অবসরকাণ্ডে তামিমকে প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণ ও গণমাধ্যমে ভুল খবর

গত ৬ জুলাই বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক তামিম ইকবালের অবসর ঘোষণার পর ‘তামিমকে আজ রাত ৮ টায় ডিনারের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী, তামিমও ঢাকার জন্য রওনা দিয়েছেন’ শীর্ষক একটি দাবি ফেসবুক সহ দেশীয় কতিপয় গণমাধ্যমে প্রচার করা হয়।

গণমাধ্যমের ফেসবুক সহ অন্যান্য পেইজে প্রচারিত কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)। 

উক্ত দাবিতে গতকাল দেশীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনগুলো দেখুন জনকন্ঠ, বার্তা বাজার, বাংলাভিশন, দূরবীন নিউজ

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, অবসর ঘোষণার দিন রাতেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তামিমকে গণভবনে আমন্ত্রণ করেননি বরং সেদিন রাত ৮ টার পর থেকে রাত ১০ টারও বেশি সময় পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী সংসদ অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন। তাছাড়া, তামিম ইকবালও সেদিন তার চট্টগ্রামের বাসাতেই ছিলেন। প্রকৃতপক্ষে, পরবর্তীতে ৭ জুলাই (শুক্রবার) অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়ে কথা বলতে তামিমকে আমন্ত্রন জানান প্রধানমন্ত্রী এবং ঐদিন দুপরেই প্রধানমন্ত্রীর রাষ্ট্রীয় বাসভবন গণভবনে যান তামিম ইকবাল। তবে, বেশকিছু ফেসবুক পেজ থেকে কোনো প্রকার সূত্র উল্লেখ ছাড়াই গতদিন রাত ৮ টায় ডিনারের আমন্ত্রণ শীর্ষক দাবিটি প্রথম প্রচার করা হয়েছিল।

ভুয়া তথ্যের সূত্রপাত যেভাবে

দাবিটির সত্যতা যাচাইয়ে ফেসবুকের নিজস্ব মনিটরিং টুলস ব্যবহার করে ৬ জুলাই বিকাল ৫ টা ৪৫ মিনিটে খেলার পাতা নামে একটি ফেসবুক পেইজে এই সম্পর্কিত সম্ভাব্য প্রথম পোস্টটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: Crowdtangle.com

তবে পোস্টটি বিশ্লেষণ করে এই দাবির পক্ষে কোনো সুনির্দিষ্ট সূত্র খুঁজে পাওয়া যায়নি। পোস্টটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

পরবর্তীতে উল্লিখিত দাবিতে গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনগুলো বিশ্লেষণ করেও উক্ত তথ্যের কোনো সূত্র খুঁজে পাওয়া যায়নি। বরং গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনগুলোর সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচারিত বাক্যগুলোর প্রায় হুবহু মিল খুঁজে পাওয়া যায়। 

Image Collage: Rumor Scanner 

এছাড়া প্রতিবেদনগুলোতে সূত্র হিসেবে ‘জানা গেছে।’ এমন অনির্ভরযোগ্য শব্দের উল্লেখ করা হয়েছে। অর্থাৎ গণমাধ্যমের প্রতিবেদনগুলো সূত্রহীন এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে গণমাধ্যমে প্রচারিত তথ্যগুলো সংগৃহীত। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৬ জুলাই সন্ধ্যায় কোথায় ছিলেন? 

গণমাধ্যমসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত পোস্টগুলোতে দাবি করা হয়, বৃহস্পতিবার রাত ৮ টায় প্রধানমন্ত্রী তামিমকে ডিনারের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। তবে অনুসন্ধানে দেখা যায়, ঐ সময় প্রধানমন্ত্রী একাদশ জাতীয় সংসদের ২৩ তম বাজেট অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন।

বৃহস্পতিবার (৬ জুলাই) সন্ধ্যা ৭ টা ৩২ মিনিটে শুরু হওয়া সংসদ অধিবেশনটির লাইভ দেখুন এখানে

Screenshot: BTV Facebook live

অর্থাৎ দেখা যাচ্ছে, বৃহস্পতিবার রাত ৮ টায় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক তামিম ইকবালকে ডিনারের আমন্ত্রণ জানানোর দাবি করা হলেও ঐ সময় প্রধানমন্ত্রীই স্বয়ং সংসদ অধিবেশনে ব্যস্ত ছিলেন। 

৬ জুলাই তামিমের অবস্থান সম্পর্কে যা জানা যাচ্ছে 

দাবিটি নিয়ে বিস্তারিত অনুসন্ধানের সময়ে গত ৬ জুলাই ৬ টা ৪৪ মিনিটে অনলাইন নিউজ পোর্টাল বিডিনিউজ২৪ এর স্পোর্টস এডিটর আরিফুল ইসলাম রনির একটি ফেসবুক পোস্ট খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: Ariful Islam Roney facebook post

পোস্টটিতে তিনি লিখেন, ‘ফেইসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে, তামিমকে নাকি প্রাইম মিনিস্টার ডিনারে ডেকেছেন, তামিম নাকি রওনাও দিয়েছেন ঢাকার পথে… অথচ তামিম চট্টগ্রামে নিজের বাসায় আছেন… পরিবারের সঙ্গে আছেন…  কোনো কল পাননি, এরকম কিছুই হয়নি…ভাইরে ভাই, জাতি একখান আমরা।’

তার এই পোস্ট থেকে জানা যায়, তামিম ৬ জুলাই চট্টগ্রামেই অবস্থান করছিলেন।

বিষয়টি অধিকতর নিশ্চিতের জন্য রিউমর স্ক্যানার টিম দেশের মূলধারার গণমাধ্যমগুলোয় কর্মরত একাধিক ক্রীড়া সাংবাদিকের সাথে যোগাযোগ করে এবং তারা প্রত্যেকেই বিষয়টিকে গুজব হিসেবে উল্লেখ করে জানান, তামিম ৬ জুলাই চট্টগ্রামেই অবস্থান করছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর সাথে তামিমের সাক্ষাৎ

তামিম ইকবালের অবসর ঘোষণা নিয়ে গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা আলোচনা-সমালোচনার মধ্যেই ৭ জুলাই একাধিক গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, তামিম ইকবালের সঙ্গে কথা বলতে তাকে গণভবনে ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ নিয়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন দেখুন প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে অবসর প্রত্যাহার তামিমের(সমকাল), প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে অবসরের সিদ্ধান্ত পাল্টালেন তামিম (ডেইলি স্টার), প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপে অবসর তুলে নিয়েছেন তামিম ইকবাল (বিবিসি বাংলা)।

Screenshot: BBC Bangla 

এসব প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, তামিম ইকবাল চট্টগ্রাম থেকে শুক্রবার (৭ জুলাই) সকালে ঢাকায় আসেন তামিম। পরবর্তীতে দুপুর ৩টার দিকে গণভবনে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা ও স্ত্রী আয়েশা ইকবালসহ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন এবং সেখানে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়। 

পাশাপাশি সাক্ষাৎ শেষে তামিম নিজেই গণমাধ্যমকে বলেন, ‘দুপুরবেলায় আমাকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তার বাসায় দাওয়াত করেছিলেন। উনার সঙ্গে অনেকক্ষণ আমরা আলোচনা করেছি। উনি আমাকে নির্দেশ দিয়েছেন খেলায় ফিরে আসতে। আমি আমার অবসর এই মুহূর্তে তুলে নিচ্ছি।’

Screenshot: The Daily Star

তবে এই প্রতিবেদনগুলো বিশ্লেষণ করে এমন কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি, যার মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া যায় যে, তামিমকে এর আগের দিন অর্থাৎ ৬ জুলাই প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক রাত ৮ টায় ডিনারে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল এবং তিনি চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা করেছেন। বরং প্রতিবেদনগুলো থেকে জানা যায়, তামিম ঢাকায় এসেছিলেন ৭ জুলাই, তার অবসরের ঘোষণা দেওয়ার পরেরদিন সকালে এবং তামিম নিজেও গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন তাকে দুপুরবেলা অর্থাৎ ৭ জুলাই আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল।

এছাড়া অনুসন্ধানের মাধ্যমে জাতীয় দৈনিক সমকাল ও খেলাধুলা ভিত্তিক অনলাইন পোর্টাল বিডি ক্রিক টাইমেও ৬ জুলাই তামিমকে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক রাত ৮ টায় ডিনারে আমন্ত্রণ জানানো এবং তার চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার বিষয়টিকে গুজব উল্লেখ করে প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাতের পরেই তামিম ইকবাল অবসর ভেঙে পুনরায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার ঘোষণা দেন।

মূলত, বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রামের একটি হোটেলে ১৬ বছরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ারের ইতি টানার ঘোষণা দেন বাংলাদেশের ওয়ানডে দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। এরই প্রেক্ষিতে বিকাল নাগাদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি দাবি ছড়িয়ে পড়ে যে, বৃহস্পতিবার রাত আটটায় প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে ডিনার করার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই ডিনারে অংশগ্রহণ করতে চট্টগ্রাম ছেড়ে ঢাকার পথে রওনা হয়েছেন তামিম ইকবাল। তবে উক্ত দাবিটি কোনো নির্ভরযোগ্য সূত্র ছাড়াই প্রথমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ও পরবর্তীতে গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। তবে অনুসন্ধানে জানা যায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক তামিম ইকবালকে ডিনারের জন্য আমন্ত্রণের দাবিকৃত সময়ে তামিম চট্টগ্রামে ও প্রধানমন্ত্রী জাতীয় সংসদের অধিবেশনে ছিলেন।

সুতরাং, বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক তামিম ইকবালের ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণার দিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক তামিমকে ডিনারের আমন্ত্রণ জানানো ও তামিমের চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা রওনা হওয়ার দাবিটি মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img