়ে আনসেন্ড করার অপশন কাজ না করার অভিযোগ করছিলেন অ্যাপটির ব্যবহারকারীরা। সেসময়ই আলোচিত দুই দাবি ছড়িয়ে পড়ে ফেসবুকে। 

আনসেন্ড অপশন কী বাতিল হয়েছে? 

মেসেঞ্জারের আনসেন্ড অপশন কেন কাজ করছিল না সে বিষয়ে অনুসন্ধানে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। মেসেঞ্জারের নিউজরুমেও এ বিষয়ে কোনো তথ্য দেয়নি ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। 

ফিলিপাইনের সংবাদমাধ্যম ‘The Filipino Times’ এক প্রতিবেদনে গত ৩ ফেব্রুয়ারী জানায়, “ফিলিপাইন ও মধ্যপ্রাচ্যসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ফেসবুক ব্যবহারকারীরা এই সমস্যায় পড়েছেন৷ ফেসবুকের কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনো বক্তব্য না আসায় সর্বশেষ পোস্টে ব্যবহারকারীরা কমেন্ট করে অভিযোগ জানাচ্ছেন।”

Screenshot source: The Filipino Times

এই তথ্যের সূত্র ধরে মেসেঞ্জারের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজের সর্বশেষ পোস্টে বিভিন্ন দেশের ফেসবুক ব্যবহারকারীদের এ বিষয়ে অভিযোগ জানাতে দেখা যায়। তবে মেসেঞ্জার কর্তৃপক্ষ কারো কমেন্টেরই উত্তর দেয়নি।

Screenshot source: Facebook 

ফিলিপিনো টাইমস পরবর্তীতে তাদের প্রতিবেদনটি আপডেট করে জানায়, ০৩ ফেব্রুয়ারী দুবাই সময় রাত ৮টায় (বাংলাদেশ সময় রাত ১০টা) সমস্যাটি সমাধান হয়েছে।

Screenshot source:  The Filipino Times

রিউমর স্ক্যানার টিমের পক্ষ থেকে গত ৩ ফেব্রুয়ারী রাত ১০:৩৮ মিনিটে বিষয়টি যাচাই করে দেখা যায়, আনসেন্ড অপশন কাজ করছে।

Screenshot source: Messenger 

অর্থাৎ, আনসেন্ড অপশন সাময়িকভাবে না কাজ করলেও পরবর্তীতে সমস্যাটি সমাধান হয়েছে।  

অপ্রীতিকর মেসেজ মুছে ফেলা এড়াতে আনসেন্ড অপশন বন্ধ রেখেছিল ফেসবুক?

আলোচিত দাবির বিষয়ে ফেসবুকে গত ৩ ফেব্রুয়ারী প্রথম পোস্ট করেন ‘Palash Mahmud’ নামে গণমাধ্যম সংশ্লিষ্ট এক কর্মী।

Screenshot source: Facebook 

আলোচিত সমস্যাটির বিষয়ে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ কোনো বক্তব্য না দেওয়ায় এ দাবির বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। 

তবে জনাব পলাশ মাহমুদ তার দাবির স্বপক্ষে তার পোস্টের কমেন্টে মার্কিন অনলাইন সংবাদমাধ্যম ‘The Wrap’ এর একটি প্রতিবেদনের লিংকও দিয়ে দেন। সেই কমেন্টে এক ব্যক্তি লিখেন, লিংকে দেওয়া প্রতিবেদনের তারিখ ২০১৮ সাল উল্লেখ করা৷

Screenshot source: Facebook 

এই কমেন্টের পরপরই পোস্টটি ডিলিট করেন জনাব পলাশ মাহমুদ। 

পরবর্তীতে ‘The Wrap’ এর আলোচিত প্রতিবেদনের লিংকে প্রবেশ করে দেখা যায়, প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয়েছে ২০১৮ সালের ১৮ এপ্রিল। 

প্রতিবেদনে মেসেঞ্জারের আনসেন্ড অপশনের বিষয়ে কিছু বলা হয়নি।

Screenshot source: The Wrap 

তাছাড়া, সেসময় আনসেন্ড অপশন ছিলই না মেসেঞ্জারে। অপশনটি চালুই হয়েছে পরের বছরের ফেব্রুয়ারীতে। 

অর্থাৎ, মেসেঞ্জারের আনসেন্ড অপশন চালুর পূর্বের সময়ের একটি প্রতিবেদনের লিংক ব্যবহার করে অপ্রীতিকর মেসেজ মুছে ফেলা এড়াতে আনসেন্ড অপশন বন্ধ রেখেছিল ফেসবুক শীর্ষক একটি দাবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

মূলত, গত ৩ ফেব্রুয়ারী বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশেই মেসেঞ্জারে মেসেজ পাঠিয়ে আনসেন্ড করার অপশন কাজ না করার অভিযোগ করছিলেন অ্যাপটির ব্যবহারকারীরা। সে সময় আনসেন্ড অপশন বাতিল করা হয়েছে শীর্ষক একটি দাবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লেও অনুসন্ধানে দেখা যায়, একই দিন রাতেই সমস্যাটি সমাধান হয়েছে। তাছাড়া, অপ্রীতিকর মেসেজ মুছে ফেলা এড়াতে আনসেন্ড অপশন বন্ধ রেখেছিল ফেসবুক শীর্ষক একটি দাবিও ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষিতে অনুসন্ধানে জানা যায়, মেসেঞ্জারের আনসেন্ড অপশন চালুর পূর্বের সময়ের (২০১৮) একটি প্রতিবেদনের লিংক ব্যবহার করে উক্ত দাবিটি ছড়িয়ে পড়েছে।

সুতরাং, ফেসবুকের মেসেঞ্জারে আনসেন্ড অপশন বাতিল হওয়ার দাবিটি মিথ্যা।  

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img