বাংলাদেশে রাতের আকাশে দেখতে পাওয়া সেই আলোকজ্জ্বল বস্তুটি কি?

সম্প্রতি ‘আকাশে উল্কা, চিনের রকেট উৎক্ষেপণ বা আকাশে UFO দেখা যাওয়া’র দাবিতে কিছু ভিডিও এবং ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে উল্কাপিণ্ড বা উল্কাঝড় দাবিতে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে

চীনের রকেট উৎক্ষেপণের দাবিতে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে। পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে

বাংলাদেশের আকাশে UFO দেখা যাওয়ার দাবিতে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট এখানে, এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, রাতের আকাশে দৃশ্যমান আলোকজ্জ্বল বস্তুটি কোনো উল্কাপিণ্ড বা ঝড়, চীনের রকেট উৎক্ষেপণ বা UFO ছিল না বরং এটি ছিল ভারতীয় সামরিক বাহিনীর অগ্নি-৫ নামে একটি মিসাইলের উৎক্ষেপন পরীক্ষা।

কি-ওয়ার্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে ভারতীয় গণমাধ্যম India Today এর বিজ্ঞান বিষয়ক প্রতিনিধি শিবু ত্রিপাতির ভ্যারিফাইড টুইটার একাউন্টে গত ১৫ ডিসেম্বর #AgniV হ্যাশট্যাগে একটি টুইট খুঁজে পাওয়া যায়।

টুইট বার্তাটি থেকে জানা যায়, ভারত সাড়ে ৫ হাজার কিলোমিটার রেঞ্জের একটি ব্যালাস্টিক মিসাইলের পরীক্ষা চালিয়েছে৷ টুইটটির সঙ্গে ভারতের দক্ষিণবঙ্গ থেকে এই মিসাইলের একটি ছবিও যুক্ত করে দেওয়া হয়েছে।  

পাশাপাশি ভারতীয় গণমাধ্যম Economics Times এর ভ্যারিফাইড টুইটার একাউন্টে একইদিনে টুইট করা একটি বার্তা থেকে জানা যায়, ভারত পারমানবিক ক্ষমতা সম্পন্ন মিসাইলের সফল পরীক্ষা সম্পন্ন করেছে।

এই টুইট বার্তা দুইটি থেকে পাওয়া অগ্নি-৫ মিসাইলের ছবির সঙ্গে বাংলাদেশে বিভিন্ন দাবিতে প্রচারিত ছবি ও ভিডিওগুলোর মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

পরবর্তীতে আরেকটি ভারতীয় গণমাধ্যম NDTV এর ওয়েবসাইটে গত ১৬ ডিসেম্বর “Days After China Clash, Agni V Successfully Tested, It Can Target Beijing” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

প্রতিবেদনটিতে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সূত্রে বলা হয়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ভারতের উড়িষ্যা উপকূল থেকে অগ্নি-৫ নামের একটি ক্ষেপণাস্ত্রের রাত্রিকালীন উৎক্ষেপন পরীক্ষা করা হয়েছে। এই ক্ষেপণাস্ত্রটি ৫ হাজার চারশো কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম।

এছাড়া বাংলাদেশী গণমাধ্যম আরটিভির ওয়েবসাইটে একইদিনে “আকাশে অদ্ভুত আলোর রহস্য জানা গেছে” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকায় আকাশে উড়তে থাকা যে আলোকিত বস্তুটি দেখা গিয়েছিল সেটি মূলত একটি ক্ষেপণাস্ত্র। যেটি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ভারতের উড়িষ্যা থেকে অগ্নি-৫ নামের এই উৎক্ষেপন করা হয় এবং এটি বাংলাদেশের সাতক্ষীরা, রাজশাহী, পিরোজপুরসহ অনেক জেলা থেকেই দেখা গেছে। 

মূলত, ভারত গত ১৫ ডিসেম্বর তাদের উড়িষ্যা উপকূল থেকে অগ্নি-৫ নামের পারমাণবিক ক্ষমতা সম্পন্ন ৫ হাজার চারশো কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম একটি মিসাইলের উৎক্ষেপণ পরীক্ষা চালায়। যেটি বাংলাদেশের সাতক্ষীরা, রাজশাহী, পিরোজপুরসহ অনেক জেলা থেকেই দেখা গেছে। বাংলাদেশ থেকে দেখা যাওয়া এই মিসাইলের ধারণকৃত বিভিন্ন দৃশ্যকে পরবর্তীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে উল্কাপিণ্ড, চীনের রকেট উৎক্ষেপণ ও UFO এর দাবিতে প্রচার করা হয়। 

উল্লেখ্য, UFO এর পূর্ণরূপ হলো Unidentified Flying Object বা অশনাক্তকৃত উড়ন্ত বস্তু৷ পৃথিবীতে UFO এর অস্তিত্ব নিয়ে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা বলছে, এটির অস্তিত্বের কোনো প্রমাণ নেই। তবে অস্তিত্ব নেই মানে অনুপস্থিতির প্রমাণ নয়। যেকোনো কিছু সম্ভব। 

অপরদিকে উল্কা হচ্ছে মহাকাশে পরিভ্রমণরত পাথর বা ধাতু দিয়ে গঠিত ছোট মহাজাগতিক বস্তু, যা পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে প্রবেশ করলে বায়ুর সংঘর্ষে জ্বলে ওঠে। আর বায়ুমণ্ডলে নিঃশেষিত না হয়ে যদি পৃথিবীর বুকে আছড়ে পড়ে তখন তাকে  উল্কাপিণ্ড বলে এবং  এই দুইটিকে একত্রে বলা হয় উল্কাপাত। 

সুতরাং, রাতের আকাশে দৃশ্যমান আলোকজ্জ্বল বস্তুটি কোনো উল্কাপিণ্ড, চীনের রকেট উৎক্ষেপণ ব UFO এর ছিল না; এটি সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img