শনিবার, এপ্রিল 13, 2024
spot_img

অনলাইনে জুয়া খেলে নেইমারের এক মিলিয়ন ইউরো হারানোর ঘটনাটি সাজানো

সম্প্রতি, অনলাইন ক্যাসিনো সেশনে ব্রাজিলের ফুটবল তারকা এবং ফ্রান্সের ক্লাব পিএসজির ফুটবলার নেইমার এক মিলিয়ন ইউরো হারিয়েছেন শীর্ষক একটি দাবি ইন্টারনেটের বিভিন্ন মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। উক্ত দাবির সাথে নেইমার কান্নার একাধিক ছবিও যুক্ত রয়েছে। 

Screenshot source: deshrupantor

উক্ত দাবিতে গণমাধ্যমের কিছু প্রতিবেদন দেখুন দৈনিক বাংলা, দেশ রূপান্তর, এবি নিউজ২৪। 

উক্ত দাবিতে ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

Screenshot source: Facebook 

একই দাবিতে গণমাধ্যমের ফেসবুকে পেজের পোস্ট দেখুন সময় নিউজ (আর্কাইভ)।

আন্তর্জাতিক একাধিক গণমাধ্যমে একই দাবিতে প্রকাশিত প্রতিবেদন দেখুন Marca (Spain), Politiko (Albania), Sportskeeda (India)।

Screenshot source: Prothom Alo 

কিছু গণমাধ্যমে নেইমার পোকার খেলার সময় ফেসবুকে লাইভে এসেছিলেন বলে দাবি করা হয়েছে। 

উক্ত দাবিতে গণমাধ্যমের প্রতিবেদন দেখুন প্রথম আলো

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, অনলাইনে জুয়া খেলে নেইমারের এক মিলিয়ন ইউরো হারানোর দাবিটি সঠিক নয় বরং নেইমার তার স্পন্সর অনলাইন বেটিং প্রতিষ্ঠান ব্লেজ এর পক্ষে প্রচারণার অংশ হিসেবে উক্ত গেমে অংশ নিয়েছিলেন।

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে শুরুতে কিওয়ার্ড সার্চ করে ফ্রান্সের সংবাদমাধ্যম ‘BFM RMC SPORT’ এর ওয়েবসাইটে ২৯ মার্চ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

প্রতিবেদনে বলা হয়, ২৮ মার্চ ভিডিও লাইভ স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম ‘Twitch’ এ এক অনলাইন সেশনে এক মিলিয়ন ইউরো হারিয়েছেন নেইমার। অনলাইন গেমিং ও বেটিং প্রতিষ্ঠান ব্লেজ এর কমার্শিয়াল পার্টনারশিপের অংশ হিসেবে নেইমার উক্ত সেশনে অংশ নেন। 

Screenshot source: BFM RMC SPORT

পরবর্তীতে ‘Twitch’ এ নেইমারের অ্যাকাউন্টে আলোচিত ভিডিওটি খুঁজে পাওয়া যায়। পর্তুগীজ ভাষায় লেখা ভিডিওর ক্যাপশনে নেইমার উল্লেখ করেছেন, শান্তি বিনষ্ট হওয়ায় তিনি কান্না করছেন (অনূদিত)।

Screenshot source: Twitch

একই অ্যাকাউন্টে নেইমার সেদিন উক্ত ভিডিওর আগে আরেকটি ভিডিও আপলোড করেন। যেখানে ভিডিওর ক্যাপশনে ব্লেজ এর প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বলা হয়েছে, “চলো যাই ব্লেজ (দায়িত্ব নিয়ে খেলুন / শুধু ১৮+)।”

Screenshot source: Twitch

ফ্রান্সের সংবাদমাধ্যম ‘ouest france’ এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্লেজ নেইমারের ২৬তম স্পন্সর। প্রতিষ্ঠানটির কমার্শিয়াল অপারেশনের অংশ হিসেবেই নেইমার আলোচিত সেশনটিতে অংশ নিয়েছিলেন। 

Screenshot source: ouest france

ব্রাজিলের সংবাদমাধ্যম ‘Globo’ জানিয়েছে, নেইমার সত্যিই জুয়া খেলে এক মিলিয়ন ইউরো হারেননি। এটা অনলাইন বেটিং প্রতিষ্ঠানের প্রচারণার অংশ ছিল। 

নেইমারের প্রতিনিধি ‘গ্লোবো’কে জানিয়েছেন, এ সব লাইভে প্রচারণার কৌশল ছাড়া আর কিছুই নয়, তিনি (নেইমার) সেখানে টাকা ঢালেননি।’ 

Screenshot source: Globo

গ্লোবো বলছে, প্রচারণার এ কৌশলের কারণ হলো, অনলাইনে জুয়া খেলায় বিখ্যাত ব্যক্তিরাও যে হারতে পারেন, তা সাধারণ মানুষকে বোঝানো।

অর্থাৎ, নেইমার সত্যি সত্যিই অনলাইনে জুয়া খেলে এক মিলিয়ন ইউরো হারেননি।

মূলত, গত ২৮ আগস্ট ভিডিও স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম টুইচ-এ লাইভে এসে জুয়া খেলে এক মিলিয়ন হারার বিষয়ে জানান নেইমার। তবে একইদিন উক্ত লাইভের পূর্বে আরেকটি ভিডিওতে অনলাইন বেটিং প্রতিষ্ঠান ব্লেজ এর পক্ষে প্রচারণা করেন তিনি। নেইমারের এক মিলিয়ন ইউরো হারানোর বিষয়টি সত্য ভেবে গণমাধ্যম ও ইন্টারনেটের বিভিন্ন মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। কিন্তু অনুসন্ধানে জানা যায়, নেইমার সত্যিই জুয়া খেলে এক মিলিয়ন ইউরো হারেননি। এটি নেইমারের স্পন্সর অনলাইন বেটিং প্রতিষ্ঠান ব্লেজ এর প্রচারণার অংশ ছিল। 

উল্লেখ্য, গত বছরের (২০২২) ডিসেম্বরে পরবর্তী চার বছরের জন্য ব্লেজ এর সাথে চুক্তিবদ্ধ হন নেইমার। চুক্তি অনুযায়ী, ব্রাজিল ছাড়া বিশ্বব্যাপী প্রতিষ্ঠানটির অনলাইন ক্যাসিনোর প্রচারণা চালাবেন নেইমার। 

সুতরাং, অনলাইন বেটিং প্রতিষ্ঠান ব্লেজ এর প্রচারণাকে অনলাইনে জুয়া খেলে নেইমারের এক মিলিয়ন ইউরো হারানোর দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে; যা বিভ্রান্তিকর। 

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img