মির্জা ফখরুলকে শহীদ মিনারে ঢুকতে না দেওয়ার দাবিটি সত্য নয়

সম্প্রতি, “একুশ মানে অন্য দলের মহাসচিবকে শহীদ মিনারে ঢুকতে না দেওয়া। কারণ দেশটা তো তার বাপের।” শীর্ষক শিরোনামে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে
আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে শহীদ মিনারে ঢুকতে না দেয়ার দাবিটি সত্য নয় বরং বিএনপি মহাসচিবের উক্ত ছবিগুলো সংযুক্ত করে ২০১৮ সাল থেকেই এই তথ্যটি সামাজিক মাধ্যমে প্রচার হয়ে আসছে।

কি-ওয়ার্ড সার্চ পদ্ধতি ব্যবহার করে, সংবাদমাধ্যম ‘সময় টিভির’ এর অনলাইন সংস্করণে ২০২৩ সালের ২০শে ফেব্রুয়ারিতে প্রকাশিত ‘হাসপাতালে ভর্তি মির্জা ফখরুল’ শীর্ষক প্রতিবেদনে দেখা যায় ২০ ফেব্রুয়ারি শারীরিক অসুস্থতার কারণে তিনি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন।

Screenshot: Somoy TV Website

সেই দিনই প্রথম আলো’ অনলাইনে ‘মির্জা ফখরুল হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেছেন’ শীর্ষক শিরোনামে অপর একটি খবরে বলা হয় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বাসায় ফিরেছেন এবং তাকে কয়েকদিন বিশ্রাম নিতে হবে।

Screenshot: Prothom Alo Website

এছাড়া ২১ তারিখে গণমাধ্যম এবং বিএনপির সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মির্জা ফখরুলের শাহীদ মিনারে ফুল দেওয়ার কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, এ ‘প্রথম আলো’ অনলাইনে ‘শহীদ মিনারকেও দলবাজির কেন্দ্রে পরিণত করা হয়েছে: মির্জা ফখরুল’ শীর্ষক শিরোনামের খবরে সেদিনের বিভিন্ন অসংগতি তুলে ধরা হয় কিন্তু তাদেরকে ফুল দিতে দেওয়া হয়নি সেই সম্পর্কে কোনো তথ্য বলা হয়নি।

Screenshot: Prothom Alo Website

ছবি যাচাই

রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানের মাধ্যমে, ‘Dibakor Rajbangshi‘ এবং ‘Md Munna Mir‘ নামের ফেসবুক আইডিতে ২০১৮ সালের ২১শে ফেব্রুয়ারিতে প্রকাশিত পোস্টে আলোচিত ছবিটি এবং ভিন্ন ভিন্ন কোণ থেকে তোলা একাধিক ছবি পাওয়া যায়। যেখানে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে মেঝেতে কাগজ বিছিয়ে বসে থাকতে দেখা যায়।

Screenshot: Facebook Post

এই ছবিগুলোই ২০১৮ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে ‘শহীদ মিনারে ঢুকতে বাধা দেওয়ার পর এই ভাবে রাস্তার পাশে বসে থাকেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।’ দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হয়ে আসছে।

মূলত, ২০১৮ সালের ২১শে ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে কোনো একসময় কাগজ বিছিয়ে মেঝেতে বসেছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তার ঐ অবস্থার ছবি তুলে অনেকে বিএনপি মহাসচিবকে শহীদ মিনারে ঢুকতে দেওয়া হয় নি দাবিতে প্রচার করেছিলেন এবং একই দাবিতে সাম্প্রতিক সময়েও প্রচার করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, এর আগেও “মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে আজ শহীদ মিনারে ফুল দিতে বাধা দেওয়া হয়েছে” শীর্ষক শিরোনামে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচার করা হলে বিষয়টিকে মিথ্যা হিসেবে শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার টিম।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img