বরগুনায় আলোচিত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহরম আলী বিএনপির আমলে নিয়োগপ্রাপ্ত নন 

সম্প্রতি, “বরগুনায় ছাত্রলীগের ওপর পুলিশের লাঠিচার্জের ঘটনায় আলোচিত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহরম আলী বিএনপির আমলে (২০০২-২০০৩) ২৪ তম বিসিএসে নিয়োগপ্রাপ্ত” শীর্ষক দাবিতে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানেএখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

বরগুনায় ছাত্রলীগের ওপর পুলিশের লাঠিচার্জের ঘটনায় আলোচিত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহরম আলী ২৪তম বিসিএসে নিয়োগপ্রাপ্ত নন বরং তিনি ২০১০ সালে আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে অনুষ্ঠিত ৩০তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডারে উত্তীর্ণ হয়ে ২০১২ সালে সহকারী পুলিশ সুপার পদে যোগদান করেছেন।

অনুসন্ধানের মাধ্যমে, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ওয়েবসাইট বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়নে পুলিশ সুপারের কার্যালয়, বরগুনা সেকশনে মহরম আলীর চাকরিতে যোগদানের তথ্য খুঁজে পাওয়া। উক্ত ওয়েবসাইটে পাওয়া তথ্য মতে তিনি ৩০ তম বিসিএসে নিয়োগপ্রাপ্ত।

উক্ত তথ্যের সূত্র ধরে কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় কর্তৃক জারিকৃত ৩০ তম বিসিএসের উত্তীর্ণদের নিয়োগ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন যাচাই করে পুলিশ কর্মকর্তা মহরম আলীর ৩০ তম বিসিএসে নিয়োগপ্রাপ্তের তথ্যের সত্যতা খুঁজে পাওয়া যায়। সেখানে দেখা যায়, তিনি পুলিশ ক্যাডারে মেধা তালিকায় ৯৪ তম স্থান লাভ করেছিলেন। তার রোল নাম্বার ছিল ৬০১৭৫৭।

মূলত, গত ১৫ আগস্ট বরগুনায় শোক দিবসের অনুষ্ঠান পালনকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের জের ধরে পুলিশের গাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটে। পরবর্তীতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ লাঠিচার্জ করে। উক্ত লাঠিচার্জকে কেন্দ্র করে বাদানুবাদে লিপ্ত হন দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তা মহরম আলী এবং স্থানীয় সংসদ সদস্য ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু। এর প্রেক্ষিতে উক্ত পুলিশ কর্মকর্তাকে ২৪তম বিসিএস অর্থাৎ বিএনপির আমলে নিয়োগপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, ২০১০ সালে ৩০ তম বিসিএসের নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হয় এবং ২০১২ সালে চূড়ান্ত নিয়োগের ফলাফল প্রকাশ করা হয়। সে সময় বাংলাদেশে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় ছিল বর্তমান ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার।

প্রসঙ্গত, বরগুনার বর্তমান পুলিশ সুপার মুহম্মদ জাহাঙ্গীর মল্লিক ২০০২ সালে অনুষ্ঠিত ২৪ তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডারে উত্তীর্ণ হয়ে ২০০৫ সালে সহকারী পুলিশ সুপার পদে যোগদান করেছেন। তখন বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় ছিল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল(বিএনপি)।

উল্লেখ্য, গত ১৫ আগস্টে বরগুনায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের জের ধরে পুলিশের লাঠিচার্জ কাণ্ডে আলোচিত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহরম আলীকে তাঁর কর্মস্থল থেকে বদলি করে গত ১৬ আগস্ট এক আদেশে প্রথমে বরিশাল রেঞ্জে ডিআইজি কার্যালয়ে এবং পরবর্তীতে আরেক আদেশে চট্টগ্রাম রেঞ্জে সংযুক্ত করা হয়েছে। এছাড়া ওই ঘটনায় আরও পাঁচ পুলিশ সদস্যকে বরগুনা জেলা পুলিশ হতে প্রত্যাহার করা হয়েছে

সুতরাং, বরগুনায় ছাত্রলীগের ওপর পুলিশের লাঠিচার্জের ঘটনায় আলোচিত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহরম আলী বিএনপির আমলে ২৪ তম বিসিএসে নিয়োগপ্রাপ্ত হয়েছেন দাবিতে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

ওয়েবসাইট- পুলিশ সুপারের কার্যালয়, বরগুনা

প্রজ্ঞাপন- ৩০ তম বিসিএস

প্রজ্ঞাপন- ২৪ তম বিসিএস

প্রথমআলো- অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহরমকে চট্টগ্রামে বদলি, আরও ৫ পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img