জাপানে জুলাইতে প্রবল বর্ষণে সৃষ্ট বন্যার খবরে গণমাধ্যমে পুরোনো ছবি

গত জুলাইতে, জাপানে প্রবল বর্ষণে সৃষ্ট বন্যার ঘটনায় বাংলাদেশের গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে দুইটি  ছবি ব্যবহার করা হয়েছে।

ছবিগুলো ব্যবহার করে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বাংলা ট্রিবিউন, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস), ডেইলি সান, নয়া দিগন্ত, সাম্প্রতিক দেশকাল, জুম বাংলা এবং নিউজজি২৪

একই ছবি ব্যবহার করে ফেসবুকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক 

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, প্রচারিত ছবি দুইটি সাম্প্রতিক সময়ে জাপানে প্রবল বর্ষণের ঘটনায় সৃষ্ট বন্যার নয় বরং পূর্বের ভিন্ন ভিন্ন ঘটনার পুরোনো ছবিকে সাম্প্রতিক ঘটনার দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে। 

ছবি যাচাই- ১

Screenshot: Bangla Tribune

জাপানে সাম্প্রতিক প্রবল বর্ষণে সৃষ্ট বন্যার ঘটনার খবরে ছবিটি ব্যবহার করে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বাংলা ট্রিবিউন। 

কিন্তু ছবিটি উক্ত ঘটনার নয়।

ছবিটির বিষয়ে অনুসন্ধানে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি’তে ২০১৩ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর “Powerful Typhoon Man-yi hits central Japan” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে আলোচিত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: BBC

ছবিটির ক্যাপশনে বলা হয়, সে সময় জাপানের কিয়োটোর লোকেরা বন্যা কবলিত রাস্তায় চলাচলের জন্য নৌকায় চড়তে বাধ্য হয়েছিল। 

অর্থাৎ, ছবিটি অন্তত ১০ বছরের পুরোনো। 

ছবি যাচাই- ২

জাপানে সাম্প্রতিক প্রবল বর্ষণে সৃষ্ট বন্যার ঘটনার খবরে ছবিটি ব্যবহার করে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস), ডেইলি সান, নয়া দিগন্ত, সাম্প্রতিক দেশকাল, জুম বাংলা এবং নিউজজি২৪

কিন্তু ছবিটি উক্ত ঘটনার নয়।

ছবিটির মূল সূত্রের বিষয়ে অনুসন্ধানে ব্রিটিশ সংবাদ সংস্থা রয়টার্স এ আলোচিত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: Reuters

ছবিটির ক্যাপশন থেকে জানা যায়, ২০১৫ সালের ১০ সেপ্টেম্বর জাপানের ইবারাকি প্রিফেকচারের জোসোতে, টাইফুন ইটাউ দ্বারা সৃষ্ট কিনুগাওয়া নদী দ্বারা প্লাবিত একটি এলাকায় অগ্নিনির্বাপকদের দ্বারা যানবাহন থেকে লোকদের উদ্বার করার সময় ছবিটি তোলা। 

অর্থাৎ, ছবিটি অন্তত ৮ বছরের পুরোনো। 

গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে আলোচিত ছবিগুলোর ক্যাপশনে ফাইল ফটো বা পুরোনো ছবি শীর্ষক কোনো তথ্য উল্লেখ করা হয়নি বরং কিছু গণমাধ্যম ছবিগুলো সংগৃহীত এবং কোনো কোনো গণমাধ্যম ছবির ক্যাপশনে বিদেশি সংবাদ সংস্থার নাম উল্লেখ করেছে। আবার কোনোটিতে কিছুই উল্লেখ করা হয়নি। সাম্প্রতিক ঘটনার বিষয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে ছবিগুলো ব্যবহার করে সংগৃহীত উল্লেখ কিংবা কোনো তথ্য উল্লেখ না থাকায় স্বাভাবিকভাবেই ছবিগুলো জাপানের সাম্প্রতিক প্রবল বর্ষণের ঘটনার বলে প্রতীয়মান হয়। এতে করে নেটিজেনদের মধ্যে বিভ্রান্তি তৈরি হওয়া অমূলক নয়। 

মূলত, গত জুলাইতে জাপানে প্রবল বর্ষণের ঘটনায় দেশীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জাপানের ঘটনার দাবিতে দুইটি ছবি ব্যবহার করা হয়েছে। তবে, রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ছবিগুলো উক্ত ঘটনার নয়। ভিন্ন ভিন্ন ঘটনার পুরোনো ছবিকে জাপানের সাম্প্রতিক প্রবল বর্ষণের ঘটনার খবরে ব্যবহার করা হয়েছে। প্রকাশিত প্রতিবেদনগুলোতে আলোচিত ছবিগুলোর ক্যাপশনে ফাইল ফটো বা পুরোনো ঘটনার ছবি শীর্ষক কোনো তথ্যও দেওয়া হয়নি। এতে করে স্বাভাবিকভাবে ছবিগুলো জাপানের সাম্প্রতিক বন্যার ঘটনার বলে প্রতীয়মান হয়, যা বিভ্রান্তির জন্ম দিয়েছে।

সুতরাং, জাপানের প্রবল বর্ষণের ঘটনায় বাংলাদেশের গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে দুইটি পুরোনো ছবিকে সাম্প্রতিক দাবিতে প্রচার করা হয়েছে; যা বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img